alt

সংস্কৃতি

ফেইসবুকে সাময়িক নিষিদ্ধ তসলিমা নাসরিন

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : বুধবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২২

ফেইসবুকের নিয়মানুযায়ী ৪৫ ঘণ্টা তসলিমা নাসরিন কোনও পোস্ট বা মন্তব্য লিখতে পারবেন না।২৮ দিন তার পোস্ট সবার নীচে থাকবে। আর আগামী ৫ দিন তিনি কোনও ফেইসবুক গ্রুপে যোগ দিতে পারবেন না।

কী কারণে? অনেকের অনুমান, বিতর্কিত পোস্ট সম্ভবত এর নেপথ্য কারণ। কোলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকা বলছে, ২১ ফেব্রুয়ারি মাতৃভাষা নিয়ে ফেইসবুকে লিখেছিলেন তসলিমা নাসরিন। বাংলাদেশে রেখে আসা স্মৃতি ভাগ করে নিয়েছিলেন, কী ভাবে বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়? তারই এক টুকরো উঠে এসেছিল তার লেখায়। ভারতের একটি সংবাদমাধ্যমের পডকাস্টে নিজের ‘অনুভূতি প্রকাশ’ করেছিলেন।

ফেইসবুকের এই সিদ্ধান্তের পর তসলিমা তার পাতায় লিখেছেন, ‘আমার জন্য একুশে ফেব্রুয়ারির উপহার!’ ফেইসবুকে পোস্টে তিনি লিখেছেন, কী ভাবে ‘ধাপে ধাপে তাকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে’।

তার অনুরাগীদের ধারণা, ‘এগুলো ঘটে পোস্ট রিপোর্ট হয় বলে।’ কারওর মতে, ‘আপনার পোস্টে অপ্রিয় সত্য থাকে বলেই এ রকম হয়।’

কিছুদিন আগেই ফেইসবুক তাকে ‘মৃত ঘোষণা’ করেছিল। ১৭ জানুয়ারি শাঁওলি মিত্রর মৃত্যুর পরেই মৃত্যু সংক্রান্ত একটি পোস্ট দিয়েছিলেন তসলিমা। সেই পোস্টে তার ইচ্ছের কথা জানিয়েছিলেন। প্রথম পংক্তিতেই লিখেছিলেন, ‘আমি চাই আমার মৃত্যুর খবর প্রচার হোক চার দিকে। প্রচার হোক যে, আমি আমার মরণোত্তর দেহ দান করেছি হাসপাতালে, বিজ্ঞান গবেষণার কাজে।’ এটুকু পড়েই ফেসবুক বুঝে নিয়েছিল, লেখিকা আর বেঁচে নেই! সঙ্গে সঙ্গে তার আইডি-তে ‘রিমেমবারিং’ শব্দ জুড়ে দেয়া হয়।

সে সময়েও তসলিমা বিদ্রূপ করে লিখেছিলেন, ‘জি-হা-দিদের প্ররোচনায় ফেসবুক আমাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছিল প্রায় একুশ ঘণ্টা আগে। এই একুশ ঘণ্টায় আমি পরকালটা দেখে এসেছি।’

গত নভেম্বরেও একই ভাবে ফেইসবুক নিষিদ্ধ করেছিল তাকে। সেই সময়ে তসলিমার দাবি ছিল, ‘‘জেহাদ, জেহাদি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে কিছু লিখলেই আমার মতো এক জন মানবাধিকার কর্মীকে নিষিদ্ধ করছে ফেসবুক।’’

উদীচী জবি সংসদের সভাপতি বিপু,সম্পাদক মুক্ত

ছবি

ছায়ানটের ‘ভাষা-সংস্কৃতির আলাপ’-এ অংশগ্রহনের আহবান

ছবি

বেদনাবিধুর ইতিহাসের ‘অভিশপ্ত আগস্ট’ মঞ্চায়ন

চাঁদপুর জেলা উদীচীর সভাপতি কৃষ্ণা সাহা;সম্পাদক জহির উদ্দিন বাবর

ছবি

নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিত হলো ‘মুজিব আমার পিতা’র ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার

ছবি

বিশিষ্ট গীতিকার, কলামিষ্ট কেজি মোস্তফা মারা গেছেন।

ছবি

প্রয়াত বাচিকশিল্পী পার্থ ঘোষ, আবৃত্তি জগতে বিষাদের ছায়া

ছবি

রাখাইনদের জলকেলি উৎসব: অশুভ বিদায়ের প্রত্যাশা

নববর্ষের কবিতা

ছবি

স্মৃতির দরজা খুলে

ছবি

দুঃসময় কাটিয়ে উৎসবে বরণ বাংলা নববর্ষ

ছবি

কক্সবাজারে রাখাইনদের জলকেলি উৎসবের আনুষ্ঠানিকতা চলছে

ছবি

রক্তের আলো

ছবি

উৎসব ও চেতনায় পহেলা বৈশাখ

ছবি

পহেলা বৈশাখের স্মৃতি

ছবি

নববর্ষ ও বাঙালির আত্মপরিচয়

ছবি

দুই বছর পর একটুকরো চমৎকার সকাল

ছবি

ছায়ানটের বর্ষবরণ অনুষ্ঠানের প্রতিপাদ্য বিষয় ‘নব আনন্দে জাগো’

ছবি

আগরতলায় বাংলাদেশের অন্যপ্রকাশ

ছবি

প্রকৃতিমুগ্ধতা, প্রথাহীনতায় ‘শালুক’-এর সাহিত্যআড্ডা

ছবি

দুই বছর পর ঢাবিতে মঙ্গল শোভাযাত্রা

জবিতে ‘জীবন রসায়নে বঙ্গবন্ধু’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন

নওগাঁয় নাটক পালপাড়ার রক্তাক্ত প্লাবন মঞ্চায়িত

অস্কার আসরে ইউক্রেনের জন্য নীরবতা পালন

ছবি

স্বাধীনতা পুরস্কার সাহিত্যে, প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা আমির হামজা আলোচনায়

ছবি

ওবায়েদ আকাশের নতুন কাব্যগ্রন্থ ‘কাগুজে দিন, কাগুজে রাত’

ছবি

শুক্লা গঙ্গোপাধ্যায়ের ‘সহস্রার মূলাধার’

ছবি

ঢাবির মঞ্চে ‘ওয়েটিং ফর গডো’

ছবি

নজরুল সংগীত উৎসবে মুগ্ধতা ছড়ালেন দুই দেশের শিল্পীরা

ছবি

পার্থ সনজয়ের কান ডায়েরি

ছবি

ঢাকা থেকে পুরস্কৃত হলো একমাত্র ‘শালুক’

ছবি

চাঁদপুরে ঐতিহ্যবাহী ‘সংবাদ’ এর আয়োজনে সাহিত্য আড্ডা ও মতবিনিময়

ছবি

বাংলাদেশ-ভারত সাংস্কৃতিক মেলা রাজশাহীতে

ছবি

নারায়ণগঞ্জে পাঠাগারে সাংস্কৃতিক উৎসব ও গুণীজন সম্মাননা

ছবি

রাজশাহীতে বাংলাদেশ-ভারত সাংস্কৃতিক মিলনমেলা

ছবি

কলকাতা বইমেলা শুরু সোমবার, থিমকান্ট্রি বাংলাদেশ

tab

সংস্কৃতি

ফেইসবুকে সাময়িক নিষিদ্ধ তসলিমা নাসরিন

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

বুধবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২২

ফেইসবুকের নিয়মানুযায়ী ৪৫ ঘণ্টা তসলিমা নাসরিন কোনও পোস্ট বা মন্তব্য লিখতে পারবেন না।২৮ দিন তার পোস্ট সবার নীচে থাকবে। আর আগামী ৫ দিন তিনি কোনও ফেইসবুক গ্রুপে যোগ দিতে পারবেন না।

কী কারণে? অনেকের অনুমান, বিতর্কিত পোস্ট সম্ভবত এর নেপথ্য কারণ। কোলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকা বলছে, ২১ ফেব্রুয়ারি মাতৃভাষা নিয়ে ফেইসবুকে লিখেছিলেন তসলিমা নাসরিন। বাংলাদেশে রেখে আসা স্মৃতি ভাগ করে নিয়েছিলেন, কী ভাবে বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়? তারই এক টুকরো উঠে এসেছিল তার লেখায়। ভারতের একটি সংবাদমাধ্যমের পডকাস্টে নিজের ‘অনুভূতি প্রকাশ’ করেছিলেন।

ফেইসবুকের এই সিদ্ধান্তের পর তসলিমা তার পাতায় লিখেছেন, ‘আমার জন্য একুশে ফেব্রুয়ারির উপহার!’ ফেইসবুকে পোস্টে তিনি লিখেছেন, কী ভাবে ‘ধাপে ধাপে তাকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে’।

তার অনুরাগীদের ধারণা, ‘এগুলো ঘটে পোস্ট রিপোর্ট হয় বলে।’ কারওর মতে, ‘আপনার পোস্টে অপ্রিয় সত্য থাকে বলেই এ রকম হয়।’

কিছুদিন আগেই ফেইসবুক তাকে ‘মৃত ঘোষণা’ করেছিল। ১৭ জানুয়ারি শাঁওলি মিত্রর মৃত্যুর পরেই মৃত্যু সংক্রান্ত একটি পোস্ট দিয়েছিলেন তসলিমা। সেই পোস্টে তার ইচ্ছের কথা জানিয়েছিলেন। প্রথম পংক্তিতেই লিখেছিলেন, ‘আমি চাই আমার মৃত্যুর খবর প্রচার হোক চার দিকে। প্রচার হোক যে, আমি আমার মরণোত্তর দেহ দান করেছি হাসপাতালে, বিজ্ঞান গবেষণার কাজে।’ এটুকু পড়েই ফেসবুক বুঝে নিয়েছিল, লেখিকা আর বেঁচে নেই! সঙ্গে সঙ্গে তার আইডি-তে ‘রিমেমবারিং’ শব্দ জুড়ে দেয়া হয়।

সে সময়েও তসলিমা বিদ্রূপ করে লিখেছিলেন, ‘জি-হা-দিদের প্ররোচনায় ফেসবুক আমাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছিল প্রায় একুশ ঘণ্টা আগে। এই একুশ ঘণ্টায় আমি পরকালটা দেখে এসেছি।’

গত নভেম্বরেও একই ভাবে ফেইসবুক নিষিদ্ধ করেছিল তাকে। সেই সময়ে তসলিমার দাবি ছিল, ‘‘জেহাদ, জেহাদি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে কিছু লিখলেই আমার মতো এক জন মানবাধিকার কর্মীকে নিষিদ্ধ করছে ফেসবুক।’’

back to top