alt

সংস্কৃতি

দুই বাংলার মিলন উৎসব শুরু

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : শনিবার, ২২ অক্টোবর ২০২২

বাংলাদেশ ও ভারতের ৪৪টি নাট্যদলের অংশগ্রহণে শুরু হলো দুই বাংলার মিলন উৎসব। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালায় গঙ্গা–যমুনা সাংস্কৃতিক উৎসব–২০২২ উদ্বোধন করেন নাট্যব্যক্তিত্ব আতাউর রহমান। তিনি বলেন, ‘সংস্কৃতিচর্চা আমাদের বিশ্বদরবারে পৌঁছানোর সুযোগ করে দেয়, আবার বিদেশ থেকে যা কিছু ভালো, আমরা গ্রহণ করতে পারি। এভাবে এই উৎসবের মাধ্যমে আমরা মানুষেরা এক হব।’

উদ্বোধনী সন্ধ্যায় জাতীয় নাট্যশালার প্রধান মিলনায়তনে মঞ্চস্থ হয় থিয়েটার বেইলি রোডের নাটক পোহালে শর্বরী। নাটকটির নির্দেশনা দিয়েছেন রামেন্দু মজুমদার ও ত্রপা মজুমদার। এর আগে ছিল উদ্বোধনী নৃত্য। ওয়ার্দা রিহাবের পরিচালনায় দেশাত্মবোধক গানের সঙ্গে দলীয় নৃত্য পরিবেশন করেন ধৃতি নর্তনালয়ের শিল্পীরা। আতাউর রহমান বলেন, শিল্প–সংস্কৃতির মাধ্যমে মানুষে মানুষে মিলনের বিরাট সুযোগ তৈরি হয়। কেবল বিনোদন নয়, এই চর্চা গণশিক্ষারও মাধ্যম।

জাতীয় সংগীতের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া উৎসবের উদ্বোধনী পর্বে প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। উৎসব পর্ষদের আহ্বায়ক ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছের সভাপতিত্বে সম্মানিত অতিথি ছিলেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার, আসাদুজ্জামান নূর, মামুনুর রশীদ, নাসির উদ্দীন ইউসুফ, লিয়াকত আলী লাকী, আইএফআইসি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী শাহ আলম সারোয়ার এবং সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক মো. আহকাম উল্লাহ। মঞ্চে উঠেই প্রদীপ প্রজ্বালনের মাধ্যমে উৎসবের সূচনা করেন এই অতিথিরা। এ ছাড়া নাট্যাঙ্গনের প্রয়াত গুণীজনদের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

রামেন্দু মজুমদার বলেন, এই উৎসবের মাধ্যমে বহু সাংস্কৃতিক কর্মী একত্র হন। এভাবেই মানুষে মানুষে সম্প্রীতি গড়ে তুলতে হবে। নয়তো সাংস্কৃতিক সব অর্জন ব্যর্থ হয়ে যাবে। এ ক্ষেত্রে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর দিকে আরও বেশি মনোযোগ দেওয়া উচিত। আসাদুজ্জামান নূর বলেন, ‘সমাজের ভেতরে যা হচ্ছে, সেই লক্ষণগুলো ভালো নয়। সংস্কৃতিতে আমাদের কিছু ঘাটতি রয়েছে। এগুলো পূরণ না করলে সামনের দিনগুলো আমাদের জন্য ভালো হবে না।’

গঙ্গা–যমুনা উৎসব সংস্কৃতিকর্মীদের শক্তি দেয়। এ প্রসঙ্গে নাসির উদ্দীন ইউসুফ বলেন, ‘এই উৎসব কেবল বাংলাদেশের নয়, বাঙালির। এর মধ্য দিয়ে আমরা সৃষ্টিশীলতা বিনিময় করি। পরস্পরকে জানি, পরস্পরের কাজ দেখার মাধ্যমে নিজেকে প্রস্তুত করি। এটি আমাদের শক্তি দেয়।’

কে এম খালিদ বলেন, ‘সংস্কৃতিকর্মীরা প্রাপ্তির আশা ছাড়াই গণতান্ত্রিক আন্দোলনে লড়াই করে গেছেন। এই সরকারকে টিকিয়ে রাখার দায়িত্বও আপনাদের, যাতে ২০৪১ সালের ডেল্টা প্ল্যান বাস্তবায়ন করা যায়।’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন উৎসবের সদস্যসচিব আক্তারুজ্জামান।

শিল্পকলা একাডেমির পাঁচটি মঞ্চ ও বেইলি রোডের মহিলা সমিতির নীলিমা ইব্রাহিম মিলনায়তন মঞ্চে দর্শনীর বিনিময়ে উৎসবের নাটকগুলো দেখা যাবে ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত। উৎসবে দেখা যাবে দুই দেশের মোট ১২৩টি সাংস্কৃতিক সংগঠনের নাটক ও সাংস্কৃতিক পরিবেশনা।

শনিবার সন্ধ্যা সাতটায় প্রধান মিলনায়তনে রয়েছে ঢাকা থিয়েটারের নাটক নিমজ্জন, পরীক্ষণ থিয়েটারে ঢাকা পদাতিকের পাইচো চোরের কিচ্ছা, স্টুডিও থিয়েটারে অপেরার হাত বাড়িয়ে দাও, মহিলা সমিতিতে শব্দ নাট্যচর্চা কেন্দ্রের কী চাহ শঙ্খচিল। উৎসবে নাটক নিয়ে এসেছে ভারতের ৪টি, ঢাকা ও ঢাকার বাইরের ৪০টি দল।

ছবি

শিবচরে কবিতা উৎসব অনুষ্ঠিত

ছবি

বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার ঘোষণা

ছবি

সাংস্কৃতিক সমাবেশ সফল করতে ১৫ সাংস্কৃতিক ফেডারেশনের যৌথ বিবৃতি

ছবি

একটা পঙ্গু মানুষের জীবন আমাকে দেওয়া হলো: তসলিমা নাসরিন

ছবি

‘দেশে ও দেশের বাইরে জসীম উদ্দীনের শিল্পকর্ম ছড়িয়ে দিতে হবে’

ছবি

এই মঙ্গলবার বটতলার ‘সখী রঙ্গমালা’ মঞ্চে উঠবে

ছবি

ছায়ানটের শ্রোতার আসরে গান পরিবেশিত

ছবি

নড়াইলে ঘোড়াদৌড় প্রতিযোগিতায় ১০ গ্রামের মিলনমেলা

ছবি

সোনারগাঁয়ে বুধবার থেকে শুরু হচ্ছে মাসব্যাপী লোকজ উৎসব

ছবি

৩৫তম জাতীয় কবিতা উৎসব ১ ও ২ ফেব্রুয়ারি

ছবি

ফেব্রুয়ারিতে আর্মি স্টেডিয়ামে ব্র্যাকের ‘আশার উৎসব’

ছবি

শেষ হলো ‘ঢাকা লিট ফেস্ট’

ছবি

আমি সাধারণ মানুষের জীবনের জটিলতা নিয়ে বেশী আগ্রহী: নোবেলজয়ী আব্দুল রাজাক গুরনাহ

ছবি

প্রকাশিত হল আকাশ চৌধুরী সম্পাদিত বিজয় চিরন্তন

ছবি

জমে উঠেছে ঢাকা লিট ফেস্ট

ছবি

ছাপা বইয়ের চাহিদা শেষ নয়, ভুট্টা ও ফাইবারে হতে পারে কাগজ

ছবি

ঢাবিতে পর্দা নামলো তিনদিনব্যাপী নন-ফিকশন বইমেলার 

ছবি

পাখি নিয়ে অনুপম প্রদর্শনী ‘দ্য উইংস অব ভাইব্র্যান্স’

ছবি

‘বিশ্ব মেলে ছবির মেলায়’ থিমে চলছে কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব

ছবি

চলে গেলেন বগুড়ার যাত্রা অভিনেতা বুলবুল

ছবি

জাদুঘরে ‘পূর্বাপরে পদ্মা সেতু: সাংস্কৃতিক পরিপ্রেক্ষিত’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

ফরিদপুরে চলচ্চিত্রকার তারেক মাসুদের ৬৬তম জন্মদিন পালিত

ছবি

কলকাতায় বাংলদেশের বইমেলা উদ্বোধন করলেন শিক্ষামন্ত্রী দীপুমনি

দুদেশের সৌহার্দের নতুন দিগন্ত সূচনার আশা

ছবি

বগুড়ায় কবি সম্মেলনে পাঁচ বিশিষ্ট ব্যক্তিকে লেখক চক্রের সম্মাননা

ছবি

কবি বেগম সুফিয়া কামালের ২৩ তম মৃত্যুবার্ষিকী

ছবি

মাটির তৈজস গড়ে ৬৫ বছর পার করলেন ভালুকার মৃৎ শিল্পী শোভারানী পাল

ছবি

নওগাঁয় জেলা শিল্পকলা একাডেমির সন্মাননা প্রদান

ছবি

নির্বাচন কেন্দ্রীক অস্থিতিশীলতাঃ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আলোকচিত্র প্রদর্শনী

ছবি

২ বছর ধরে বন্ধ : নষ্ট হচ্ছে মাধবপুর উপজেলা লাইব্রেরী আসবাবপত্র ও মূল্যবান বই

সংস্কৃতির সম্পর্ক সীমান্তের কাঁটাতার, সাত সমুদ্রও চ্ছিন্ন করতে পারেনা

ফরিদপুরে স্বাধীনতার সুবর্ণ-জয়ন্তি চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধন

ছবি

আবৃত্তিপ্রেমীর দ্বিতীয় আবৃত্তি উৎসব শুক্রবার

কলকাতায় শুরু হলো চর্তুথ বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসব

ছবি

নানা আয়োজনে উদীচীর ৫৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

অষ্টম জাতীয় ত্বকী চিত্রাঙ্কন ও রচনা প্রতিযোগিতা

tab

সংস্কৃতি

দুই বাংলার মিলন উৎসব শুরু

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

শনিবার, ২২ অক্টোবর ২০২২

বাংলাদেশ ও ভারতের ৪৪টি নাট্যদলের অংশগ্রহণে শুরু হলো দুই বাংলার মিলন উৎসব। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালায় গঙ্গা–যমুনা সাংস্কৃতিক উৎসব–২০২২ উদ্বোধন করেন নাট্যব্যক্তিত্ব আতাউর রহমান। তিনি বলেন, ‘সংস্কৃতিচর্চা আমাদের বিশ্বদরবারে পৌঁছানোর সুযোগ করে দেয়, আবার বিদেশ থেকে যা কিছু ভালো, আমরা গ্রহণ করতে পারি। এভাবে এই উৎসবের মাধ্যমে আমরা মানুষেরা এক হব।’

উদ্বোধনী সন্ধ্যায় জাতীয় নাট্যশালার প্রধান মিলনায়তনে মঞ্চস্থ হয় থিয়েটার বেইলি রোডের নাটক পোহালে শর্বরী। নাটকটির নির্দেশনা দিয়েছেন রামেন্দু মজুমদার ও ত্রপা মজুমদার। এর আগে ছিল উদ্বোধনী নৃত্য। ওয়ার্দা রিহাবের পরিচালনায় দেশাত্মবোধক গানের সঙ্গে দলীয় নৃত্য পরিবেশন করেন ধৃতি নর্তনালয়ের শিল্পীরা। আতাউর রহমান বলেন, শিল্প–সংস্কৃতির মাধ্যমে মানুষে মানুষে মিলনের বিরাট সুযোগ তৈরি হয়। কেবল বিনোদন নয়, এই চর্চা গণশিক্ষারও মাধ্যম।

জাতীয় সংগীতের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া উৎসবের উদ্বোধনী পর্বে প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। উৎসব পর্ষদের আহ্বায়ক ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছের সভাপতিত্বে সম্মানিত অতিথি ছিলেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার, আসাদুজ্জামান নূর, মামুনুর রশীদ, নাসির উদ্দীন ইউসুফ, লিয়াকত আলী লাকী, আইএফআইসি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী শাহ আলম সারোয়ার এবং সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক মো. আহকাম উল্লাহ। মঞ্চে উঠেই প্রদীপ প্রজ্বালনের মাধ্যমে উৎসবের সূচনা করেন এই অতিথিরা। এ ছাড়া নাট্যাঙ্গনের প্রয়াত গুণীজনদের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

রামেন্দু মজুমদার বলেন, এই উৎসবের মাধ্যমে বহু সাংস্কৃতিক কর্মী একত্র হন। এভাবেই মানুষে মানুষে সম্প্রীতি গড়ে তুলতে হবে। নয়তো সাংস্কৃতিক সব অর্জন ব্যর্থ হয়ে যাবে। এ ক্ষেত্রে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর দিকে আরও বেশি মনোযোগ দেওয়া উচিত। আসাদুজ্জামান নূর বলেন, ‘সমাজের ভেতরে যা হচ্ছে, সেই লক্ষণগুলো ভালো নয়। সংস্কৃতিতে আমাদের কিছু ঘাটতি রয়েছে। এগুলো পূরণ না করলে সামনের দিনগুলো আমাদের জন্য ভালো হবে না।’

গঙ্গা–যমুনা উৎসব সংস্কৃতিকর্মীদের শক্তি দেয়। এ প্রসঙ্গে নাসির উদ্দীন ইউসুফ বলেন, ‘এই উৎসব কেবল বাংলাদেশের নয়, বাঙালির। এর মধ্য দিয়ে আমরা সৃষ্টিশীলতা বিনিময় করি। পরস্পরকে জানি, পরস্পরের কাজ দেখার মাধ্যমে নিজেকে প্রস্তুত করি। এটি আমাদের শক্তি দেয়।’

কে এম খালিদ বলেন, ‘সংস্কৃতিকর্মীরা প্রাপ্তির আশা ছাড়াই গণতান্ত্রিক আন্দোলনে লড়াই করে গেছেন। এই সরকারকে টিকিয়ে রাখার দায়িত্বও আপনাদের, যাতে ২০৪১ সালের ডেল্টা প্ল্যান বাস্তবায়ন করা যায়।’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন উৎসবের সদস্যসচিব আক্তারুজ্জামান।

শিল্পকলা একাডেমির পাঁচটি মঞ্চ ও বেইলি রোডের মহিলা সমিতির নীলিমা ইব্রাহিম মিলনায়তন মঞ্চে দর্শনীর বিনিময়ে উৎসবের নাটকগুলো দেখা যাবে ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত। উৎসবে দেখা যাবে দুই দেশের মোট ১২৩টি সাংস্কৃতিক সংগঠনের নাটক ও সাংস্কৃতিক পরিবেশনা।

শনিবার সন্ধ্যা সাতটায় প্রধান মিলনায়তনে রয়েছে ঢাকা থিয়েটারের নাটক নিমজ্জন, পরীক্ষণ থিয়েটারে ঢাকা পদাতিকের পাইচো চোরের কিচ্ছা, স্টুডিও থিয়েটারে অপেরার হাত বাড়িয়ে দাও, মহিলা সমিতিতে শব্দ নাট্যচর্চা কেন্দ্রের কী চাহ শঙ্খচিল। উৎসবে নাটক নিয়ে এসেছে ভারতের ৪টি, ঢাকা ও ঢাকার বাইরের ৪০টি দল।

back to top