alt

সংস্কৃতি

ঢাবিতে পর্দা নামলো তিনদিনব্যাপী নন-ফিকশন বইমেলার 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি  : বুধবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০২২

খ্যাতিমান প্রকাশকদের অংশগ্রহণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত তিনদিনব্যাপী নন-ফিকশন বইমেলার পর্দা নামলো। গতকাল বুধবার বিকেল চারটায় সমাপনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে তিনদিনব্যাপী এ মেলার সমাপ্তি ঘটেছে। 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাবির প্রো-ভিসি (শিক্ষা) প্রফেসর ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল। এর আগে গত সোমবার সকাল ১০টায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে মেলার উদ্বোধন করেন ঢাবি ভিসি প্রফেসর ড. মো. আখতারুজ্জামান। ঢাবির ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ ও জাতীয় দৈনিক বণিক বার্তা যৌথভাবে ৬ষ্ঠ বারের মতো এ মেলার আয়োজন করে। 

২৬-২৮ ডিসেম্বর প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত ছিল নন-ফিকশন বইমেলা প্রাঙ্গণ। এ বছর সর্বমোট ৩৯ প্রকাশনা ও গবেষণা সংস্থা মেলায় অংশ নিয়েছে। নন-ফিকশন বইমেলার আয়োজনের ব্যাপারে আয়োজক কমিটি বলেন, নন-ফিকশন বইমেলা আয়োজনের অন্যতম লক্ষ্য হলো শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে ব্যবসা, অর্থনীতিসহ নন-ফিকশন বইয়ের পরিচিতি বৃদ্ধি এবং এ ধরনের বই পড়ায় আগ্রহী করে তোলা। নন-ফিকশন বইমেলা এরই মধ্যে শিক্ষার্থী ও পাঠকমহলে ব্যাপকভাবে সমাদৃত হওয়ার পাশাপাশি পুস্তক বিপণনের ক্ষেত্রেও অভূতপূর্ব সাড়া পাওয়া গেছে বলে জানান আয়োজক কমিটি।

এ বছর প্রথমবারের মতো বর্ষসেরা নন- ফিকশন বই প্রকাশক পুরস্কার প্রবর্তন করেছে বইমেলা কর্তৃপক্ষ। মেলায় অংশ নেয়া প্রকাশকদের মনোনীত বই থেকে বিচারক প্যানেল ২০২২ সালের সেরা নন-ফিকশন প্রকাশক নির্বাচিত করেন। গতকাল মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানে এই বর্ষসেরা নন- ফিকশন প্রকাশক পুরস্কার ঘোষণা করা হয়। মেলায় বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে সেরা প্রকাশনী নির্বাচিত হয়েছেন ইউনিভার্সিটি প্রেস লিমিটেড ও দ্বিতীয় হয়েছেন প্রথমা প্রকাশনী। 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর ড.এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোতে বিতর্ক, সাহিত্য চর্চা ও নাটকের বিশাল একটি ঐতিহ্য রয়েছে। এই মেলা শিক্ষার্থীদের তথ্য উপাত্ত ভিত্তিক জ্ঞানচর্চায় আরো বেশি সহায়তা করতে পেরেছে। নন-ফিকশন বইয়ের সাথে শিক্ষার্থীদের পরিচিত করার ব্যাপারে সহায়তা করেছে এই মেলা। এজন্য তিনি আয়োজক কমিটির প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন ও শিক্ষার্থীদের মন মগজে ইতিহাস ঐতিহ্য ও জ্ঞান বিজ্ঞানের নানা শাখায় আগ্রহী করে তুলবে বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

সমাপনী অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটির সভাপতি প্রফেসর খন্দকার বজলুল হক, ঢাবির অর্থনীতি বিভাগের সাবেক প্রফেসর আবুল কাসেম ফজলুল হক ও বর্তমান চেয়ারম্যান প্রফেসর এম এম আকাশ, বিজনেস অনুষদের ডিন প্রফেসর মুহাম্মদ আব্দুল মঈন ও বণিক বার্তা সম্পাদক দেওয়ান হানিফ প্রমুখ। 

ছবি

‘রোড টু বালুরঘাট’, মুক্তিযুদ্ধে শরণার্থীদের চিত্র প্রদর্শন

ছবি

পাবলিশহার এক্সেলেন্স অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলাদেশের মিতিয়া ওসমান

ছবি

চট্টগ্রামে শান্তিপূর্ণ ও উৎসব মুখর পরিবেশে বর্ষ বরন সম্পন্ন

ছবি

জামালপুরে বাংলা নববর্ষ উদযাপিত

ছবি

বনাঢ্য নানান আয়োজনে বিভাগীয় নগরী রংপুরে পালিত হচ্ছে পহেলা বৈশাখ

ছবি

আজ চৈত্র সংক্রান্তি

ছবি

বর্ষবরণে সময়ের বিধি-নিষেধ মানবে না সাংস্কৃতিক জোট

ছবি

স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার গুণীজন সংবর্ধনা

ছবি

স্মার্ট বাংলাদেশের স্বপ্নযাত্রায় সকল প্রতিষ্ঠানকে কাজ করতে হবে : ড. কামাল চৌধুরী

ছবি

এলাকাবাসীর সঙ্গে নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ

জাতীয় রবীন্দ্রসঙ্গীত সম্মিলন পরিষদের নতুন কমিটি, ড. সনজীদা খাতুন সভাপতি, ড. আতিউর রহমান নির্বাহী সভাপতি,লিলি ইসলাম সাধারণ সম্পাদক

ছবি

এবার বইমেলায় ৬০ কোটি টাকার বই বিক্রি

ছবি

আজ শেষ হচ্ছে মহান একুশের বইমেলা, বিক্রি বেড়েছে শেষ মুহুর্তে

ছবি

আগামী বছর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বইমেলার জায়গা বরাদ্দ নাওদিতে পারে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়

ছবি

বইমেলা, মেয়াদ বাড়ায় খুশি সবাই

ছবি

বইমেলায় ফ্রান্স প্রবাসী কাজী এনায়েত উল্লাহর দুই বই

ছবি

নারী লেখকদের বই কম, বিক্রিও কম

ছবি

বইমেলায় বিদায়ের সুর

ছবি

শিশুদের আনন্দ উচ্ছ্বাসে জমজমাট বইমেলার শিশু প্রহর

ছবি

বইমেলায় শিশুদের চোখে মুখে ছিল আনন্দ উচ্ছ্বাস

ছবি

বই মেলায় খুদে লেখকদের গল্প সংকলন ‘কিশোর রূপাবলি’

ছবি

`বঙ্গবন্ধুর প্রত্যাশিত উন্নত শিরের বাঙালি জাতি চাই’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

ছবি

বইমেলায় সরোজ মেহেদীর ‘চেনা নগরে অচিন সময়ে’

ছবি

বইমেলায় মাহবুবুর রহমান তুহিনের ‘চেকবই’

বইমেলায় প্রকাশিত হলো সাংবাদিক মনিরুজ্জামান উজ্জ্বলের ‘যাপিত জীবনের গল্প’

ছবি

সমাজসেবায় একুশে পদকঃ এখনও ফেরি করে দই বিক্রি করেন জিয়াউল হক

ছবি

বইমেলায় পন্নী নিয়োগীর নতুন গ্রল্পগ্রন্থ আতশবাজি

ছবি

ভাষার শক্তি জাতীয়তাবাদী শক্তিকে সুদৃঢ় করে: উপাচার্য ড. মশিউর রহমান

ছবি

রুবেলের গ্রন্থ শিশির ঝরা কবিতা

ঢাবিতে পাঁচ দিনব্যাপী ‘আমার ভাষার চলচ্চিত্র’ উৎসব শুরু

ছবি

সোনারগাঁয়ে লোকজ উৎসবে খেলাঘরের নাচ-গান পরিবেশন

ছবি

বাংলা একাডেমি পুরস্কার ফেরত দিলেন জাকির তালুকদার

ছবি

রংতুলির মাধ্যমে নিরাপদ সড়কের দাবি শিশুদের

ছবি

জাতীয় প্রেস ক্লাবে পিঠা উৎসব ও লোকগানের আসর

ফরিদপুরে ২ ফেব্রূয়ারি থেকে ঐতিহ্যবাহী জসীম পল্লী মেলা

ছবি

লেনিন উপন্যাসের প্রকাশনা উৎসব

tab

সংস্কৃতি

ঢাবিতে পর্দা নামলো তিনদিনব্যাপী নন-ফিকশন বইমেলার 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি 

বুধবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০২২

খ্যাতিমান প্রকাশকদের অংশগ্রহণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত তিনদিনব্যাপী নন-ফিকশন বইমেলার পর্দা নামলো। গতকাল বুধবার বিকেল চারটায় সমাপনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে তিনদিনব্যাপী এ মেলার সমাপ্তি ঘটেছে। 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাবির প্রো-ভিসি (শিক্ষা) প্রফেসর ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল। এর আগে গত সোমবার সকাল ১০টায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে মেলার উদ্বোধন করেন ঢাবি ভিসি প্রফেসর ড. মো. আখতারুজ্জামান। ঢাবির ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ ও জাতীয় দৈনিক বণিক বার্তা যৌথভাবে ৬ষ্ঠ বারের মতো এ মেলার আয়োজন করে। 

২৬-২৮ ডিসেম্বর প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত ছিল নন-ফিকশন বইমেলা প্রাঙ্গণ। এ বছর সর্বমোট ৩৯ প্রকাশনা ও গবেষণা সংস্থা মেলায় অংশ নিয়েছে। নন-ফিকশন বইমেলার আয়োজনের ব্যাপারে আয়োজক কমিটি বলেন, নন-ফিকশন বইমেলা আয়োজনের অন্যতম লক্ষ্য হলো শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে ব্যবসা, অর্থনীতিসহ নন-ফিকশন বইয়ের পরিচিতি বৃদ্ধি এবং এ ধরনের বই পড়ায় আগ্রহী করে তোলা। নন-ফিকশন বইমেলা এরই মধ্যে শিক্ষার্থী ও পাঠকমহলে ব্যাপকভাবে সমাদৃত হওয়ার পাশাপাশি পুস্তক বিপণনের ক্ষেত্রেও অভূতপূর্ব সাড়া পাওয়া গেছে বলে জানান আয়োজক কমিটি।

এ বছর প্রথমবারের মতো বর্ষসেরা নন- ফিকশন বই প্রকাশক পুরস্কার প্রবর্তন করেছে বইমেলা কর্তৃপক্ষ। মেলায় অংশ নেয়া প্রকাশকদের মনোনীত বই থেকে বিচারক প্যানেল ২০২২ সালের সেরা নন-ফিকশন প্রকাশক নির্বাচিত করেন। গতকাল মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানে এই বর্ষসেরা নন- ফিকশন প্রকাশক পুরস্কার ঘোষণা করা হয়। মেলায় বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে সেরা প্রকাশনী নির্বাচিত হয়েছেন ইউনিভার্সিটি প্রেস লিমিটেড ও দ্বিতীয় হয়েছেন প্রথমা প্রকাশনী। 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর ড.এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোতে বিতর্ক, সাহিত্য চর্চা ও নাটকের বিশাল একটি ঐতিহ্য রয়েছে। এই মেলা শিক্ষার্থীদের তথ্য উপাত্ত ভিত্তিক জ্ঞানচর্চায় আরো বেশি সহায়তা করতে পেরেছে। নন-ফিকশন বইয়ের সাথে শিক্ষার্থীদের পরিচিত করার ব্যাপারে সহায়তা করেছে এই মেলা। এজন্য তিনি আয়োজক কমিটির প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন ও শিক্ষার্থীদের মন মগজে ইতিহাস ঐতিহ্য ও জ্ঞান বিজ্ঞানের নানা শাখায় আগ্রহী করে তুলবে বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

সমাপনী অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটির সভাপতি প্রফেসর খন্দকার বজলুল হক, ঢাবির অর্থনীতি বিভাগের সাবেক প্রফেসর আবুল কাসেম ফজলুল হক ও বর্তমান চেয়ারম্যান প্রফেসর এম এম আকাশ, বিজনেস অনুষদের ডিন প্রফেসর মুহাম্মদ আব্দুল মঈন ও বণিক বার্তা সম্পাদক দেওয়ান হানিফ প্রমুখ। 

back to top