alt

রাজনীতি

ড. ইউনূসকে হয়রানি বন্ধ করুন : অ্যামনেস্টি

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : মঙ্গলবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলেছে, বাংলাদেশের কর্তৃপক্ষকে অবশ্যই শ্রম আইনকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে নোবেলজয়ী মুহাম্মদ ইউনূসকে হয়রানি এবং ভয়ভীতি প্রদর্শন অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে। বিচারের নামে সরকারের এই প্রতারণার অবসানের সময় এসেছে।

সোমবার(১৮ সেপ্টেম্বর)এক বিবৃতিতে এসব কথা বলে যুক্তরাজ্যভিত্তিক আন্তর্জাতিক মানবাধিকার এই সংস্থাটি।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাটি বলেছে, ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে ১৫০টিরও বেশি মামলা দিয়েছে। ড. ইউনূস এবং তাঁর সহকর্মীদের বিরুদ্ধে শ্রম আইনে ফৌজদারি কার্যক্রম শুরু বিচার ব্যবস্থার নির্লজ্জ অপব্যবহার এমনটাই বিশ্বাস করে অ্যামনেস্টি। এগুলো তাঁর কর্মকাণ্ড এবং ভিন্নমতের প্রতি রাজনৈতিক প্রতিশোধেরই একটি রূপ।

অ্যামনেস্টির মহাসচিব অ্যাগনেস কালামার্ড বিবৃতিতে বলেছেন, ড. ইউনূসের মামলাটি বাংলাদেশের মানবাধিকারের বিপর্যস্ত অবস্থার প্রতীক। কর্তৃপক্ষ দেশটিতে নাগরিক স্বাধীনতা খর্ব করেছে এবং সমালোচকদের বশ্যতা স্বীকার করাতে বুলডোজার চালিয়েছে। আইনের অপব্যবহার এবং প্রতিহিংসার জন্য বিচার ব্যবস্থার অপব্যবহার অসংগত।

অ্যামনেস্টির বিবৃতিতে আরও বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বহুবার প্রকাশ্যে ড. ইউনূসকে আক্রমণ করেছেন। অতি সম্প্রতি তিনি বলেছেন, ‘অনেক নোবেল বিজয়ী এখন কারাগারে’ এবং ‘আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে।’ এতে বোঝা যাচ্ছে, ড. ইউনূসকেও কারারুদ্ধ করা হতে পারে।

বিবৃতিতে বলা হয়, ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে যে রকম অস্বাভাবিক গতিতে বিচারকাজ চলছে, তা বাংলাদেশের অন্যান্য শ্রম অধিকার-সম্পর্কিত মামলার সম্পূর্ণ বিপরীত। এর মধ্যে রয়েছে ২০২২ সালে চট্টগ্রামের বিএম কন্টেইনার ডিপো এবং ২০২১ সালে নারায়ণগঞ্জের হাসেম ফুডস ফ্যাক্টরিতে আগুন লাগার ঘটনা। অভিযোগ রয়েছে, মালিকদের অবহেলা এবং নিরাপত্তার মান না মেনে চলার কারণে দুটি দুর্ঘটনায় প্রায় ১০০ শ্রমিক মারা গেছে। উভয় ক্ষেত্রেই কোম্পানির মালিকদের কোনো ধরনের জবাবদিহির সম্মুখীন হওয়ার কথা শোনা যায়নি। সামান্য ক্ষতিপূরণ দিয়েই তারা জবাবদিহি এড়িয়েছে।

অ্যামনেস্টির মহাসচিব কালামার্ড বলেন, ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ সরকার নিরলস দুর্নাম রটাচ্ছে। এতে বোঝা হচ্ছে, বর্তমান সরকার ৮৩ বছর বয়সী নোবেল বিজয়ীকে হয়রানির মাধ্যমে একটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে কতটা মরিয়া হয়ে উঠেছে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, যারা শ্রম অধিকার লঙ্ঘন করছে, তাদের অবশ্যই জবাবদিহি করতে হবে। তবে ড. ইউনূসকে হয়রানি করার জন্য শ্রম আইন এবং ফৌজদারি বিচারের অপব্যবহার না করে কর্তৃপক্ষের উচিত শ্রম অধিকারের ব্যাপক হুমকি মোকাবিলা করার দিকে মনোনিবেশ করা।

ছবি

বিএনপি কার্যালয়ে অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় সাতজনের রিমান্ড মঞ্জুর

ছবি

কোটা সংস্কার আন্দোলনের সঙ্গে বিএনপি জড়িত নয় : মির্জা ফখরুল

ছবি

নয়া পল্টনে বিএনপি অফিসে তালা, চারপাশে পুলিশের অবস্থান

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা কারো শেখানো বুলি বলছেন : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

দুই দফা বৈঠক করেও আন্দোলনের দিনক্ষণ নির্ধারণ করতে পারেনি বিএনপির হাইকমান্ড

ছবি

যৌক্তিক দাবি কখনোই উপেক্ষিত হয়নি: ওবায়দুল কাদের

ছবি

জঙ্গীবাদ ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ লড়াই সংগ্রাম চালিয়ে যাবে গণতন্ত্রী পার্টি: ডা. শাহাদাত

ছবি

শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে কোন ষড়যন্ত্রই বরদাশত করা হবে নাঃ মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

ছবি

শেখ হাসিনা চীন হতে শূন্য হাতে ফিরেছেন : রিজভী

ছবি

কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীদের দাবি ও বক্তব্য সংবিধান ও রাষ্ট্র পরিচালনার মূলনীতির বিরোধী: ওবায়দুল কাদের

ছবি

ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকরা

ছবি

স্বাধীনতাবিরোধীরা এ আন্দোলনের সঙ্গে মিশে গেছে বলে আমি আপনি সবাই বুঝে গেছি : আিইনমন্ত্রী

ছবি

কোটা সংস্কারের নামে বিএনপি জামায়াতের সন্তানেরা মাঠে নেমেছে - মাইনুল হোসেন নিখিল

ছবি

সরকার মেধাবী জাতি গঠনে অনাগ্রহী: আমির খসরু

ছয় বছর আগের মামলায় ছয় যুবদল নেতার কারাদণ্ড

ছবি

জবি : অভিযুক্তদের প্রটোকলেই ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের তদন্ত কমিটি

ছবি

আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকতে বললেন ওবায়দুল কাদের

ছবি

জবি ছাত্রলীগের সভাপতি ইব্রাহীমের চাঁদাবাজির মামলা তদন্তে সিআইডি, প্রতিবেদন ২২ জুলাই

ছবি

কোটার সিদ্ধান্ত সরকারের নয়, আদালতের: ওবায়দুল কাদের

ছবি

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কায় নিহত ১

ছবি

প্রশ্নফাঁস ও টেন্ডার বাণিজ্যের অভিযোগ : জবি শাখার বিরুদ্ধে কাল তদন্তে নামছে কেন্দ্রীয় তদন্ত কমিটি

ছবি

কোটা এবং পেনশনবিরোধী আন্দোলনে বিএনপির সমর্থন আছে: ফখরুল

ছবি

এখন কারো গায়ে চুলকায়, কারো অন্তরে জ্বালা: কাদের

ছবি

দেশের পক্ষে কথা বলার কোনও সরকার এখানে নেই : গণতন্ত্র মঞ্চ

ছবি

প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ, জবি শাখার তদন্তে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ

ছবি

অচল হয়ে পড়েছে দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলো

ছবি

কোটা পুনর্বহালের প্রতিবাদে জাবি শিক্ষার্থীদের মহাসড়ক অবরোধ

ছবি

যারা সহিংসতাকে উস্কে দেবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ: কাদের

ছবি

অবস্থান কর্মসূচির ডাক দিয়ে শাহবাগ ছেড়েছে বিক্ষোভকারীরা

ছবি

"জাহাঙ্গীর আলমকে ছাড়া গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের নতুন কমিটি ঘোষণা"

ছবি

দশ দিন পর চিকিৎসা থেকে বাসায় ফিরলেন খালেদা জিয়া

ছবি

ছাত্রলীগ নেতা আকতারের বিরুদ্ধে প্রশ্নফাঁসের অভিযোগটি তদন্ত করা হবে: জবি উপাচার্য

ছবি

সরকার জনগণের দৃষ্টি অন্যদিকে সরাতে ছাগলকাণ্ড করেছে : ফারুক

শাহরিয়ারকে ‘ষড়যন্ত্রকারী’ বলল রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগ

ছবি

খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ দেয়ার আহবান

ছবি

প্রশ্নফাঁসসহ নানা অপকর্মে জড়িত জবি ছাত্রলীগ নেতা আকতার

tab

রাজনীতি

ড. ইউনূসকে হয়রানি বন্ধ করুন : অ্যামনেস্টি

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

মঙ্গলবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলেছে, বাংলাদেশের কর্তৃপক্ষকে অবশ্যই শ্রম আইনকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে নোবেলজয়ী মুহাম্মদ ইউনূসকে হয়রানি এবং ভয়ভীতি প্রদর্শন অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে। বিচারের নামে সরকারের এই প্রতারণার অবসানের সময় এসেছে।

সোমবার(১৮ সেপ্টেম্বর)এক বিবৃতিতে এসব কথা বলে যুক্তরাজ্যভিত্তিক আন্তর্জাতিক মানবাধিকার এই সংস্থাটি।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাটি বলেছে, ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে ১৫০টিরও বেশি মামলা দিয়েছে। ড. ইউনূস এবং তাঁর সহকর্মীদের বিরুদ্ধে শ্রম আইনে ফৌজদারি কার্যক্রম শুরু বিচার ব্যবস্থার নির্লজ্জ অপব্যবহার এমনটাই বিশ্বাস করে অ্যামনেস্টি। এগুলো তাঁর কর্মকাণ্ড এবং ভিন্নমতের প্রতি রাজনৈতিক প্রতিশোধেরই একটি রূপ।

অ্যামনেস্টির মহাসচিব অ্যাগনেস কালামার্ড বিবৃতিতে বলেছেন, ড. ইউনূসের মামলাটি বাংলাদেশের মানবাধিকারের বিপর্যস্ত অবস্থার প্রতীক। কর্তৃপক্ষ দেশটিতে নাগরিক স্বাধীনতা খর্ব করেছে এবং সমালোচকদের বশ্যতা স্বীকার করাতে বুলডোজার চালিয়েছে। আইনের অপব্যবহার এবং প্রতিহিংসার জন্য বিচার ব্যবস্থার অপব্যবহার অসংগত।

অ্যামনেস্টির বিবৃতিতে আরও বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বহুবার প্রকাশ্যে ড. ইউনূসকে আক্রমণ করেছেন। অতি সম্প্রতি তিনি বলেছেন, ‘অনেক নোবেল বিজয়ী এখন কারাগারে’ এবং ‘আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে।’ এতে বোঝা যাচ্ছে, ড. ইউনূসকেও কারারুদ্ধ করা হতে পারে।

বিবৃতিতে বলা হয়, ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে যে রকম অস্বাভাবিক গতিতে বিচারকাজ চলছে, তা বাংলাদেশের অন্যান্য শ্রম অধিকার-সম্পর্কিত মামলার সম্পূর্ণ বিপরীত। এর মধ্যে রয়েছে ২০২২ সালে চট্টগ্রামের বিএম কন্টেইনার ডিপো এবং ২০২১ সালে নারায়ণগঞ্জের হাসেম ফুডস ফ্যাক্টরিতে আগুন লাগার ঘটনা। অভিযোগ রয়েছে, মালিকদের অবহেলা এবং নিরাপত্তার মান না মেনে চলার কারণে দুটি দুর্ঘটনায় প্রায় ১০০ শ্রমিক মারা গেছে। উভয় ক্ষেত্রেই কোম্পানির মালিকদের কোনো ধরনের জবাবদিহির সম্মুখীন হওয়ার কথা শোনা যায়নি। সামান্য ক্ষতিপূরণ দিয়েই তারা জবাবদিহি এড়িয়েছে।

অ্যামনেস্টির মহাসচিব কালামার্ড বলেন, ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ সরকার নিরলস দুর্নাম রটাচ্ছে। এতে বোঝা হচ্ছে, বর্তমান সরকার ৮৩ বছর বয়সী নোবেল বিজয়ীকে হয়রানির মাধ্যমে একটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে কতটা মরিয়া হয়ে উঠেছে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, যারা শ্রম অধিকার লঙ্ঘন করছে, তাদের অবশ্যই জবাবদিহি করতে হবে। তবে ড. ইউনূসকে হয়রানি করার জন্য শ্রম আইন এবং ফৌজদারি বিচারের অপব্যবহার না করে কর্তৃপক্ষের উচিত শ্রম অধিকারের ব্যাপক হুমকি মোকাবিলা করার দিকে মনোনিবেশ করা।

back to top