alt

খেলা

‘চাপ বেশি বলেই টি-টেয়োন্টি বেশি ভালো লাগে’

ক্রীড়া বার্তা পরিবেশক : সোমবার, ২০ মে ২০২৪

মোস্তাফিজের বেশি পছন্দ টি-২০। বিশ্বকাপের আগে জানালেন ঘিরে তার ভাবনার কথা।

টি-২০ দিয়েই ২০১৫ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক মোস্তাফিজের। যদিও বেশি সাড়া ফেলেন শুরুতে ওয়ানডেতে, ভারতকে হারিয়ে। পরে খেলেছেন সব সংস্করণেই। মাত্র ১৪ টেস্টই থমকে গেছেন, লাল বল থেকে নিজেকে দূরে নিয়ে গেছেন স্বেচ্ছায়।

১০৩টি ওয়ানডে আর ৯২ টি-২০ খেলা মোস্তাফিজের যে সীমিত ওভারই বেশি পছন্দ তা বোঝাই যায়। ফ্র্যাঞ্জাইজি ক্রিকেটেও প্রচুর টি-২০ খেলা পেসার জানালেন তার কাছে বেশি চাপের মনে হয় কুড়ি ওভারের লড়াই, এটাই উপভোগ করেন তিনি, ‘ভালো লাগার প্রসঙ্গ এলে আমি টি-২০ খুব পছন্দ করি। এই সংস্করণে চাপ বেশি। এ কারণেই মনে হয় আমার ভালো লাগে। আমি চাপটা অনেক উপভোগ করি।’

আইপিএলে নিয়মিত মুখ হলেও দেশের হয়ে খেলেই বেশি গর্ব অনুভব করেন মোস্তাফিজ। দেশের হয়ে বড় কিছু অর্জনের আক্ষেপও শোনা গেল বিসিবির প্রকাশিত ভিডিওতে, ‘দেশের হয়ে খেলা তো একটা গৌরবের বিষয়। আমি সব সময় দেশের হয়ে খেলাটা উপভোগ করি। আমার মনে হয় যখন কোনো বড় টুর্নামেন্ট হয়, কোনো বড় ট্রফি জেতে; তখন বড় খেলোয়াড় বলা হয়। এই আক্ষেপ তো সব সময় রয়েই গেছে।’

মোস্তাফিজকে সারা বিশ্ব এখন চেনে ফিজ নামে। এই ফিজ নামকরণের পেছনের গল্প জানিয়েছেন তিনি। ক্যারিয়ারের শুরুতে জাতীয় দলের অনুশীলনের সময় হোয়াইট বোর্ডে কোচদের নাম লেখার সুবিধার্থেই তার নাম হয়ে যায় ফিজ, ‘আমাদের যে বোর্ডটা আছে ফিল্ডিং সেশন, বোলিং সেশনের বিষয় লেখা থাকে। ওই বোর্ডে যদি পুরো নাম লেখে, তাহলে অনেক বড় হয়ে যায়। এ কারণে লেখে ফিজ। প্রথম দিন আমি বুঝিনি। ভেবেছি এটা কে। তারপর আমাকে বলেছে, এটা তুমি। এরপর থেকেই...এরপর আমি আইপিএলে খেলতে গিয়েছিলাম ২০১৬ সালে। ওখানেও ফিজ নামটা জনপ্রিয় হয়ে গেছে। এরপর থেকেই চলছে।’

মোস্তাফিজ নিজের ধার বাড়াতে সব সময় কথা বলেন সতীর্থদের সঙ্গে। একেকজনের অভিজ্ঞতা ভাগাভাগি করে ঋদ্ধ হন তারা। পরামর্শ নেন সিনিয়রদের কাছ থেকেও, ‘আমাদের যে পেস বোলাররা আছে তাসকিন, শরীফুল, সাইফউদ্দিন (বিশ্বকাপ দলে জায়গা পাননি), হাসান মাহমুদ। আমি যেটুকু শিখেছি, সেটা ওদের সঙ্গে ভাগাভাগি করব। এতে যদি আমাদের আরেকটু উন্নতি হয়।’

‘সাকিব ভাই আছে, রিয়াদ ভাই আছে। আমরা যদি কখনও আটকে যাই, মাঠে হতে পারে বা কোনো কিছু জানার থাকলে ভাইদের কাছ থেকে সিদ্ধান্ত নিতে পারব।’

মোস্তাফিজ এখন পর্যন্ত লাল-সবুজ জার্সিতে ৯৩টি আন্তর্জাতিক টি-২০ খেলেছেন। যেখানে ৭.৫৭ ইকোনমিতে ১১০ উইকেট নিয়েছেন। আর সব ম্যাচ মিলিয়ে

টি-২০’তে তার ২৫১ ম্যাচে ৭.৪৮ ইকোনোমিতে ফিজের মোট উইকেট ৩১০টি। এই কাটার মাস্টার ওয়ানডেতে ১০৪ ম্যাচে ১৬৪ উইকেট, ইকোনমি ৫.১৬ এবং টেস্টে ১৫ ম্যাচে ৩১ উইকেট, ইকোনমি ৩.১৮ নিয়েছেন।

ছবি

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার এইট-এ বাংলাদেশ

টিভিতে আজকের খেলা

ছবি

নেপালের বিদায়ে যেমন হলো বাংলাদেশের সুপার এইট সমীকরণ

ছবি

‘অন্যদের থেকে আলাদা’ হতে চেয়ে সফল ফারুকি

ছবি

ইংল্যান্ডকে বিদায় করতে কোনো কৌশলের আশ্রয় নিবে না অস্ট্রেলিয়া

ছবি

মেসি-মার্তিনেজের জোড়া গোলে আর্জেন্টিনার জয়

ছবি

জয়ে থাকতে চায় ভারত, অঘটনের লক্ষ্য কানাডার

টিভিতে আজকের খেলা

ছবি

মুস্তাফিজের প্রশংসায় ভারতের সাবেক ক্রিকেটার

টিভিতে আজকের খেলা

ছবি

হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু

ছবি

আমেরিকাও বুকে কাঁপুনি ধরিয়ে দিয়েছিল : রোহিত

ছবি

ইউরো চ্যাম্পিয়নশীপ শুরু আজ : ফেবারিট ফ্রান্স-ইংল্যান্ড, আশাবাদী স্বাগতিকরাও

ছবি

ডাচদের বিপক্ষে জয় পেল বাংলাদেশ

ছবি

সাকিবের ফিফটিতে ডাচদের ১৬০ রানের লক্ষ্য দিলো বাংলাদেশ

ছবি

নিউজিল্যান্ডের বিদায় প্রায় নিশ্চিত করে সুপার এইটে ওয়েস্ট ইন্ডিজ

ছবি

ব্রাজিলকে ১-১ গোলে রুখে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

টিভিতে আজকের খেলা

ছবি

পাঁচে নেমে গেলেন সাকিব

ছবি

নারীদের ক্রিকেট লীগে চ্যাম্পিয়ন মোহামেডান

ছবি

বাংলাদেশ-নেদারল্যান্ডস ম্যচ আজ, ডাচদের হারানোর লক্ষ্য টাইগারদের

ছবি

যুক্তরাষ্ট্রকে হারিয়ে সুপার এইটে ভারত

বাংলাদেশের জালে লেবাননের এক হালি গোল

ছবি

পাওয়ার প্লেতেই ম্যাচ জিতে সুপার এইটে অস্ট্রেলিয়া

ছবি

বাংলাদেশ কোচকে বাস্তবতা শিক্ষা লেবাননের

ছবি

শ্রীলঙ্কা-নেপাল ম্যাচ পণ্ড, স্বস্তি বাড়ল বাংলাদেশের

টিভিতে আজকের খেলা

ছবি

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথমবার মুখোমুখি ভারত ও যুক্তরাষ্ট্র

ছবি

দুই ম্যাচেই জিতে পরের পর্বে যাব : তানজিম

ছবি

কখনো মনে হয়নি এই ম্যাচ হারতে পারি : হৃদয়

এই ম্যাচ আমাদের জেতা উচিত ছিল : শান্ত

টিভিতে আজকের খেলা

ছবি

দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ৪ রানে হারল বাংলাদেশ

ছবি

ডি মারিয়ার গোলে আর্জেন্টিনার জয়

ছবি

উগান্ডা ৩৯ রানে অলআউট, টি-২০ ইতিহাসে সবচেয়ে বড় জয় ক্যারিবীয়ানদের

‘সাকিব অবশ্যই ফর্মে ফিরবে’

tab

খেলা

‘চাপ বেশি বলেই টি-টেয়োন্টি বেশি ভালো লাগে’

ক্রীড়া বার্তা পরিবেশক

সোমবার, ২০ মে ২০২৪

মোস্তাফিজের বেশি পছন্দ টি-২০। বিশ্বকাপের আগে জানালেন ঘিরে তার ভাবনার কথা।

টি-২০ দিয়েই ২০১৫ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক মোস্তাফিজের। যদিও বেশি সাড়া ফেলেন শুরুতে ওয়ানডেতে, ভারতকে হারিয়ে। পরে খেলেছেন সব সংস্করণেই। মাত্র ১৪ টেস্টই থমকে গেছেন, লাল বল থেকে নিজেকে দূরে নিয়ে গেছেন স্বেচ্ছায়।

১০৩টি ওয়ানডে আর ৯২ টি-২০ খেলা মোস্তাফিজের যে সীমিত ওভারই বেশি পছন্দ তা বোঝাই যায়। ফ্র্যাঞ্জাইজি ক্রিকেটেও প্রচুর টি-২০ খেলা পেসার জানালেন তার কাছে বেশি চাপের মনে হয় কুড়ি ওভারের লড়াই, এটাই উপভোগ করেন তিনি, ‘ভালো লাগার প্রসঙ্গ এলে আমি টি-২০ খুব পছন্দ করি। এই সংস্করণে চাপ বেশি। এ কারণেই মনে হয় আমার ভালো লাগে। আমি চাপটা অনেক উপভোগ করি।’

আইপিএলে নিয়মিত মুখ হলেও দেশের হয়ে খেলেই বেশি গর্ব অনুভব করেন মোস্তাফিজ। দেশের হয়ে বড় কিছু অর্জনের আক্ষেপও শোনা গেল বিসিবির প্রকাশিত ভিডিওতে, ‘দেশের হয়ে খেলা তো একটা গৌরবের বিষয়। আমি সব সময় দেশের হয়ে খেলাটা উপভোগ করি। আমার মনে হয় যখন কোনো বড় টুর্নামেন্ট হয়, কোনো বড় ট্রফি জেতে; তখন বড় খেলোয়াড় বলা হয়। এই আক্ষেপ তো সব সময় রয়েই গেছে।’

মোস্তাফিজকে সারা বিশ্ব এখন চেনে ফিজ নামে। এই ফিজ নামকরণের পেছনের গল্প জানিয়েছেন তিনি। ক্যারিয়ারের শুরুতে জাতীয় দলের অনুশীলনের সময় হোয়াইট বোর্ডে কোচদের নাম লেখার সুবিধার্থেই তার নাম হয়ে যায় ফিজ, ‘আমাদের যে বোর্ডটা আছে ফিল্ডিং সেশন, বোলিং সেশনের বিষয় লেখা থাকে। ওই বোর্ডে যদি পুরো নাম লেখে, তাহলে অনেক বড় হয়ে যায়। এ কারণে লেখে ফিজ। প্রথম দিন আমি বুঝিনি। ভেবেছি এটা কে। তারপর আমাকে বলেছে, এটা তুমি। এরপর থেকেই...এরপর আমি আইপিএলে খেলতে গিয়েছিলাম ২০১৬ সালে। ওখানেও ফিজ নামটা জনপ্রিয় হয়ে গেছে। এরপর থেকেই চলছে।’

মোস্তাফিজ নিজের ধার বাড়াতে সব সময় কথা বলেন সতীর্থদের সঙ্গে। একেকজনের অভিজ্ঞতা ভাগাভাগি করে ঋদ্ধ হন তারা। পরামর্শ নেন সিনিয়রদের কাছ থেকেও, ‘আমাদের যে পেস বোলাররা আছে তাসকিন, শরীফুল, সাইফউদ্দিন (বিশ্বকাপ দলে জায়গা পাননি), হাসান মাহমুদ। আমি যেটুকু শিখেছি, সেটা ওদের সঙ্গে ভাগাভাগি করব। এতে যদি আমাদের আরেকটু উন্নতি হয়।’

‘সাকিব ভাই আছে, রিয়াদ ভাই আছে। আমরা যদি কখনও আটকে যাই, মাঠে হতে পারে বা কোনো কিছু জানার থাকলে ভাইদের কাছ থেকে সিদ্ধান্ত নিতে পারব।’

মোস্তাফিজ এখন পর্যন্ত লাল-সবুজ জার্সিতে ৯৩টি আন্তর্জাতিক টি-২০ খেলেছেন। যেখানে ৭.৫৭ ইকোনমিতে ১১০ উইকেট নিয়েছেন। আর সব ম্যাচ মিলিয়ে

টি-২০’তে তার ২৫১ ম্যাচে ৭.৪৮ ইকোনোমিতে ফিজের মোট উইকেট ৩১০টি। এই কাটার মাস্টার ওয়ানডেতে ১০৪ ম্যাচে ১৬৪ উইকেট, ইকোনমি ৫.১৬ এবং টেস্টে ১৫ ম্যাচে ৩১ উইকেট, ইকোনমি ৩.১৮ নিয়েছেন।

back to top