alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

দেশ-বিদেশে সাউথ বাংলা ব্যাংকের পদত্যাগী চেয়ারম্যানের অঢেল সম্পদ

সাইফ বাবলু : রোববার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স ব্যাংকের সদ্য পদত্যাগী চেয়ারমান এসএম আমজাদ হোসেনের দেশ-বিদেশে শত কোটি টাকার সম্পদ থাকার তথ্য পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছে একাধিক বাড়ি। সিঙ্গাপুর, রাশিয়া, ভারতসহ বিভিন্ন দেশে পাচার করেছেন বিপুল পরিমাণ টাকা। দুদকের নির্ভরযোগ্য সূত্র এ তথ্য জানিয়েছে।

দুদক বলছে, ঋণ জালিয়াতি, দেশের বাইরে অর্থ পাচার এবং অবৈধ সম্পদ অর্জনের ঘটনায় সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স ব্যাংকের সদ্য পদত্যাগী চেয়ারম্যান এসএম আমজাদ হোসেনকে ফের জিজ্ঞাসাবাদ করবে দুদক। এর আগেও তাকে একবার জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল। ইতোমধ্যে ঋণ জালিয়াতি, বিদেশে অর্থ পাচার এবং সম্পদ গড়ার বেশ কিছু তথ্য পেয়েছে দুদক।

দুদকের অনুসন্ধান সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা বলছেন, অনুসন্ধান করে আমজাদ হোসেনের বিরুদ্ধে ওই ব্যাংক থেকে ৪০ কোটি টাকা ঋণ নিয়ে আত্মসাত করার প্রমাণ পেলেও অবৈধ সম্পদ অর্জন এবং বিদেশে অর্থ পাচারের প্রমাণ জোগাড় করতে কাজ করছে দুদক। দুদক জানতে পেরেছে সাবেক এ চেয়ারম্যানের দেশের বাইরে একাধিক বাড়ি ও সম্পদ রয়েছে।

এদিকে এই জালিয়াতির ঘটনায় ব্যাংকের সাবেক এমডিসহ ৯ জনকে রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) জিজ্ঞাসাবাদ করেন দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) উপপরিচালক গুলশান আনোয়ারের নেতৃত্বাধীন টিম।

এ বিষয়ে দুদক সচিব মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার সাংবাদিকদের জানান, এসএম আমজাদ হোসেনের ঋণ জালিয়াতির ঘটনার অনুসন্ধানে প্রতিষ্ঠানটির সাবেক এমডিসহ কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। একই সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের গোয়েন্দা শাখার (বিএফআইইউ) কাছ থেকে তথ্য পেয়ে অনুসন্ধান শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। প্রয়োজন হলে ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেনকেও ডাকা হবে।

যাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে তারা হলেন- ব্যাংকটির সাবেক এমডি মো. রফিকুল ইসলাম, এমটিও তপু কুমার সাহা, সিনিয়র অফিসার বিদ্যুৎ কুমার মন্ডল, এফএভিপি ও অপারেশন ম্যানেজার মোহা. মঞ্জুরুল আলম, ভিপি ও শাখা প্রধান এসএম ইকবাল মেহেদী, সিনিয়র এক্সিকিউটিভ অফিসার খালেদ মোশাররফ, ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. জিয়াউল লতিফ, সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেডিডেন্ট মো. মামুনুর রশীদ মোল্লা, উপব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. শওকত আলী।

দুদকের অনুসন্ধান সংশ্লিষ্ট টিমের সদস্যরা জানিয়েছেন, রবিবার জিজ্ঞাসাবাদে সাবেক এমডি বলেছেন, চেয়ারম্যানের নির্দেশেই তারা ঋণ মঞ্জুর করেছেন। যেহেতু ঋণটি চেয়ারম্যানের নির্দেশে হয়েছে তাই ঋণের ক্ষেতে তারা সবকিছু নিয়ম অনুযায়ী করেননি। এটি তাদের ভুল ছিল। অন্যরা বলেছেন, তারা এমডির নির্দেশে কাজ করেছেন। তাদের কিছুই করার ছিল না।

সূত্র জানিয়েছে, এমডিকে এর আগে একবার জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তাকে পুনরায় ডাকা হবে। তবে চেয়ারম্যান অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি থাকায় এখনই তাকে ডাকা হচ্ছে না। বিভিন্ন মাধ্যমে জানা গেছে, সাবেক চেয়ারম্যান আমজাদ দেশের বাইরে হাজার হাজার কোটি টাকা পাচার করেছে। আমেরিকায় তার ৫টি বাড়ি রয়েছে। এসব বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ করছে দুদক।

দুদকের একটি সূত্র জানিয়েছে, সাবেক এ চেয়ারম্যানের নিজের কোন সন্তান নেই। ভাইয়ের মেয়েকে নিজের মেয়ে হিসেবে লালন পালন করেছেন। স্ত্রীকে ব্যাংকের পরিচালনা পর্যদের পরিচালক বানিয়েছেন। ব্যাংকটিকে পারিবারিক প্রতিষ্ঠান বানিয়েছে সাবেক এ চেয়ারম্যান।

সূত্র জানিয়েছে খুলনা অঞ্চলের অন্যতম শিল্প প্রতিষ্ঠান লকপুর গ্রুপের মালিক এসএম আমজাদ হোসেন। তার মালিকানাধীন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে লকপুর ফিশ প্রসেস কোম্পানি লিমিটেড, বাগেরহাট সিফুড ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেড, শম্পা আইস অ্যান্ড কোল্ড স্টোরেজ লিমিটেড, রুপসা ফিশ অ্যান্ড অ্যালাইড ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেড, মুন স্টার ফিশ লিমিটেড, খুলনা প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, খুলনা এগ্রো এক্সপোর্ট প্রাইভেট লিমিটেড, ইস্টার্ন পলিমার লিমিটেড, মেট্রো অটো ব্রিকস লিমিটেড, খুলনা বিল্ডার্স লিমিটেডসহ আরও বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান রয়েছে এ শিল্প গ্রুপটির।

ছবি

কাপ্তাইয়ে ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থীকে গুলি করে হত্যা

ছবি

বিদেশ থেকে আগত যাত্রীদের টার্গেট করতো ছিনতাই চক্রটি

ছবি

সম্রাট-খালেদ-সাঈদের বিরুদ্ধে অর্থপাচারের প্রমাণ পেয়েছে সিআইডি

মনোহরদীতে গ্রাহক আমানতের অর্ধশতকোটি টাকা লাপাত্তা্ তালাবন্ধ কার্যালয়

ছবি

ইভ্যালির সার্ভার বন্ধ, কারাগার থেকে এমডির ‘আশ্বাস’

ছবি

কাকরাইলের সংঘর্ষে দুই মামলায় ৪ হাজার আসামি

সিংগাইরে স্বতন্ত্র প্রার্থীর মনোনয়নপত্র ছিনতাই

ছবি

অতিরিক্ত লাভ পেতে মিয়ানমার থেকে আইস আনতেন হোছেন: র‍্যাব

ছবি

মানিকগঞ্জে পাবজি খেলাকে কেন্দ্র করে স্কুলছাত্রকে হত্যা

নারায়ণগঞ্জে ইজিবাইক চালক খুন, চোখের জলে ভাসছে পরিবার

ছবি

গাজীপুরে চালককে হত্যা করে ইজিবাইক ছিনতাই

উখিয়া রোহিঙ্গা শিবির থেকে দেশীয় অস্ত্রসহ ১৪ ডাকাত গ্রেপ্তার

ছবি

সাবেক মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফের এপিএস আরও দুই দিনের রিমান্ডে

ছবি

ঘরের মেঝে খুঁড়ে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার, আটক ১

ছবি

কুবিতে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মারামারির ঘটনায় আহত ১০

কুমিল্লায় সোশাল মিডিয়ায় অপপ্রচারের অভিযোগে আরও একজন গ্রেপ্তার

জবির চার শিক্ষার্থীসহ পাঁচ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট

বোয়ালমারীতে পুলিশের ওপর হামলা : আটক ৩

চাকরির বিজ্ঞাপনে প্রতারিত ১২শ’ যুবক : আটক ৩

ছবি

মিতু হত্যা : নারাজি আবেদনে বলা হয়, ‘বাবুল ষড়যন্ত্রের শিকার’

ছবি

কুমিল্লায় ‘উসকানি’ দিয়ে মন্দিরে হামলা : আটক ৪৩

ছবি

এহসান গ্রুপ, কিউকমসহ ১০ প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক হিসাব স্থগিত

ছবি

বিতর্কিত কাউন্সিলর চিত্তরঞ্জন দাস কারাগারে

ছবি

তসলিমা নাসরিনসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

ছবি

রাজধানীতে মাদক বিরোধী অভিযানে আটক ৪২

বিয়ের পাঁচ দিনের মাথায় স্বামীকে অচেতন করে নববধূ উধাও

মুদি দোকানি থেকে মানব পাচারকারী

ছবি

রাজউকের সাবেক গাড়ি চালক ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

যৌতুক, পরকীয়ায় বাধা দেয়াই কাল হয় স্বর্ণার

খিলগাঁওয়ে সিআইডি ইন্সপেক্টর শামসুদ্দিনের অত্যাচার, আতঙ্কে ১০ পরিবার

ছবি

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় নুরকে অব্যাহতি

লক্ষ্মীপুরে তাস খেলা বিবাদে জেলেকে হত্যার অভিযোগ

ছবি

ভান্ডারিয়ায় ফুটপাত দখল করে দোকান : যানজট

পাথরঘাটায় ছাত্রীকে উত্যক্তের প্রতিবাদী ৩ ছাত্রকে মারধর

প্রতিবাদী বৃদ্ধাকে মারধর

চেয়ারম্যানের প্রতারণায় হিন্দু পরিবার নিঃস্ব : তদন্তের নির্দেশ

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

দেশ-বিদেশে সাউথ বাংলা ব্যাংকের পদত্যাগী চেয়ারম্যানের অঢেল সম্পদ

সাইফ বাবলু

রোববার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স ব্যাংকের সদ্য পদত্যাগী চেয়ারমান এসএম আমজাদ হোসেনের দেশ-বিদেশে শত কোটি টাকার সম্পদ থাকার তথ্য পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছে একাধিক বাড়ি। সিঙ্গাপুর, রাশিয়া, ভারতসহ বিভিন্ন দেশে পাচার করেছেন বিপুল পরিমাণ টাকা। দুদকের নির্ভরযোগ্য সূত্র এ তথ্য জানিয়েছে।

দুদক বলছে, ঋণ জালিয়াতি, দেশের বাইরে অর্থ পাচার এবং অবৈধ সম্পদ অর্জনের ঘটনায় সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স ব্যাংকের সদ্য পদত্যাগী চেয়ারম্যান এসএম আমজাদ হোসেনকে ফের জিজ্ঞাসাবাদ করবে দুদক। এর আগেও তাকে একবার জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল। ইতোমধ্যে ঋণ জালিয়াতি, বিদেশে অর্থ পাচার এবং সম্পদ গড়ার বেশ কিছু তথ্য পেয়েছে দুদক।

দুদকের অনুসন্ধান সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা বলছেন, অনুসন্ধান করে আমজাদ হোসেনের বিরুদ্ধে ওই ব্যাংক থেকে ৪০ কোটি টাকা ঋণ নিয়ে আত্মসাত করার প্রমাণ পেলেও অবৈধ সম্পদ অর্জন এবং বিদেশে অর্থ পাচারের প্রমাণ জোগাড় করতে কাজ করছে দুদক। দুদক জানতে পেরেছে সাবেক এ চেয়ারম্যানের দেশের বাইরে একাধিক বাড়ি ও সম্পদ রয়েছে।

এদিকে এই জালিয়াতির ঘটনায় ব্যাংকের সাবেক এমডিসহ ৯ জনকে রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) জিজ্ঞাসাবাদ করেন দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) উপপরিচালক গুলশান আনোয়ারের নেতৃত্বাধীন টিম।

এ বিষয়ে দুদক সচিব মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার সাংবাদিকদের জানান, এসএম আমজাদ হোসেনের ঋণ জালিয়াতির ঘটনার অনুসন্ধানে প্রতিষ্ঠানটির সাবেক এমডিসহ কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। একই সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের গোয়েন্দা শাখার (বিএফআইইউ) কাছ থেকে তথ্য পেয়ে অনুসন্ধান শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। প্রয়োজন হলে ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেনকেও ডাকা হবে।

যাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে তারা হলেন- ব্যাংকটির সাবেক এমডি মো. রফিকুল ইসলাম, এমটিও তপু কুমার সাহা, সিনিয়র অফিসার বিদ্যুৎ কুমার মন্ডল, এফএভিপি ও অপারেশন ম্যানেজার মোহা. মঞ্জুরুল আলম, ভিপি ও শাখা প্রধান এসএম ইকবাল মেহেদী, সিনিয়র এক্সিকিউটিভ অফিসার খালেদ মোশাররফ, ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. জিয়াউল লতিফ, সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেডিডেন্ট মো. মামুনুর রশীদ মোল্লা, উপব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. শওকত আলী।

দুদকের অনুসন্ধান সংশ্লিষ্ট টিমের সদস্যরা জানিয়েছেন, রবিবার জিজ্ঞাসাবাদে সাবেক এমডি বলেছেন, চেয়ারম্যানের নির্দেশেই তারা ঋণ মঞ্জুর করেছেন। যেহেতু ঋণটি চেয়ারম্যানের নির্দেশে হয়েছে তাই ঋণের ক্ষেতে তারা সবকিছু নিয়ম অনুযায়ী করেননি। এটি তাদের ভুল ছিল। অন্যরা বলেছেন, তারা এমডির নির্দেশে কাজ করেছেন। তাদের কিছুই করার ছিল না।

সূত্র জানিয়েছে, এমডিকে এর আগে একবার জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তাকে পুনরায় ডাকা হবে। তবে চেয়ারম্যান অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি থাকায় এখনই তাকে ডাকা হচ্ছে না। বিভিন্ন মাধ্যমে জানা গেছে, সাবেক চেয়ারম্যান আমজাদ দেশের বাইরে হাজার হাজার কোটি টাকা পাচার করেছে। আমেরিকায় তার ৫টি বাড়ি রয়েছে। এসব বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ করছে দুদক।

দুদকের একটি সূত্র জানিয়েছে, সাবেক এ চেয়ারম্যানের নিজের কোন সন্তান নেই। ভাইয়ের মেয়েকে নিজের মেয়ে হিসেবে লালন পালন করেছেন। স্ত্রীকে ব্যাংকের পরিচালনা পর্যদের পরিচালক বানিয়েছেন। ব্যাংকটিকে পারিবারিক প্রতিষ্ঠান বানিয়েছে সাবেক এ চেয়ারম্যান।

সূত্র জানিয়েছে খুলনা অঞ্চলের অন্যতম শিল্প প্রতিষ্ঠান লকপুর গ্রুপের মালিক এসএম আমজাদ হোসেন। তার মালিকানাধীন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে লকপুর ফিশ প্রসেস কোম্পানি লিমিটেড, বাগেরহাট সিফুড ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেড, শম্পা আইস অ্যান্ড কোল্ড স্টোরেজ লিমিটেড, রুপসা ফিশ অ্যান্ড অ্যালাইড ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেড, মুন স্টার ফিশ লিমিটেড, খুলনা প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, খুলনা এগ্রো এক্সপোর্ট প্রাইভেট লিমিটেড, ইস্টার্ন পলিমার লিমিটেড, মেট্রো অটো ব্রিকস লিমিটেড, খুলনা বিল্ডার্স লিমিটেডসহ আরও বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান রয়েছে এ শিল্প গ্রুপটির।

back to top