alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাইয়ে ১০ শতাংশ কোটা বাতিল: হাইকোর্ট

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : বৃহস্পতিবার, ২৫ নভেম্বর ২০২১

বীর মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাইয়ের ক্ষেত্রে ১০ শতাংশের কোটা বাতিল ঘোষণা করে রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের ও বিচারপতি মু. মাহবুব উল ইসলামের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় ঘোষণা করেন।

রিটের পক্ষের আইনজীবী ব্যারিস্টার তৌফিক ইনাম বিষয়টি সংবাদকে নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, রায়ে হাইকোর্ট গেজেট অন্তর্ভুক্ত হয়নি এমন প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের গেজেটভুক্তির ক্ষেত্রে বিদ্যমান গেজেটভুক্ত মুক্তিযোদ্ধাদের সংখ্যার ১০ শতাংশের বেশি তালিকাভুক্ত না করা সংক্রান্ত জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের (জামুকা) বিধান/পরিপত্রটি বাতিল ঘোষণা করে রায় দিয়েছেন।

২০১৯ সালের ১৮ এপ্রিল জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল (জামুকা) ঐ পরিপত্রটি জারি করে। ওই পরিপত্রে বলা হয় যে প্রত্যেক উপজেলায় গেজেট অন্তর্ভুক্ত হয়নি এমন প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের গেজেটভুক্তির জন্য বিদ্যমান রাষ্ট্রীয় ভাতা-ভোগী সাধারণ মুক্তিযোদ্ধাদের সংখ্যার ১০ শতাংশের বেশি তালিকাভুক্ত করা যাবে না।

আইনজীবী বলেন, অথচ ২০১৭ সালে উপজেলা যাচাই-বাছাই কমিটির মাধ্যমে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের একটি ‘ক’ তালিকা প্রস্তুত করা হয় এবং ওই তালিকাতে রিট আবেদনকারীরা তালিকাভুক্ত হন। কিন্তু আলোচ্য সিদ্ধান্তটির ফলে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা অনেকেই বাদ পড়ে যান। সে কারণেই ১০ শতাংশ সংক্রান্ত ঐ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সাভার সদর, সিরাজগঞ্জের কাজীপুর উপজেলাসহ বেশ কয়েকটি উপজেলার ‘ক’ তালিকাভুক্ত প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধারা হাইকোর্টে ২০২০ সালে রিট আবেদন দায়ের করেন। হাইকোর্ট ওই বছরই জামুকার পরিপত্রটি অর্থাৎ বিধানটি কেন বাতিল করা হবে না মর্মে জানতে চেয়ে জামুকা ও সংশ্লিষ্টদের প্রতি রুল জারি করেন।

ব্যারিস্টার তৌফিক ইনাম বলেন, প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের সংখ্যা আইন দ্বারা নিয়ন্ত্রণ করা শুধু বেআইনিই নয় অসাংবিধানিকও। কারণ প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা ১০ শতাংশের কম বা বেশিও হতে পারে। একজন প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাকেও তালিকার বাইরে রাখা যেমন বেআইনি, একইভাবে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা নয় এমন একজনকেও তালিকাভুক্ত করা বেআইনি। কিন্তু এধরনের পরিপত্র জারি করার মাধ্যমে জামুকা যাচাই-বাছাই কমিটিকে একটি ফ্রি লাইসেন্স দিয়েছে। তারা তাদের সুবিধা ও সন্তুষ্টি অনুসারে শুধুমাত্র ১০ শতাংশ প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাকে গেজেটভুক্ত করার জন্য সুপারিশ করতে পারবে। কিন্তু এই সংখ্যা এলাকাভেদে অনেক বেশি আবার কোথাও কমও হতে পারে। তাই এ ধরনের সংখ্যা নির্ধারণ জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল আইন ও সংবিধান সমর্থন করে না।

রিটের চূড়ান্ত শুনানি শেষে হাইকোর্ট আজ ১০ শতাংশ সংক্রান্ত ঐ পরিপত্রটি বেআইনি ও অসাংবিধানিক মর্মে ঘোষণা করে রায় দেন।

রংপুরে দুই পুলিশ কর্মকর্তার নেতৃত্বে বাড়ি দখলের চেষ্টা

ঘোড়াঘাটে আত্মীয়র বাড়ি থেকে ফেরার সময় ছাগল চুরি, ৩ যুবক জনতার হাতে আটক

ফেইসবুক পেজ বিক্রির কথা বলে ১০ লাখ টাকা হাতিয়ে নেন মোবারক

ভোলা প্রেসক্লাবের পিয়নকে কুপিয়ে জখম করেছে সন্ত্রাসীরা

ছবি

বিচারাধীন বিষয়ে সংবাদ: কী করা যাবে না তা জানাল হাই কোর্ট

নওগাঁয় নিখোজের ২০ দিন পর গলিত লাশ উদ্ধার

বেসিক ব্যাংকের ঋণ কেলেঙ্কারি মামলা করতে ৫ বছর পার, তদন্তে গেল ৭ বছর

ছবি

জঙ্গি ছিনতাই : ১০ আসামি ফের ৫ দিনের রিমান্ডে

ছবি

জালিয়াতির মামলায় স্থায়ী জামিন পেলেন ভোরের পাতার সম্পাদক

ছবি

ব্যাংক কাকে ঋণ দিচ্ছে জনগণের জানার অধিকার আছে : হাইকোর্ট

ছবি

এএসপি আনিস হত্যা: ১৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল

ছবি

আয়াত হত্যা: খণ্ডিত দেহের অংশ মিলেছে সাগরপাড়ে

ছবি

সাড়ে ১১ কেজি স্বর্ণ উদ্ধার, পাচারকারী আটক

ছবি

যশোর থেকে নিখোঁজ ছাত্র রাহুল খুলনা থেকে উদ্ধার

ওসমানী মেডিকেলের ছাত্রাবাস থেকে দেশিয় অস্ত্র উদ্ধার 

সিলেটে পরকিয়ার জেরে যুবক খুন

নারায়ণগঞ্জে হত্যা মামলায় একজনের ফাঁসি, অন্যজনের যাবজ্জীবন

নারায়ণগঞ্জে ১৫ মামলার আসামি ‘স্ট্রিট ডাকাত’ গ্রেপ্তার

ছবি

মাদারীপুরে মোটা চাল সরু করে মিনিকেট হিসেবে বিক্রির অভিযোগ : জেল-জরিমানা

ছবি

চিত্রনায়িকা শিমু হত্যা : স্বামীসহ ২ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

ছবি

২০ লাখ টাকার হেরোইনসহ গ্রেপ্তার ২

ছবি

পল্লবী থানায় বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় কাউন্সিলরসহ ১২ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

ছবি

টিপু-প্রীতি হত্যা মামলার প্রতিবেদন দাখিল ১১ জানুয়ারি

ছবি

রাজকে নিয়ে আদালতে পরীমনি

ফরিদপুরে নগই-এর প্রকল্প পরিচালককে মারধর করার অভিযোগ

রাজবাড়ীতে যুবদল নেতা হত্যায় ২ জনের ফাঁসি, ৫ জনের যাবজ্জীবন

শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ করলেন ইমাম ও শিক্ষক, গ্রেপ্তার ৩

ছবি

যৌতুকের জন্য সারিকাকে অত্যাচার, স্বামীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

ছবি

সব এনজিওর চেক ডিজঅনার মামলা স্থগিত

ছবি

জামিন পেলেন নর্থ-সাউথের সাবেক ট্রাস্টি এম এ কাশেম

ছবি

প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি: রাজবাড়ীর স্মৃতিকে জামিন দেয়নি আপিল বিভাগ

মিথ্যা বিয়ে, মিথ্যা কাবিননামা, যৌতুকের মামলায় ফাঁসিয়ে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে একটি চক্র

ছবি

ধানমন্ডির সেই বাড়ির রায়ের তথ্য আপিল বিভাগে জমা দেয়ার নির্দেশ

৮৫ লাখ টাকা ছিনতাইয়ে জড়িত অভিযোগে ৬ জন গ্রেপ্তার

ছবি

আয়াতের ৬ টুকরো মাংসপিন্ড ভর্তি ব্যাগ বাসায় রেখে খুনির রাত্রিযাপন

মাদারীপুরে নিখোঁজের দুইদিন পর নদীর পাড়ে মিলল গৃহবধুর লাশ

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাইয়ে ১০ শতাংশ কোটা বাতিল: হাইকোর্ট

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

বৃহস্পতিবার, ২৫ নভেম্বর ২০২১

বীর মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাইয়ের ক্ষেত্রে ১০ শতাংশের কোটা বাতিল ঘোষণা করে রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের ও বিচারপতি মু. মাহবুব উল ইসলামের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় ঘোষণা করেন।

রিটের পক্ষের আইনজীবী ব্যারিস্টার তৌফিক ইনাম বিষয়টি সংবাদকে নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, রায়ে হাইকোর্ট গেজেট অন্তর্ভুক্ত হয়নি এমন প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের গেজেটভুক্তির ক্ষেত্রে বিদ্যমান গেজেটভুক্ত মুক্তিযোদ্ধাদের সংখ্যার ১০ শতাংশের বেশি তালিকাভুক্ত না করা সংক্রান্ত জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের (জামুকা) বিধান/পরিপত্রটি বাতিল ঘোষণা করে রায় দিয়েছেন।

২০১৯ সালের ১৮ এপ্রিল জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল (জামুকা) ঐ পরিপত্রটি জারি করে। ওই পরিপত্রে বলা হয় যে প্রত্যেক উপজেলায় গেজেট অন্তর্ভুক্ত হয়নি এমন প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের গেজেটভুক্তির জন্য বিদ্যমান রাষ্ট্রীয় ভাতা-ভোগী সাধারণ মুক্তিযোদ্ধাদের সংখ্যার ১০ শতাংশের বেশি তালিকাভুক্ত করা যাবে না।

আইনজীবী বলেন, অথচ ২০১৭ সালে উপজেলা যাচাই-বাছাই কমিটির মাধ্যমে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের একটি ‘ক’ তালিকা প্রস্তুত করা হয় এবং ওই তালিকাতে রিট আবেদনকারীরা তালিকাভুক্ত হন। কিন্তু আলোচ্য সিদ্ধান্তটির ফলে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা অনেকেই বাদ পড়ে যান। সে কারণেই ১০ শতাংশ সংক্রান্ত ঐ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সাভার সদর, সিরাজগঞ্জের কাজীপুর উপজেলাসহ বেশ কয়েকটি উপজেলার ‘ক’ তালিকাভুক্ত প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধারা হাইকোর্টে ২০২০ সালে রিট আবেদন দায়ের করেন। হাইকোর্ট ওই বছরই জামুকার পরিপত্রটি অর্থাৎ বিধানটি কেন বাতিল করা হবে না মর্মে জানতে চেয়ে জামুকা ও সংশ্লিষ্টদের প্রতি রুল জারি করেন।

ব্যারিস্টার তৌফিক ইনাম বলেন, প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের সংখ্যা আইন দ্বারা নিয়ন্ত্রণ করা শুধু বেআইনিই নয় অসাংবিধানিকও। কারণ প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা ১০ শতাংশের কম বা বেশিও হতে পারে। একজন প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাকেও তালিকার বাইরে রাখা যেমন বেআইনি, একইভাবে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা নয় এমন একজনকেও তালিকাভুক্ত করা বেআইনি। কিন্তু এধরনের পরিপত্র জারি করার মাধ্যমে জামুকা যাচাই-বাছাই কমিটিকে একটি ফ্রি লাইসেন্স দিয়েছে। তারা তাদের সুবিধা ও সন্তুষ্টি অনুসারে শুধুমাত্র ১০ শতাংশ প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাকে গেজেটভুক্ত করার জন্য সুপারিশ করতে পারবে। কিন্তু এই সংখ্যা এলাকাভেদে অনেক বেশি আবার কোথাও কমও হতে পারে। তাই এ ধরনের সংখ্যা নির্ধারণ জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল আইন ও সংবিধান সমর্থন করে না।

রিটের চূড়ান্ত শুনানি শেষে হাইকোর্ট আজ ১০ শতাংশ সংক্রান্ত ঐ পরিপত্রটি বেআইনি ও অসাংবিধানিক মর্মে ঘোষণা করে রায় দেন।

back to top