alt

সংস্কৃতি

বর্ষাকে বরণ করে নিলো ঢাবির সাংস্কৃতিক সংসদ

ঢাবি প্রতিনিধি : বুধবার, ১৫ জুন ২০২২

বাংলার আবহমানকালের প্রাণ-সংস্কৃতির অবিচ্ছেদ্য অংশ, বাংলা বছরের দ্বিতীয় ঋতু বর্ষাকে মহাসমারোহে বরণ করে নিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদ।

এ উপলক্ষে আজ বুধবার (১৫ জুন) টিএসসি মিলনায়তনে সাংস্কৃতিক সংসদ আয়োজন করে ‘আষাঢ় পার্বণ ১৪২৯’।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদ প্রথমবারের মতো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও কারুশিল্প মেলা আয়োজনের মাধ্যমে উৎসবটি উদযাপন করে। প্রখ্যাত নাট্য ও গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব ম. হামিদ বিকেল ৫টায় অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাবি উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) ড. মুহাম্মদ সামাদ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ বলেন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বিভিন্ন সৃষ্টিকর্মের মধ্য দিয়ে বর্ষার রূপের সৃষ্টি হয়েছে বলা যায় বলা যায়। রবীন্দ্রনাথ বর্ষা নিয়ে যেসব লেখাজোকা করেছেন তার সবই রোমান্টিকধর্মী। বর্তমানে যারা শহরে জন্মগ্রহণ করেছে তাদের পক্ষে রবীন্দ্রনাথের সময়ের সেই গ্রামের দৃশ্য কল্পনা করা সম্ভব না বলে মনে করেন তিনি। কারণ, যখন হীন ঘন বর্ষায় মেঘ অন্ধকার হয়ে নেমে আসে তখন সূর্য দেখা যায় না তখন শুধু মন খোলা যায়। এমন দৃশ্য এখন আর দেখা যায় না, তবে তার সামন্যটুকু দেখা মেলে গ্রামে।

কবি সামাদ বলেন, আমরা আবহমান বাংলার সংস্কৃতিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি প্রধান দায়িত্ব। কারণ এদেশে মৌলবাদ, জঙ্গিবাদ, অসাম্প্রদায়িকতা, ধর্মাসক্তিপূর্ণ লোক এখনও রয়েছে। অসাম্প্রদায়িক মূল্যবোধ চর্চায় এবং দেশ ও সমাজে সম্প্রীতি বজায় রাখতে সংস্কৃতিচর্চার গুরুত্ব অপরিসীম। আবহামান বাংলার হাজার বছরের সংস্কৃতিকে সামনে এগিয়ে নিয়ে সংস্কৃতিচর্চা আরও জোরদার করার জন্য তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদের সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানান।

মূখ্য আলোচকের বক্তব্যে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুস বলেন, বর্ষা আমাদের জীবনের সাথে,আমাদের পেশার সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। যদি বর্ষা না থাকে তাহলে ফসল হবে না,আমাদের মৎস সম্পদ হারিয়ে যাবে। যদি বর্ষা না থাকে আমাদের ভাটিয়ালি গান আমরা হারিয়ে ফেলব,আমাদের জীবনে পরিবেশের যে প্রশান্তি তাতে বিপর্যয় নামবে। আর বর্ষা রক্ষায় প্রকৃতিকে রক্ষা করতে হবে।

ঢাবি সাংস্কৃতিক সংসদের সভাপতি সাদিয়া আশরাফি থিজবী বলেন, সংস্কৃতির শুদ্ধ চর্চা ও বাঙালি ঐতিহ্য ধারণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদ সব সময়ই অগ্রগণ্য ভূমিকা পালন করে আসছে। বাঙালির জীবনে বর্ষা একটি গুরুত্বপূর্ণ ঋতু। শ্যামল-বাদল জলে এই তিক্ত-মিষ্ট অভিজ্ঞতার ঋতুকে বরণ করে নিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদের এই আয়োজন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও সাংস্কৃতিক সংসদের মডারেটর ড. সাবরিনা সুলতানা চৌধুরীর সভাপতিত্বে, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নৃত্যশিল্পী ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব শর্মিলা বন্দোপাধ্যায় ও টিএসসির উপদেষ্টা ড. শিকদার মনোয়ার মোর্শেদ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদের সভাপতি সাদিয়া আশরাফি থিজবী ও সাধারণ সম্পাদক জয় দাস।

উল্লাপাড়ায় ঐতিহ্যবাহী ঘোল উৎসব

ছবি

গায়ক কে কে মারা গেছেন

উদীচী জবি সংসদের সভাপতি বিপু,সম্পাদক মুক্ত

ছবি

ছায়ানটের ‘ভাষা-সংস্কৃতির আলাপ’-এ অংশগ্রহনের আহবান

ছবি

বেদনাবিধুর ইতিহাসের ‘অভিশপ্ত আগস্ট’ মঞ্চায়ন

চাঁদপুর জেলা উদীচীর সভাপতি কৃষ্ণা সাহা;সম্পাদক জহির উদ্দিন বাবর

ছবি

নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিত হলো ‘মুজিব আমার পিতা’র ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার

ছবি

বিশিষ্ট গীতিকার, কলামিষ্ট কেজি মোস্তফা মারা গেছেন।

ছবি

প্রয়াত বাচিকশিল্পী পার্থ ঘোষ, আবৃত্তি জগতে বিষাদের ছায়া

ছবি

রাখাইনদের জলকেলি উৎসব: অশুভ বিদায়ের প্রত্যাশা

নববর্ষের কবিতা

ছবি

স্মৃতির দরজা খুলে

ছবি

দুঃসময় কাটিয়ে উৎসবে বরণ বাংলা নববর্ষ

ছবি

কক্সবাজারে রাখাইনদের জলকেলি উৎসবের আনুষ্ঠানিকতা চলছে

ছবি

রক্তের আলো

ছবি

উৎসব ও চেতনায় পহেলা বৈশাখ

ছবি

পহেলা বৈশাখের স্মৃতি

ছবি

নববর্ষ ও বাঙালির আত্মপরিচয়

ছবি

দুই বছর পর একটুকরো চমৎকার সকাল

ছবি

ছায়ানটের বর্ষবরণ অনুষ্ঠানের প্রতিপাদ্য বিষয় ‘নব আনন্দে জাগো’

ছবি

আগরতলায় বাংলাদেশের অন্যপ্রকাশ

ছবি

প্রকৃতিমুগ্ধতা, প্রথাহীনতায় ‘শালুক’-এর সাহিত্যআড্ডা

ছবি

দুই বছর পর ঢাবিতে মঙ্গল শোভাযাত্রা

জবিতে ‘জীবন রসায়নে বঙ্গবন্ধু’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন

নওগাঁয় নাটক পালপাড়ার রক্তাক্ত প্লাবন মঞ্চায়িত

অস্কার আসরে ইউক্রেনের জন্য নীরবতা পালন

ছবি

স্বাধীনতা পুরস্কার সাহিত্যে, প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা আমির হামজা আলোচনায়

ছবি

ওবায়েদ আকাশের নতুন কাব্যগ্রন্থ ‘কাগুজে দিন, কাগুজে রাত’

ছবি

শুক্লা গঙ্গোপাধ্যায়ের ‘সহস্রার মূলাধার’

ছবি

ঢাবির মঞ্চে ‘ওয়েটিং ফর গডো’

ছবি

নজরুল সংগীত উৎসবে মুগ্ধতা ছড়ালেন দুই দেশের শিল্পীরা

ছবি

পার্থ সনজয়ের কান ডায়েরি

ছবি

ঢাকা থেকে পুরস্কৃত হলো একমাত্র ‘শালুক’

ছবি

চাঁদপুরে ঐতিহ্যবাহী ‘সংবাদ’ এর আয়োজনে সাহিত্য আড্ডা ও মতবিনিময়

ছবি

বাংলাদেশ-ভারত সাংস্কৃতিক মেলা রাজশাহীতে

ছবি

নারায়ণগঞ্জে পাঠাগারে সাংস্কৃতিক উৎসব ও গুণীজন সম্মাননা

tab

সংস্কৃতি

বর্ষাকে বরণ করে নিলো ঢাবির সাংস্কৃতিক সংসদ

ঢাবি প্রতিনিধি

বুধবার, ১৫ জুন ২০২২

বাংলার আবহমানকালের প্রাণ-সংস্কৃতির অবিচ্ছেদ্য অংশ, বাংলা বছরের দ্বিতীয় ঋতু বর্ষাকে মহাসমারোহে বরণ করে নিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদ।

এ উপলক্ষে আজ বুধবার (১৫ জুন) টিএসসি মিলনায়তনে সাংস্কৃতিক সংসদ আয়োজন করে ‘আষাঢ় পার্বণ ১৪২৯’।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদ প্রথমবারের মতো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও কারুশিল্প মেলা আয়োজনের মাধ্যমে উৎসবটি উদযাপন করে। প্রখ্যাত নাট্য ও গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব ম. হামিদ বিকেল ৫টায় অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাবি উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) ড. মুহাম্মদ সামাদ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ বলেন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বিভিন্ন সৃষ্টিকর্মের মধ্য দিয়ে বর্ষার রূপের সৃষ্টি হয়েছে বলা যায় বলা যায়। রবীন্দ্রনাথ বর্ষা নিয়ে যেসব লেখাজোকা করেছেন তার সবই রোমান্টিকধর্মী। বর্তমানে যারা শহরে জন্মগ্রহণ করেছে তাদের পক্ষে রবীন্দ্রনাথের সময়ের সেই গ্রামের দৃশ্য কল্পনা করা সম্ভব না বলে মনে করেন তিনি। কারণ, যখন হীন ঘন বর্ষায় মেঘ অন্ধকার হয়ে নেমে আসে তখন সূর্য দেখা যায় না তখন শুধু মন খোলা যায়। এমন দৃশ্য এখন আর দেখা যায় না, তবে তার সামন্যটুকু দেখা মেলে গ্রামে।

কবি সামাদ বলেন, আমরা আবহমান বাংলার সংস্কৃতিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি প্রধান দায়িত্ব। কারণ এদেশে মৌলবাদ, জঙ্গিবাদ, অসাম্প্রদায়িকতা, ধর্মাসক্তিপূর্ণ লোক এখনও রয়েছে। অসাম্প্রদায়িক মূল্যবোধ চর্চায় এবং দেশ ও সমাজে সম্প্রীতি বজায় রাখতে সংস্কৃতিচর্চার গুরুত্ব অপরিসীম। আবহামান বাংলার হাজার বছরের সংস্কৃতিকে সামনে এগিয়ে নিয়ে সংস্কৃতিচর্চা আরও জোরদার করার জন্য তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদের সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানান।

মূখ্য আলোচকের বক্তব্যে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুস বলেন, বর্ষা আমাদের জীবনের সাথে,আমাদের পেশার সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। যদি বর্ষা না থাকে তাহলে ফসল হবে না,আমাদের মৎস সম্পদ হারিয়ে যাবে। যদি বর্ষা না থাকে আমাদের ভাটিয়ালি গান আমরা হারিয়ে ফেলব,আমাদের জীবনে পরিবেশের যে প্রশান্তি তাতে বিপর্যয় নামবে। আর বর্ষা রক্ষায় প্রকৃতিকে রক্ষা করতে হবে।

ঢাবি সাংস্কৃতিক সংসদের সভাপতি সাদিয়া আশরাফি থিজবী বলেন, সংস্কৃতির শুদ্ধ চর্চা ও বাঙালি ঐতিহ্য ধারণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদ সব সময়ই অগ্রগণ্য ভূমিকা পালন করে আসছে। বাঙালির জীবনে বর্ষা একটি গুরুত্বপূর্ণ ঋতু। শ্যামল-বাদল জলে এই তিক্ত-মিষ্ট অভিজ্ঞতার ঋতুকে বরণ করে নিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদের এই আয়োজন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও সাংস্কৃতিক সংসদের মডারেটর ড. সাবরিনা সুলতানা চৌধুরীর সভাপতিত্বে, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নৃত্যশিল্পী ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব শর্মিলা বন্দোপাধ্যায় ও টিএসসির উপদেষ্টা ড. শিকদার মনোয়ার মোর্শেদ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদের সভাপতি সাদিয়া আশরাফি থিজবী ও সাধারণ সম্পাদক জয় দাস।

back to top