alt

আন্তর্জাতিক

দেশে দেশে কলেরার প্রাদুর্ভাব, বৈশ্বিক কর্মসূচি ঘোষণা ডব্লিউএইচও’র

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : শনিবার, ০৬ এপ্রিল ২০২৪

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কলেরার প্রাদুর্ভাব বাড়তে থাকায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা সংক্রান্ত অঙ্গ সংগঠন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। পানিবাহিত এই প্রাণঘাতী রোগটির প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে তাই বড় আকারের টেস্ট কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বৈশ্বিক এই সংস্থাটি।

ডব্লিউএইচও’র হিসেব অনুযায়ী, ২০২২ সালে বিশ্বজুড়ে কলেরায় আক্রান্ত হয়েছিলেন ৪ লাখ ৭৩ হাজার জন। ২০২৩ সালে সেই সংখ্যা বেড়েছে প্রায় দ্বিগুণ— ৭ লাখ। চলতি ২০২৪ সালে এই সংখ্যা আরও বৃদ্ধির আলামত পাওয়া যাচ্ছে।

শুক্রবার এক বিবৃতিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘গত দু’তিন বছর ধরে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আমরা কলেরার অনাকাঙিক্ষত ও উদ্বেগজনক প্রাদুর্ভাব লক্ষ্য করছি। এই প্রাদুর্ভাব নিয়ন্ত্রণে কলেরার বৈশ্বিক টেস্ট কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে। এই কর্মসূচির উদ্দেশ্য হলো কলেরা নির্ভুলভাবে শনাক্ত করা এবং নিয়মিত নজরদারি এবং কলেরা টেস্ট বিষয়ক সক্ষমতা বাড়ানো।’

‘আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে বিভিন্ন দেশে কলেরা টেস্টের সরঞ্জাম পৌঁছে যাবে। প্রাথমিক ভাবে মালাউই, ইথিওপিয়া, সোমালিয়া, সিরিয়া, জাম্বিয়াসহ মোট ১৪টি দেশে পাঠানো হবে সরঞ্জাম।’

এ কর্মসূচিতে ডব্লিউএইচও’র অংশীদার হিসেবে রয়েছে আন্তর্জাতিক টিকা সহায়তা সংস্থা গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ভ্যাকসিনস অ্যান্ড ইমিউনাইজেশন (গ্যাভি), জাতিসংঘের শিশু নিরাপত্তা ও অধিকার বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ এবং কলেরা প্রতিরোধ সংক্রান্ত বৈশ্বিক সংস্থা গ্লোবাল টাস্কফোর্স অন কলেরা কন্ট্রোল।

গ্যাভির কর্মসূচি বিভাগের প্রধান নির্বাহী অরেলিয়া এনগুয়েন এক বিবৃতিতে বলেন, ‘কলেরা প্রাদুর্ভাবের বিরুদ্ধে বিশ্বজুড়ে যে তৎপরতা চলছে, এ কর্মসূচি তাকে আরও একধাপ এগিয়ে নেবে বলে আমাদের বিশ্বাস।’

দুষিত পানি ও খাবারের মধ্যে জন্মানো এক প্রকার ব্যাকটেরিয়া কলেরার জন্য দায়ী। এ রোগটিতে আক্রান্ত হয়ে প্রতি বছর লাখ লাখ মানুষের মৃত্যু ঘটে। এই মৃতদের অধিকাংশই শিশু ও অপ্রাপ্তবয়স্ক।

কলেরা প্রাদুর্ভাবের ঊর্ধগতির সঙ্গে তাল রেখে রোগটির টিকা উৎপাদনের হারও বাড়ছে। ডব্লিউএইচও’র তথ্য অনুযায়ী ২০১৩ সাল থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত বৈশ্বিকভাবে কলেরা টিকার উৎপাদন বেড়েছে আটগুণ। কিন্তু তারপরও চাহিদার তুলনায় টিকার ঘাটতি থেকেই যাচ্ছে।

গত মাসে এক বিবৃতিতে এ প্রসঙ্গে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলেছিল, ‘কলেরা টিকার বৈশ্বিক মজুদে ঘাটতি শুরু হয়েছে। শিগগির এই ঘাটতি পূরণ না হলে কলেরা ঠেকানোর বৈশ্বিক কর্মসূচি গতিহীন হয়ে পড়বে।’

সূত্র : এএফপি

ছবি

পাপুয়া নিউ গিনির ভূমিধসে ‘চাপা: ২ হাজারেরও বেশি’

ছবি

যুক্তরাষ্ট্রে ঝড়ে নিহত অন্তত ১৮

ছবি

ইরানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার ইঙ্গিত আহমাদিনেজাদের

ছবি

রিমালের ছোবলে পশ্চিমবঙ্গে একজনের মৃত্যু, বৃষ্টিপাত অব্যাহত

ছবি

গাজায় বাস্তুচ্যুতদের শিবিরে ইসরায়েলের ভয়াবহ হামলা, নিহত অন্তত ৩৫

ছবি

গাজায় ইসরায়েলি সেনা আটকের দাবি হামাসের

ছবি

গুজরাটে খেলাধুলার স্থানে ভয়াবহ আগুন, ২৪ জনের মৃত্যু

ছবি

জাতিসংঘ আদালতের রায় : আর ঘোষণা নয়,পদক্ষেপ চান ফিলিস্তিনিরা

ছবি

রাফায় অভিযান : জাতিসংঘ আদালতের রায় প্রত্যাখ্যান ইসরায়েলের

ছবি

মহড়ার মাধ্যমে তাইওয়ান দখলের সক্ষমতা যাচাই করছে চীন

ছবি

গাজাজুড়ে ইসরায়েলের ভয়াবহ হামলা

ছবি

ইসরায়েলের আরও ৩ জিম্মির মরদেহ উদ্ধার

ছবি

জর্জিয়ার ওপর ভিসা নিষেধাজ্ঞা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

ছবি

ভিয়েতনামে বহুতল ভবনে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ১৪

ছবি

তীর্থে যাওয়ার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের নিহত ৭

ছবি

মায়ানমারের রাখাইনে নতুন সংঘাত, উদ্বাস্তু হাজারো মানুষ

ছবি

সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের সেই ফ্লাইটের ২০ আরোহী আইসিইউতে

ছবি

আমেরিকার কাছে সিরিজ হারের পর যা বললেন সাকিব

ছবি

গাজাজুড়ে ইসরায়েলের ভয়াবহ হামলা, নিহত অন্তত ৫০

ছবি

তাইওয়ানের চারপাশে চীনের সামরিক মহড়া ‘উদ্বেগজনক’ : যুক্তরাষ্ট্র

ছবি

প্যালেস্টাইন রাষ্ট্রকে ‘একতরফা স্বীকৃতি’ দেয়ার বিরোধিতা হোয়াইট হাউসের

ছবি

মেক্সিকোয় নির্বাচনী প্রচারণার মঞ্চ ভেঙে নিহত ৯

ছবি

গাজা যুদ্ধ : মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা থেকে সরে যাওয়ার হুমকি মিসরের

ছবি

গাজায় আরও হামলা চালানোর হুমকি ইসরায়েলের

ছবি

আগাম নির্বাচনের ঘোষণা যুক্তরাজ্যে

ছবি

দুবাই মেট্রো রেড লাইন পরিষেবা ২ ঘন্টা পর পুনরায় চালু

ছবি

ফিলিস্তিনকে আজই রাষ্ট্রের স্বীকৃতি দেবে আয়ারল্যান্ড: রয়টার্স

ছবি

নাইজেরিয়ায় বন্দুকধারীদের গুলিতে নিহত ৪০

ছবি

অনলাইনে প্রয়াত প্রেসিডেন্টকে ‘অপমানকারীদের’ গ্রেপ্তারের নির্দেশ

ছবি

ভারতের উত্তরে তীব্র তাপপ্রবাহ, দক্ষিণে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস

ছবি

হেলিকপ্টার বিধ্বস্তে রাইসির মৃত্যু, যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তা পায়নি ইরান

ছবি

ইসরায়েলি বাহিনী গাজায় গণহত্যা চালাচ্ছে না : বাইডেন

ছবি

রাইসির মৃত্যুতে ইরানে পাঁচ দিনের শোক

ছবি

রাইসির মৃত্যুতে বিশ্বনেতাদের শোক

ছবি

ইরানে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত, প্রেসিডেন্ট রাইসির লাশ উদ্ধার

ছবি

ইরানের অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন মোহাম্মদ মোখবার

tab

আন্তর্জাতিক

দেশে দেশে কলেরার প্রাদুর্ভাব, বৈশ্বিক কর্মসূচি ঘোষণা ডব্লিউএইচও’র

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

শনিবার, ০৬ এপ্রিল ২০২৪

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কলেরার প্রাদুর্ভাব বাড়তে থাকায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা সংক্রান্ত অঙ্গ সংগঠন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। পানিবাহিত এই প্রাণঘাতী রোগটির প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে তাই বড় আকারের টেস্ট কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বৈশ্বিক এই সংস্থাটি।

ডব্লিউএইচও’র হিসেব অনুযায়ী, ২০২২ সালে বিশ্বজুড়ে কলেরায় আক্রান্ত হয়েছিলেন ৪ লাখ ৭৩ হাজার জন। ২০২৩ সালে সেই সংখ্যা বেড়েছে প্রায় দ্বিগুণ— ৭ লাখ। চলতি ২০২৪ সালে এই সংখ্যা আরও বৃদ্ধির আলামত পাওয়া যাচ্ছে।

শুক্রবার এক বিবৃতিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘গত দু’তিন বছর ধরে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আমরা কলেরার অনাকাঙিক্ষত ও উদ্বেগজনক প্রাদুর্ভাব লক্ষ্য করছি। এই প্রাদুর্ভাব নিয়ন্ত্রণে কলেরার বৈশ্বিক টেস্ট কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে। এই কর্মসূচির উদ্দেশ্য হলো কলেরা নির্ভুলভাবে শনাক্ত করা এবং নিয়মিত নজরদারি এবং কলেরা টেস্ট বিষয়ক সক্ষমতা বাড়ানো।’

‘আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে বিভিন্ন দেশে কলেরা টেস্টের সরঞ্জাম পৌঁছে যাবে। প্রাথমিক ভাবে মালাউই, ইথিওপিয়া, সোমালিয়া, সিরিয়া, জাম্বিয়াসহ মোট ১৪টি দেশে পাঠানো হবে সরঞ্জাম।’

এ কর্মসূচিতে ডব্লিউএইচও’র অংশীদার হিসেবে রয়েছে আন্তর্জাতিক টিকা সহায়তা সংস্থা গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ভ্যাকসিনস অ্যান্ড ইমিউনাইজেশন (গ্যাভি), জাতিসংঘের শিশু নিরাপত্তা ও অধিকার বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ এবং কলেরা প্রতিরোধ সংক্রান্ত বৈশ্বিক সংস্থা গ্লোবাল টাস্কফোর্স অন কলেরা কন্ট্রোল।

গ্যাভির কর্মসূচি বিভাগের প্রধান নির্বাহী অরেলিয়া এনগুয়েন এক বিবৃতিতে বলেন, ‘কলেরা প্রাদুর্ভাবের বিরুদ্ধে বিশ্বজুড়ে যে তৎপরতা চলছে, এ কর্মসূচি তাকে আরও একধাপ এগিয়ে নেবে বলে আমাদের বিশ্বাস।’

দুষিত পানি ও খাবারের মধ্যে জন্মানো এক প্রকার ব্যাকটেরিয়া কলেরার জন্য দায়ী। এ রোগটিতে আক্রান্ত হয়ে প্রতি বছর লাখ লাখ মানুষের মৃত্যু ঘটে। এই মৃতদের অধিকাংশই শিশু ও অপ্রাপ্তবয়স্ক।

কলেরা প্রাদুর্ভাবের ঊর্ধগতির সঙ্গে তাল রেখে রোগটির টিকা উৎপাদনের হারও বাড়ছে। ডব্লিউএইচও’র তথ্য অনুযায়ী ২০১৩ সাল থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত বৈশ্বিকভাবে কলেরা টিকার উৎপাদন বেড়েছে আটগুণ। কিন্তু তারপরও চাহিদার তুলনায় টিকার ঘাটতি থেকেই যাচ্ছে।

গত মাসে এক বিবৃতিতে এ প্রসঙ্গে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলেছিল, ‘কলেরা টিকার বৈশ্বিক মজুদে ঘাটতি শুরু হয়েছে। শিগগির এই ঘাটতি পূরণ না হলে কলেরা ঠেকানোর বৈশ্বিক কর্মসূচি গতিহীন হয়ে পড়বে।’

সূত্র : এএফপি

back to top