alt

রাজনীতি

যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা বিধিনিষেধের জন্য সরকার দায়ী : মির্জা ফখরুল

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩

যুক্তরাষ্ট্রের ভিসার বিধিনিষেধ আরোপ শুরু করার ঘটনাকে বাংলাদেশের জন্য ‘অপমানজনক ও লজ্জাজনক’ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি এ জন্য সরকারকে এককভাবে দায়ী করেছেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আজ শনিবার বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার এখন বাংলাদেশকে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মুখোমুখি দাঁড় করিয়েছে।

এমন বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘সরকার নির্বাচনব্যবস্থাকে ধ্বংস করেছে। মানুষের মতপ্রকাশের স্বাধীনতা কেড়ে নিয়েছে এবং মানবাধিকার লঙ্ঘন করে চলেছে। বিরোধী দলের নেতা–কর্মীদের নির্যাতন, গ্রপ্তার করা হচ্ছে। এসব কারণে যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশ থেকে নানা রকম পদক্ষেপ দেখা যাচ্ছে।’

বাংলাদেশের নির্বাচন সুষ্ঠু ও অবাধ করার লক্ষ্যে যুক্তরাষ্ট্র ভিসা নীতি ঘোষণা করেছে গত ২৪ মে। এই ঘোষণার চার মাসের মাথায় গতকাল দেশটির পক্ষ থেকে বলা হয়, গণতান্ত্রিক নির্বাচনপ্রক্রিয়াকে বাধাদানে দায়ী ও জড়িত ব্যক্তিদের ওপর ভিসা বিধিনিষেধ আরোপের পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। এসব ব্যক্তির মধ্যে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল ও বিরোধী দলের সদস্যও রয়েছেন।

বিরোধী দলের সদস্যদের ব্যাপারেও যুক্তরাষ্ট্র ভিসা বিধিনিষেধের যে কথা বলেছে, এ নিয়ে বিএনপি চিন্তিত নয় বলে বিএনপি নেতারা বলছেন। এর কারণ হিসেবে তারা বলেন, সরকারের কারণেই এ ধরনের পরিস্থিতি হয়েছে। ফলে ক্ষমতাসীনদের জন্যই এটি চিন্তার বিষয়।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫২ বছর পর এসে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রশ্নে যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা বিধিনিষেধ এসেছে। এটি আমাদের দেশের জন্য প্রাপ্য নয়। তিনি উল্লেখ করেন, এ জন্য বিএনপিসহ বিরোদী রাজনৈতিক দলগুলোর কোনো দায় নেই, এককভাবে সরকারই দায়ী।’

তবে যুক্তরাষ্ট্রের পদক্ষেপকে বিএনপি ইতিবাচক হিসবে দেখছে, মির্জা ফখরুল ইসলামের কথায় তা মনে হয়। তিনি বলেন, বাইডেন প্রশাসন বিশ্বে গণতন্ত্রের কথা বলছে। এর অংশ হিসেবে তারা বাংলাদেশে গণতন্ত্রের পক্ষে পদক্ষেপ নিয়েছে। তারা তাদের দায়িত্ব পালন করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের এই পদক্ষেপে বাংলাদেশে নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে—এমনটা বিএনপি মনে করছে কি না, এ প্রশ্ন করা হলে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, যুক্তরাষ্ট্র তাদের ভিসা নীতি দিয়েছে। কিন্তু সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচন করার পরিবেশ সৃষ্টির জন্য সরকারের অবস্থানের কোনো পরিবর্তন এখনো হয়নি। আসলে এখন সরকার কী করবে, সেটা তাদের ওপর নির্ভর করছে। আর আমরা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আমাদের আন্দোলন অব্যাহত রাখব।

ছবি

গ্রহণযোগ্য নির্বাচন, স্বতন্ত্র প্রার্থীদের গুরুত্ব বাড়ছে

নাশকতার মামলা : টুকু-জুয়েলসহ বিএনপির ২৯ নেতাকর্মীর কারাদন্ড

প্রার্থিতা ফিরে পেতে ৩৩১, বাতিল করতে ৭ আবেদন

পিতা-পুত্রের দ্বন্দ্ব মিটিয়ে এখন লড়বেন বাবা-মেয়ে

নির্বাচন আচরণবিধি লঙ্ঘনের ব্যাখ্যা দিলেন মায়া চৌধুরী

হেলিকপ্টারকান্ডে বিএনএম প্রার্থীকে জরিমানা

ছবি

মির্জা ফখরুলকে জামিন দিতে রুল

ছবি

জাপার সঙ্গে আসন ভাগাভাগি নয়, রাজনৈতিক আলোচনা হয়েছে : সেতুমন্ত্রী

ছবি

আ.লীগের সঙ্গে আসন বণ্টন প্রয়োজন মনে করছে না জাতীয় পার্টি : জাপা মহাসচিব

ছবি

বৃষ্টিতে ভিজে নেতাকর্মীদের নিয়ে রিজভীর মিছিল

সরকার প্রহসনের নির্বাচন করার আত্মঘাতী খেলায় মেতে উঠেছে : রিজভী

জাপার সঙ্গে ভাগাভাগি, বিরোধী দল কারা? কাদের বললেন ‘দাঁড়িয়ে যাবে’

তওবা, আস্তাগফিরুল্লা, বিএনপিতে ফিরে যাওয়ার প্রশ্নে শাহজাহান ওমর

রাজনীতি করতে নয়, উন্নয়ন করতে প্রার্থী হয়েছি

ছবি

দুদিনের সফরে নিজ নির্বাচনী এলাকায় গোপালগঞ্জ যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

ছবি

বিএনপি-জামায়াত সারাদেশে বিশৃঙ্খলার ষড়যন্ত্র করছে : কাদের

ছবি

সাদিক আব্দুল্লাহর মনোনয়নপত্র বাতিল চেয়ে আপিল:জাহিদ ফারুক

ছবি

শাহজাহান ওমর বিএনপিপন্থি আইনজীবীদের তোপের মুখে

ছবি

গ্রেপ্তারি পরোয়ানা নিয়ে রাজশাহীতে রিজভীর ঝটিকা মিছিল

ছবি

আ.লীগ আমার পুরোনো দল, মাঝে অন্য জায়গায় ছিলাম: শাহজাহান ওমর

ছবি

আপিল আবেদন করতে ইসিতে হিরো আলম

ছবি

স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণা, তৃণমূল আ’লীগে নতুন বার্তা

আচরণবিধি লঙ্ঘন : ৭৫ প্রার্থীকে শোকজ

ব্যালট পেপারে প্রার্থীদের নাম থাকবে বর্ণমালার ক্রমানুসারে

ছবি

কাদের বললেন ‘আজকালের মধ্যে’, আমু বললেন ‘১৭ ডিসেম্বর’

ফ্ল্যাট,প্লটসহ জমি বেড়েছে ৩৭ গুন, কমেছে কৃষি খাতের আয়, স্ত্রী হয়েছেন কোটিপতি

ছবি

বিএনপি একদিন ঘুরে দাঁড়াবে: রিজভী

ছবি

রবিবারের মানববন্ধন কর্মসূচিকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে বিএনপি

ছবি

জাতীয় পার্টি আওয়ামী লীগের সঙ্গে থাকতে পারে: তথ্যমন্ত্রী

কচুয়ায় নাশকতায় মামলায় ৬ জামায়াত কর্মী গ্রেপ্তার

ছবি

এটি ভাগাভাগির নির্বাচন : রিজভী

ছবি

ইসিতে কেন এসেছি আপনাকে কেন বলবো, সাংবাদিকদের শাহজাহান ওমর

ছবি

আজ-কালের মধ্যে আসন ভাগাভাগির বিষয়ে সিদ্ধান্ত

ছবি

জি এম কাদেরের সম্পদ বেড়েছে ৩ গুণ

ছবি

১০ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের সমাবেশ হচ্ছে না : কাদের

ছবি

সাংবাদিকদের দেখতে শাহজাহান ওমর ইসি কার্যালয়ে!

tab

রাজনীতি

যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা বিধিনিষেধের জন্য সরকার দায়ী : মির্জা ফখরুল

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩

যুক্তরাষ্ট্রের ভিসার বিধিনিষেধ আরোপ শুরু করার ঘটনাকে বাংলাদেশের জন্য ‘অপমানজনক ও লজ্জাজনক’ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি এ জন্য সরকারকে এককভাবে দায়ী করেছেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আজ শনিবার বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার এখন বাংলাদেশকে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মুখোমুখি দাঁড় করিয়েছে।

এমন বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘সরকার নির্বাচনব্যবস্থাকে ধ্বংস করেছে। মানুষের মতপ্রকাশের স্বাধীনতা কেড়ে নিয়েছে এবং মানবাধিকার লঙ্ঘন করে চলেছে। বিরোধী দলের নেতা–কর্মীদের নির্যাতন, গ্রপ্তার করা হচ্ছে। এসব কারণে যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশ থেকে নানা রকম পদক্ষেপ দেখা যাচ্ছে।’

বাংলাদেশের নির্বাচন সুষ্ঠু ও অবাধ করার লক্ষ্যে যুক্তরাষ্ট্র ভিসা নীতি ঘোষণা করেছে গত ২৪ মে। এই ঘোষণার চার মাসের মাথায় গতকাল দেশটির পক্ষ থেকে বলা হয়, গণতান্ত্রিক নির্বাচনপ্রক্রিয়াকে বাধাদানে দায়ী ও জড়িত ব্যক্তিদের ওপর ভিসা বিধিনিষেধ আরোপের পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। এসব ব্যক্তির মধ্যে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল ও বিরোধী দলের সদস্যও রয়েছেন।

বিরোধী দলের সদস্যদের ব্যাপারেও যুক্তরাষ্ট্র ভিসা বিধিনিষেধের যে কথা বলেছে, এ নিয়ে বিএনপি চিন্তিত নয় বলে বিএনপি নেতারা বলছেন। এর কারণ হিসেবে তারা বলেন, সরকারের কারণেই এ ধরনের পরিস্থিতি হয়েছে। ফলে ক্ষমতাসীনদের জন্যই এটি চিন্তার বিষয়।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫২ বছর পর এসে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রশ্নে যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা বিধিনিষেধ এসেছে। এটি আমাদের দেশের জন্য প্রাপ্য নয়। তিনি উল্লেখ করেন, এ জন্য বিএনপিসহ বিরোদী রাজনৈতিক দলগুলোর কোনো দায় নেই, এককভাবে সরকারই দায়ী।’

তবে যুক্তরাষ্ট্রের পদক্ষেপকে বিএনপি ইতিবাচক হিসবে দেখছে, মির্জা ফখরুল ইসলামের কথায় তা মনে হয়। তিনি বলেন, বাইডেন প্রশাসন বিশ্বে গণতন্ত্রের কথা বলছে। এর অংশ হিসেবে তারা বাংলাদেশে গণতন্ত্রের পক্ষে পদক্ষেপ নিয়েছে। তারা তাদের দায়িত্ব পালন করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের এই পদক্ষেপে বাংলাদেশে নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে—এমনটা বিএনপি মনে করছে কি না, এ প্রশ্ন করা হলে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, যুক্তরাষ্ট্র তাদের ভিসা নীতি দিয়েছে। কিন্তু সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচন করার পরিবেশ সৃষ্টির জন্য সরকারের অবস্থানের কোনো পরিবর্তন এখনো হয়নি। আসলে এখন সরকার কী করবে, সেটা তাদের ওপর নির্ভর করছে। আর আমরা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আমাদের আন্দোলন অব্যাহত রাখব।

back to top