alt

রাজনীতি

গণপিটুনি দিয়ে মারার আদেশঃ গণমাধ্যমকে দুষলেন সংসদ সদস্য ইব্রাহিম

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : সোমবার, ০৯ মে ২০২২

দুষ্কৃতকারীদের গণপিটুনি দিয়ে মেরে ফেলার আদেশ দিয়েছিলেন নোয়াখালী-১ (চাটখিল ও সোনাইমুড়ী আংশিক) আসনের সংসদ সদস্য এইচ এম ইব্রাহিম। তার সেই বক্তব্য সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। এ নিয়ে খবর প্রকাশের পর তিনি নিজের অবস্থান থেকে সরে এসেছেন। আর এখন তিনি এর জন্য দুষছেন গণমাধ্যমকে।

গত শুক্রবার সন্ধ্যায় একটি শোকসভায় গিয়ে বিচারবহির্ভূত হত্যার পক্ষে দেওয়া বক্তব্যকে ‘ভুল–বোঝাবুঝি’ হিসেবে মন্তব্য করেছেন জাতীয় সংসদের এই আইনপ্রণেতা।

শুক্রবার রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সংসদ সদস্য ইব্রাহিমের বক্তৃতার ৫৩ সেকেন্ডের একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে। এতে সংসদ সদস্য ইব্রাহিমকে বলতে শোনা যায়, ‘আমি হুকুম দিয়া দিচ্ছি, এই সমস্ত দুষ্কৃতকারীদের গণপিটুনি দিয়ে মেরে ফেললে কিছু হবে না। আপনারা যদি পারেন, আপনারা গণপিটুনি দিয়ে মেরে ফেলেন। যদি কেউ আসামি করে, আমি মামলার ১ নম্বর আসামি হব। যে আমি হুকুম দিয়ে গেছি, এটা আমি আপনাদের কথা দিয়ে গেলাম।’

গতকাল রোববার রাত সোয়া ১১টার দিকে এ বিষয়ে ফেইসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি। সেখানে ওই বক্তব্য ‘দেওয়া ঠিক হয়নি’ জানিয়ে এর জন্য ‘ক্ষমা’ চান সংসদ সদস্য ইব্রাহিম।

ইব্রাহিম এমপি তার ফেইসবুকে লিখেছেন, ‘প্রিয় চাটখিল-সোনাইমুড়ীবাসি। আসসালামু আলাইকুম। গত দুই-তিন দিন থেকে আমার একটি বক্তব্য বিভিন্ন মিডিয়ায় কাটছাঁট করে উপস্থাপনের মাধ্যমে সংবাদ পরিবেশন করা হচ্ছে। আমার মূল বক্তব্যটি ছিল ১৩ মিনিট ৫৫ সেকেন্ডের। কিন্তু সংবাদমাধ্যমের কোথাও ৫৫ সেকেন্ড, কোথাও আবার ১ মিনিট ২০ সেকেন্ডের ভিডিও তৈরি করে প্রকাশ করা হয়েছে। ফলে বিভিন্ন সচেতন মহলে ব্যাপক মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।’

এমপি ইব্রাহিম তার পোস্টে আরও লেখেন, ‘ওই দিন আমি আমার বক্তব্যের মাধ্যমে মূলত বোঝাতে চেয়েছি, আমি নিজে কোনো সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, চোর, ডাকাত, মাদক ব্যবসায়ী ও সেবনকারীকে আশ্রয়–প্রশ্রয় দিই না। তাদের বিরুদ্ধে কঠিন ব্যবস্থা নিতে আমি ওই বক্তব্যের সময় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদেরও নির্দেশনা দিয়েছি এবং উপস্থিত জনসাধারণকে জনমত তৈরি করে এই সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে আহ্বান জানিয়েছি এবং বলেছি, এতে করে কোনো সন্ত্রাসী মারা গেলে আমি ১ নম্বর আসামি হব, তবুও সমাজে শান্তি–শৃঙ্খলা বজায় রাখতে হবে।’

সংসদ সদস্য ইব্রাহিম ফেসইবুক পোস্টে আরও লেখেন, ‘আমার নির্বাচনী এলাকার কোনো মানুষ যখন তার কোনো অভিযোগ আমাকে জানায়, তখন মানুষ হিসেবে এটার প্রভাব আমার মাঝেও আসে। আর সে ক্ষেত্রে আবেগপ্রবণ হয়ে অসাবধানতাবশত কিছু কথা মুখ দিয়ে বের হয়ে গিয়েছে। একজন আইনপ্রণেতা হিসেবে আমার হয়তো আবেগপ্রবণ হয়ে এভাবে বক্তব্যটি দেওয়া ঠিক হয়নি।’

আইনপ্রণেতা হিসেবে আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল জানিয়ে এইচ এম ইব্রাহিম ফেইসবুক পোস্টে উল্লেখ করেন, যে ‘ভুল–বোঝাবুঝির’ সৃষ্টি হয়েছে, তার জন্য তিনি ‘আন্তরিকভাবে দুঃখিত’।

Shahriar Karim

একটা ধাক্কা দেয়া বাকি আছে : ড. মোশাররফ

ক্ষমতার পরিবর্তন ২০২৩ সালের আগেই : নূর

ছবি

প্রেসক্লাবের সামনে যুবদলের বিক্ষোভ সমাবেশ

ছবি

প্রতীক নিয়ে প্রচারণায় সরগরম নগরী

ছবি

সম্মেলন ঠেকাতেই কী ছাত্রদল দমন ইস্যু তৈরী জয়-লেখকের?

ছবি

যুবদলের নতুন সভাপতি টুকু, মোনায়েম মুন্না সা. সম্পাদক

চাঁপাইনবাবগঞ্জে বিএনপির ৬০ নেতার পদত্যাগ

ছবি

বিএনপি ঢাবিতে লাশ ফেলার ষড়যন্ত্র করছে : কাদের

ছবি

হোসেনপুর আওয়ামী লীগ সম্মেলনে সভাপতি নূরু সম্পাদক হলেন হালিম

ছবি

‘জনগণ বিএনপির উপর পরিপূর্ণ নির্ভরশীল নয়’

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের ঘোষণা ইমরানের

নয়াপল্টনে হঠাৎ বিএনপির মশাল মিছিল, ১০ নেতা–কর্মী আটক

ছবি

বাম জোট ভাঙ্গলো: জোটে থাকছেনা বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি ও গণসংহতি আন্দোলন

ছবি

আগামী ১ অক্টোবর চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলন: হানিফ

বিএনপির যড়যন্ত্র রুখতে পাড়ায় পাড়ায় পাহারা বসান :কৃষিমন্ত্রী

ছবি

কুমিল্লায় ফিরে ‘বিদ্রোহী’ ইমরান বললেন ‘ভিন্ন কথা’

ছবি

পদ্মা সেতু হওয়ায় বিএনপি বুকে বড় জ্বালা: কাদের

ছবি

কুমিল্লার ‘বিদ্রোহী’ ইমরান ‘বসে যাবেন’, বলছে আ.লীগ

ছবি

‘মানুষের মুখে হাসি দেখলে বিএনপি নেতাদের মুখে কালো মেঘের ছায়া পড়ে’

ছবি

কুমিল্লা সিটি নির্বাচন: নৌকার বিদ্রোহীকে ডেকেছে আ.লীগ

ছবি

বিমানবন্দরে মির্জা আব্বাসকে হেনস্তার অভিযোগ

ছবি

প্রেস ক্লাবের সামনে বিএনপির বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন

ছবি

সখীপুর জাতীয় পার্টির উপজেলা ও পৌর আহবায়ক কমিটি

ছাত্রদল সভাপতিসহ ২০ জনের বিরুদ্ধে মামলা : গ্রেপ্তার ২

খালেদাকে ‘টুস’ করে ফেলে দিতে চাওয়ায় ছাত্রদলের প্রতিবাদ

নৌকার বিরুদ্ধে নির্বাচন , হবিগঞ্জে আওয়ামী লীগের ৪ নেতা অব্যাহতি

ছবি

কুমিল্লায় বিএনপির নেতা-কর্মীদের নিবার্চনী প্রচারণায় অংশ না নিতে নির্দেশ

ছবি

সরকার বিএনপিকে এবার টোপে ফেলতে পারবে না: মোশাররফ

আগামী নির্বাচনে আ’লী এককভাবে ক্ষমতায় যাওয়ার চেষ্টা করছে : ফখরুল

ছবি

শেখ হাসিনার বক্তব্য নিয়ে বিএনপি বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে: কাদের

মেয়র পদে ৬, কাউন্সিলরে ১৪৮ প্রার্থী বৈধ

ছবি

বিএনপি থেকে সাক্কুকে আজীবন বহিষ্কার

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য নিয়ে যা বললেন মির্জা ফখরুল

ছবি

ফখরুলের প্রশ্ন : পদ্মা সেতু কি ওনাদের পৈতৃক সম্পত্তি দিয়ে বানানো হয়েছে

জামায়াত-শিবিরের ৪৯ নেতাকর্মী আটক

জাজিরার ৬ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে অর্ধশত, অন্য পদে ৩৬৮ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা

tab

রাজনীতি

গণপিটুনি দিয়ে মারার আদেশঃ গণমাধ্যমকে দুষলেন সংসদ সদস্য ইব্রাহিম

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

সোমবার, ০৯ মে ২০২২

দুষ্কৃতকারীদের গণপিটুনি দিয়ে মেরে ফেলার আদেশ দিয়েছিলেন নোয়াখালী-১ (চাটখিল ও সোনাইমুড়ী আংশিক) আসনের সংসদ সদস্য এইচ এম ইব্রাহিম। তার সেই বক্তব্য সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। এ নিয়ে খবর প্রকাশের পর তিনি নিজের অবস্থান থেকে সরে এসেছেন। আর এখন তিনি এর জন্য দুষছেন গণমাধ্যমকে।

গত শুক্রবার সন্ধ্যায় একটি শোকসভায় গিয়ে বিচারবহির্ভূত হত্যার পক্ষে দেওয়া বক্তব্যকে ‘ভুল–বোঝাবুঝি’ হিসেবে মন্তব্য করেছেন জাতীয় সংসদের এই আইনপ্রণেতা।

শুক্রবার রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সংসদ সদস্য ইব্রাহিমের বক্তৃতার ৫৩ সেকেন্ডের একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে। এতে সংসদ সদস্য ইব্রাহিমকে বলতে শোনা যায়, ‘আমি হুকুম দিয়া দিচ্ছি, এই সমস্ত দুষ্কৃতকারীদের গণপিটুনি দিয়ে মেরে ফেললে কিছু হবে না। আপনারা যদি পারেন, আপনারা গণপিটুনি দিয়ে মেরে ফেলেন। যদি কেউ আসামি করে, আমি মামলার ১ নম্বর আসামি হব। যে আমি হুকুম দিয়ে গেছি, এটা আমি আপনাদের কথা দিয়ে গেলাম।’

গতকাল রোববার রাত সোয়া ১১টার দিকে এ বিষয়ে ফেইসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি। সেখানে ওই বক্তব্য ‘দেওয়া ঠিক হয়নি’ জানিয়ে এর জন্য ‘ক্ষমা’ চান সংসদ সদস্য ইব্রাহিম।

ইব্রাহিম এমপি তার ফেইসবুকে লিখেছেন, ‘প্রিয় চাটখিল-সোনাইমুড়ীবাসি। আসসালামু আলাইকুম। গত দুই-তিন দিন থেকে আমার একটি বক্তব্য বিভিন্ন মিডিয়ায় কাটছাঁট করে উপস্থাপনের মাধ্যমে সংবাদ পরিবেশন করা হচ্ছে। আমার মূল বক্তব্যটি ছিল ১৩ মিনিট ৫৫ সেকেন্ডের। কিন্তু সংবাদমাধ্যমের কোথাও ৫৫ সেকেন্ড, কোথাও আবার ১ মিনিট ২০ সেকেন্ডের ভিডিও তৈরি করে প্রকাশ করা হয়েছে। ফলে বিভিন্ন সচেতন মহলে ব্যাপক মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।’

এমপি ইব্রাহিম তার পোস্টে আরও লেখেন, ‘ওই দিন আমি আমার বক্তব্যের মাধ্যমে মূলত বোঝাতে চেয়েছি, আমি নিজে কোনো সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, চোর, ডাকাত, মাদক ব্যবসায়ী ও সেবনকারীকে আশ্রয়–প্রশ্রয় দিই না। তাদের বিরুদ্ধে কঠিন ব্যবস্থা নিতে আমি ওই বক্তব্যের সময় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদেরও নির্দেশনা দিয়েছি এবং উপস্থিত জনসাধারণকে জনমত তৈরি করে এই সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে আহ্বান জানিয়েছি এবং বলেছি, এতে করে কোনো সন্ত্রাসী মারা গেলে আমি ১ নম্বর আসামি হব, তবুও সমাজে শান্তি–শৃঙ্খলা বজায় রাখতে হবে।’

সংসদ সদস্য ইব্রাহিম ফেসইবুক পোস্টে আরও লেখেন, ‘আমার নির্বাচনী এলাকার কোনো মানুষ যখন তার কোনো অভিযোগ আমাকে জানায়, তখন মানুষ হিসেবে এটার প্রভাব আমার মাঝেও আসে। আর সে ক্ষেত্রে আবেগপ্রবণ হয়ে অসাবধানতাবশত কিছু কথা মুখ দিয়ে বের হয়ে গিয়েছে। একজন আইনপ্রণেতা হিসেবে আমার হয়তো আবেগপ্রবণ হয়ে এভাবে বক্তব্যটি দেওয়া ঠিক হয়নি।’

আইনপ্রণেতা হিসেবে আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল জানিয়ে এইচ এম ইব্রাহিম ফেইসবুক পোস্টে উল্লেখ করেন, যে ‘ভুল–বোঝাবুঝির’ সৃষ্টি হয়েছে, তার জন্য তিনি ‘আন্তরিকভাবে দুঃখিত’।

Shahriar Karim

back to top