alt

সারাদেশ

বাংলাদেশে ঢুকে পড়ল মায়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনীর আরও ৯ সদস্য

জেলা বার্তা পরিবেশক, কক্সবাজার : রোববার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

মায়ানমারে চলমান গৃহযুদ্ধের জের ধরে কক্সবাজার টেকনাফের কয়েকটি সীমান্ত দিয়ে মায়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) ৯ সদস্য বাংলাদেশে ঢুকে পড়েছে। অস্ত্র জমা নিয়ে বিজিবি তাদের হেফাজতে নিয়েছে।

রোববার (১৪ এপ্রিল) সকালে টেকনাফের কয়েকটি সীমান্ত দিয়ে এসব বিজিপি সদস্য পালিয়ে আসে বলে নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ ২ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. মহিউদ্দিন আহমেদ।

তবে ‍বিজিবির দায়িত্বশীল এক কর্মকর্তা বলেছেন, টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের ঝিমংখালী ও খারাংখালী সীমান্ত দিয়ে সশস্ত্র ৯ জন বিজিপি সদস্য পালিয়ে আসে। তাদের মধ্যে বেশ কয়েকজন আহত রয়েছে।

অস্ত্র জমা নিয়ে এ ৯ জনকে প্রথমে হ্নীলা উচ্চ বিদ্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। ওখান থেকে আহতদের বিজিবির নিজস্ব একটি অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সীমান্তের ওপারে মায়ানমারের রাখাইন রাজ্যে জান্তা বাহিনীর সঙ্গে বিদ্রোহী আরাকান আর্মির চলমান সংঘাত ব্যাপক আকার ধারণ করেছে। গেলো সপ্তাহব্যাপী মায়ানমার সীমান্ত থেকে ভেসে আসা গোলাগুলি ও মর্টার শেল বিস্ফোরণের বিকট শব্দে আতঙ্কে রয়েছে সীমান্তে বসবাসকারিরা। এ পরিস্থিতিতে মায়ানমারের আরও ৯ বিজিপি সদস্য বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে।

এদিকে, সংঘাতের কারণে মায়ানমারের বেশ কিছু বাহিনীর সদস্য কয়েক দফায় বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছেন।

সর্বশেষ গত ৩০ মার্চ মায়ানমার সেনাবাহিনীর ৩ জন সদস্য নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেন। এর আগে ১১ মার্চ আশ্রয় নেন আরও ১৭৭ জন বিজিপি ও সেনাসদস্য। তারা সবাই নাইক্ষ্যংছড়ি সদরে ১১ বিজিবি (বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ) হেফাজতে রয়েছেন। 

এর আগে গত ২ ফেব্রুয়ারি রাত থেকে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার সীমান্তের ওপারে আরাকান আর্মির সঙ্গে মায়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপির সংঘর্ষ শুরু হয়। এর জের ধরে ৪ ফেব্রুয়ারি থেকে ৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বাংলাদেশে পালিয়ে আসেন বিজিপিসহ ৩৩০ জন।

যার মধ্যে ৩০২ জন বিজিপি সদস্য, ৪ জন বিজিপি পরিবারের সদস্য, ২ জন সেনা সদস্য, ১৮ জন ইমিগ্রেশন সদস্য ও ৪ জন বেসামরিক নাগরিক ছিলেন। এদের ১৫ ফেব্রুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে ফেরত পাঠানো হয়।

ছবি

বাগেরহাটের পূর্ব-সুন্দরবনে ২৬টি মৃত হরিণ উদ্ধার

ছবি

রিমালের যাত্রাপথের গতি ধীর হওয়ায় ক্ষয়ক্ষতি বেড়েছে

ছবি

দেশে বৈধ-অবৈধ বিদেশি কর্মীর সংখ্যা জানতে চায় হাই কোর্ট

ছবি

সুন্দরবনে ২৬টি মৃত হরিণ মিলল

ছবি

গাজীপুরের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আত্মসাৎ করতে আমেরিকা প্রবাসীকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ

কালিয়াকৈরে কভার্ডভ্যান চাপায় গার্মেন্টস্ শ্রমিক নিহত

ছবি

ঝড়ে উদ্ধার কাজ করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ফায়ার ফাইটারের মৃত্যু

ছবি

৩৬ ঘণ্টা পর দৌলতদিয়ায় ফেরি চলাচল শুরু

ছবি

ঝড়ের রাতে প্রবাসীর বাড়িতে দাদি ও নাতিকে কুপিয়ে হত্যা

ছবি

কক্সবাজারে প্রায় ৩ কোটি টাকার মাদক উদ্ধার

ছবি

ভাবি হত্যার দায়ে দেবরের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

পৌনে ৩ কোটি গ্রাহকের বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন

ছবি

ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি, অন্তত ১২ জন নিহত

ছবি

লালমনিরহাটে স্ত্রীকে হত্যার , স্বামী আটক

ছবি

কক্সবাজারে বজ্রবৃষ্টি, উত্তাল সমুদ্রে বড় বড় ঢেউ

ছবি

উদ্দেশ্য প্রনোদিত ভাবে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে প্রতিবেদন প্রচার: সেনা প্রধান

ছবি

প্রবাসীর সঙ্গে নারীর বন্ধুত্ব, দেশে এলে সর্বস্ব কেড়ে নিতেন তারা

ছবি

এক সড়ক দুর্ঘটনায় আহত, হাসপাতাল নেওয়ার পথে আরেক দুর্ঘটনায় নিহত

ছবি

শাহ আমানত বিমানবন্দরের নিয়মিত কার্যক্রম শুরু

ছবি

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় ফেরি পারাপার বন্ধ

ছবি

গাজীপুরে গর্ভবতী নারীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা, একজন আটক

পীরগাছায় একজনকে পিটিয়ে হত্যা, গ্রেপ্তার ১

রাজশাহীতে রাস্তার পাশে মানবদেহের কাটা পা উদ্ধার

বাগেরহাটের মোংলা সমুদ্রবন্দরসহ সুন্দরবন উপকুলে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত, জলোচ্ছাসের তীব্রতা বৃদ্ধি

ছবি

এমপি সুমনের বিরুদ্ধে চেয়ারম্যান প্রার্থীর অভিযোগ

ছবি

বাগেরহাটে নদীর পানি বিপদসীমার ওপরে

ছবি

ঘূর্ণিঝড় রেমাল মোকাবিলায় বরগুনায় প্রস্তুত ৬৭৩টি আশ্রয়কেন্দ্র ও ৩টি মুজিব কিল্লা

ছবি

গাজীপুরের কোরবানির পশুর হাট কাঁপাবে ভাওয়াল রাজা

ছবি

রেমালের প্রভাবে উত্তাল সাগর, দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টিতে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

নারায়ণগঞ্জে সড়কে প্রাণ গেল অন্তঃসত্ত্বা নারীর

ছবি

৬০ জন যাত্রী নিয়ে মোংলায় নৌকাডুবি

ছবি

ঘূর্ণিঝড় রেমাল : কক্সবাজার ছাড়ছেন পর্যটকরা, বিমান উঠা নামা বন্ধ

ছবি

রিমালের প্রভাবে চাঁদপুর থেকে সবধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ

ছবি

ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’ আঘাত হানতে পারে রোববার সন্ধ্যায়

সব সাম্যের বেলায় বারবার নজরুল ফিরে আসেন আমাদের মাঝে: সমাজকল্যাণ মন্ত্রী

ঘূণিঝড় রেমালের প্রভাব,বরগুনায় বেড়েছে জোয়ারের পানি, প্লাবিত হচ্ছে নিম্নাঞ্চল,প্রশাসনের প্রস্ততি সভা

tab

সারাদেশ

বাংলাদেশে ঢুকে পড়ল মায়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনীর আরও ৯ সদস্য

জেলা বার্তা পরিবেশক, কক্সবাজার

রোববার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

মায়ানমারে চলমান গৃহযুদ্ধের জের ধরে কক্সবাজার টেকনাফের কয়েকটি সীমান্ত দিয়ে মায়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) ৯ সদস্য বাংলাদেশে ঢুকে পড়েছে। অস্ত্র জমা নিয়ে বিজিবি তাদের হেফাজতে নিয়েছে।

রোববার (১৪ এপ্রিল) সকালে টেকনাফের কয়েকটি সীমান্ত দিয়ে এসব বিজিপি সদস্য পালিয়ে আসে বলে নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ ২ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. মহিউদ্দিন আহমেদ।

তবে ‍বিজিবির দায়িত্বশীল এক কর্মকর্তা বলেছেন, টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের ঝিমংখালী ও খারাংখালী সীমান্ত দিয়ে সশস্ত্র ৯ জন বিজিপি সদস্য পালিয়ে আসে। তাদের মধ্যে বেশ কয়েকজন আহত রয়েছে।

অস্ত্র জমা নিয়ে এ ৯ জনকে প্রথমে হ্নীলা উচ্চ বিদ্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। ওখান থেকে আহতদের বিজিবির নিজস্ব একটি অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সীমান্তের ওপারে মায়ানমারের রাখাইন রাজ্যে জান্তা বাহিনীর সঙ্গে বিদ্রোহী আরাকান আর্মির চলমান সংঘাত ব্যাপক আকার ধারণ করেছে। গেলো সপ্তাহব্যাপী মায়ানমার সীমান্ত থেকে ভেসে আসা গোলাগুলি ও মর্টার শেল বিস্ফোরণের বিকট শব্দে আতঙ্কে রয়েছে সীমান্তে বসবাসকারিরা। এ পরিস্থিতিতে মায়ানমারের আরও ৯ বিজিপি সদস্য বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে।

এদিকে, সংঘাতের কারণে মায়ানমারের বেশ কিছু বাহিনীর সদস্য কয়েক দফায় বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছেন।

সর্বশেষ গত ৩০ মার্চ মায়ানমার সেনাবাহিনীর ৩ জন সদস্য নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেন। এর আগে ১১ মার্চ আশ্রয় নেন আরও ১৭৭ জন বিজিপি ও সেনাসদস্য। তারা সবাই নাইক্ষ্যংছড়ি সদরে ১১ বিজিবি (বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ) হেফাজতে রয়েছেন। 

এর আগে গত ২ ফেব্রুয়ারি রাত থেকে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার সীমান্তের ওপারে আরাকান আর্মির সঙ্গে মায়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপির সংঘর্ষ শুরু হয়। এর জের ধরে ৪ ফেব্রুয়ারি থেকে ৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বাংলাদেশে পালিয়ে আসেন বিজিপিসহ ৩৩০ জন।

যার মধ্যে ৩০২ জন বিজিপি সদস্য, ৪ জন বিজিপি পরিবারের সদস্য, ২ জন সেনা সদস্য, ১৮ জন ইমিগ্রেশন সদস্য ও ৪ জন বেসামরিক নাগরিক ছিলেন। এদের ১৫ ফেব্রুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে ফেরত পাঠানো হয়।

back to top