alt

রাজনীতি

সাহস করে এগিয়ে গেলেই পালিয়ে যাবে তারা : গণতন্ত্র মঞ্চ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : মঙ্গলবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ভয় না পেলেই তাদের (সরকারের) অস্ত্র ভোঁতা হয়ে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন গণতন্ত্র মঞ্চের নেতা ও গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি। তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকারের পালানোর সব ব্যবস্থা তৈরি হয়ে আছে। এখন সময়ের অপেক্ষা মাত্র। আপনি যখন আর ভয় পাবেন না, তখন ওদের অস্ত্র ভোঁতা হয়ে যাবে। তাই রাজপথে নামুন। সেই প্রস্তুতি গ্রহণ করা দরকার। সরকারকে আমাদের সমুচিত জবাব দিতে হবে। আমরা ওটা দিলেই তারা ক্ষমতা থেকে পালিয়ে যাবে।’

আজ মঙ্গলবার রাজধানীর মতিঝিলে বাংলাদেশ ব্যাংকের সামনে আয়োজিত সমাবেশে গণতন্ত্র মঞ্চের নেতা–কর্মীদের উদ্দেশে জোনায়েদ সাকি এসব কথা বলেন। ‘সরকারের পদত্যাগ, অন্তর্র্বতী সরকারের অধীনে নির্বাচন এবং খালেদা জিয়াসহ সব রাজবন্দীর মুক্তি ও সংবিধান সংস্কার করে গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার দাবিতে এই সমাবেশ ও গণমিছিল কর্মসূচির আয়োজন করে গণতন্ত্র মঞ্চ। সমাবেশ শেষে টিকাটুলী মোড় পর্যন্ত গণমিছিল করেন মঞ্চের নেতা–কর্মীরা।

গণমিছিল–পূর্ব সমাবেশে জোনায়েদ সাকি বলেন, ‘চলমান কর্মসূচির ধারাবাহিকতায় অক্টোবরে আন্দোলন আরও উত্তাল হবে। সরকার যদি তফসিল ঘোষণার চেষ্টা করে, একতরফা নির্বাচন করার চেষ্টা করে, জনগণ রাজপথে নেমে গলায় গামছা বেঁধে তাদের ক্ষমতা থেকে নামাবে।’

বিএনপির নেতা-কর্মীদের দ্রুত সাজা দিতে রাত আটটা পর্যন্ত বিচার বিভাগকে সরকার ব্যস্ত রাখছে বলেও অভিযোগ করেন জোনায়েদ সাকি। তিনি বলেন, ‘তারা নানানভাবে সাক্ষী নিয়ে এসে দ্রুত বিচার করে বিএনপির নেতাদের একে একে জেলে ভরার ব্যবস্থা করছে। কেবল বিএনপি নয়, মানবাধিকার সংগঠনগুলোকেও তারা ছাড় দিচ্ছে না। এই সরকার এতটাই ভয় পেয়েছে যে তারা এখন গণতন্ত্র মঞ্চকেও ছাড় দিচ্ছে না।’

সমাবেশে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেন, ‘যে সরকার ক্ষুদ্র প্রাণী ডেঙ্গু মশা নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না, সেই সরকার কীভাবে দেশ চালাবে। তারা বাজার নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না। এত বছর ধরে জেনে এসেছি ডিমসহ কয়েকটি পণ্যে আমরা স্বয়ংসম্পূর্ণ। কী দুর্ভাগ্য, এখন ডিম ভারত থেকে আমদানি করতে হচ্ছে।’

ভাসানী অনুসারী পরিষদের আহ্বায়ক শেখ রফিকুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশে একতরফা নির্বাচন আর হবে না। বুকের রক্ত দিয়ে হলেও একতরফা নির্বাচন প্রতিহত করা হবে।

সমাবেশে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সাধারণ সম্পাদক শহীদউদ্দিন মাহমুদ বলেন, ‘অতীতের স্বৈরশাসকেরা যেভাবে পালিয়েছে, জনরোষে পড়েছে, আপনাদেরও (আওয়ামী লীগ) বাঁচার সুযোগ নেই।’

ছবি

বিএনপির টপ টু বটম- সবাই দুর্নীতিবাজ : কাদের

ছবি

দেশে ফিরেছেন ওবায়দুল কাদের

ছবি

সাধারণ নাগরিকের মত করেই ড. ইউনূসের বিচার হচ্ছে : আইনমন্ত্রী

ছবি

বিএনপির ৭ আইনজীবীকে ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে অব্যাহতি

উপজেলা নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতি কম হলেও সহিংসতা না থাকা স্বস্তিদায়ক : সিইসি

ছবি

দেশকে ‘বিক্রি’ করে দিচ্ছে, করেছে ‘পরনির্ভরশীল’ : ফখরুল

ছবি

খেলাপি ঋণের লাগাম টানতে সব প্রকার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে : আইনমন্ত্রী

ছবি

বিএনপি’র লুটপাটের রাজত্ব থেকে দেশকে রক্ষা করেছেন শেখ হাসিনা : কাদের

ছবি

খালেদা জিয়াও কালো টাকা সাদা করেছেন, তিনি কি দুর্বৃত্ত

কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় চলছে ভোটগ্রহন

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য ‘ধূম্রজাল সৃষ্টির কৌশল’ : ফখরুল

ছবি

অর্থনেতিক সংকটকালে এই বাজেট গণমুখী ও বাস্তবসম্মত : কাদের

ছবি

ছয় দফা যারা মানে না তারা স্বাধীনতায় বিশ্বাসী না : ওবায়দুল কাদের

ছবি

বাজেটে উৎপাদক পর্যায়ে কৃষক যাতে কৃষি পন্যের ন্যায্য মূল্য পায় তা নিশ্চিত করার দাবী গণতন্ত্রী পার্টির

ছবি

প্রস্তাবিত বাজেট বাস্তব সম্মত গণমুখী : ওবায়দুল কাদের

ছবি

বাঁশখালীতে খোরশেদ আলম চেয়ারম্যান, নুরীমন ও হোছাইন ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত

সখীপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জয়ী অধ্যক্ষ সাঈদ আজাদ

ছবি

উপজেলায় চতুর্থ ধাপে ভোটের হার ৩৪.৩৩ শতাংশ : সিইসি

ছবি

সাবেক ছাত্রনেতা শফি আহমেদ মারা গেছেন

বড় ভাইয়ের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারনার অভিযোগে টিসিবির অতিরিক্ত পরিচালককে রিটানিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে তলব

ছবি

টঙ্গীবাড়িতে বিএনপির সভামঞ্চে আ’লীগ দলীয় ইউপি চেয়ারম্যান, ভিডিও ভাইরাল

ছবি

জবি ও সূত্রাপুর থানা ছাত্রলীগের কর্মীদের মারামারি, আহত ৪

ছবি

বেনজীরকে দেশে ফিরে আসতেই হবে : ওবায়দুল কাদের

ছবি

সাবেক আইজিপি বেন‌জিরকে সরকার দেশ ত্যা‌গে সহায়তা ক‌রে‌ছে: মীর্জা ফখরুল

ছবি

‘উপকূলীয় অঞ্চলে বৃক্ষরোপণ ঘূর্ণিঝড়ের ক্ষতি কমাবে’

ছবি

পৃথিবীর কোনো দেশেই গণতন্ত্র পারফেক্ট নয় : ওবায়দুল কাদের

রংপুরে উপজেলা নির্বাচনে বিএনপির বহিস্কৃত নেতা নির্বাচিত,আওয়ামী লীগে ব্যাপক তোলপাড়

ছবি

ছাত্র মৈত্রীর ১৬তম কাউন্সিল,সমাবেশ ও শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত

ছবি

পবা ও মোহনপুর উপজেলা নির্বাচনে সংঘর্ষ , আহত ১৩

ছবি

আরও ৩ উপজেলায় ভোট স্থগিত

ছবি

আজিজ-বেনজীর কার সৃষ্টি, প্রশ্ন ফখরুলের

গঙ্গাচড়া উপজেলা নির্বাচনে এমপি বাবলুকে প্রচারনা থেকে বিরত থাকার নির্দেশ

ফরিদপুর - ৪ আসনের এমপি নিক্সন চৌধুরীকে শোকজ

ছবি

দুর্যোগের মধ্যে তারেককে ফেরানোর বক্তব্যে ক্ষুব্ধ: বিএনপি র স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান

ছবি

ঘূর্ণিঝড় রেমালে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে যাবেন প্রধানমন্ত্রী : ওবায়দুল কাদের

ফরিদপুরে নিক্সন চৌধুরী এমপির বিরুদ্ধে অভিযোগ চেয়ারম্যান প্রার্থীর

tab

রাজনীতি

সাহস করে এগিয়ে গেলেই পালিয়ে যাবে তারা : গণতন্ত্র মঞ্চ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

মঙ্গলবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ভয় না পেলেই তাদের (সরকারের) অস্ত্র ভোঁতা হয়ে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন গণতন্ত্র মঞ্চের নেতা ও গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি। তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকারের পালানোর সব ব্যবস্থা তৈরি হয়ে আছে। এখন সময়ের অপেক্ষা মাত্র। আপনি যখন আর ভয় পাবেন না, তখন ওদের অস্ত্র ভোঁতা হয়ে যাবে। তাই রাজপথে নামুন। সেই প্রস্তুতি গ্রহণ করা দরকার। সরকারকে আমাদের সমুচিত জবাব দিতে হবে। আমরা ওটা দিলেই তারা ক্ষমতা থেকে পালিয়ে যাবে।’

আজ মঙ্গলবার রাজধানীর মতিঝিলে বাংলাদেশ ব্যাংকের সামনে আয়োজিত সমাবেশে গণতন্ত্র মঞ্চের নেতা–কর্মীদের উদ্দেশে জোনায়েদ সাকি এসব কথা বলেন। ‘সরকারের পদত্যাগ, অন্তর্র্বতী সরকারের অধীনে নির্বাচন এবং খালেদা জিয়াসহ সব রাজবন্দীর মুক্তি ও সংবিধান সংস্কার করে গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার দাবিতে এই সমাবেশ ও গণমিছিল কর্মসূচির আয়োজন করে গণতন্ত্র মঞ্চ। সমাবেশ শেষে টিকাটুলী মোড় পর্যন্ত গণমিছিল করেন মঞ্চের নেতা–কর্মীরা।

গণমিছিল–পূর্ব সমাবেশে জোনায়েদ সাকি বলেন, ‘চলমান কর্মসূচির ধারাবাহিকতায় অক্টোবরে আন্দোলন আরও উত্তাল হবে। সরকার যদি তফসিল ঘোষণার চেষ্টা করে, একতরফা নির্বাচন করার চেষ্টা করে, জনগণ রাজপথে নেমে গলায় গামছা বেঁধে তাদের ক্ষমতা থেকে নামাবে।’

বিএনপির নেতা-কর্মীদের দ্রুত সাজা দিতে রাত আটটা পর্যন্ত বিচার বিভাগকে সরকার ব্যস্ত রাখছে বলেও অভিযোগ করেন জোনায়েদ সাকি। তিনি বলেন, ‘তারা নানানভাবে সাক্ষী নিয়ে এসে দ্রুত বিচার করে বিএনপির নেতাদের একে একে জেলে ভরার ব্যবস্থা করছে। কেবল বিএনপি নয়, মানবাধিকার সংগঠনগুলোকেও তারা ছাড় দিচ্ছে না। এই সরকার এতটাই ভয় পেয়েছে যে তারা এখন গণতন্ত্র মঞ্চকেও ছাড় দিচ্ছে না।’

সমাবেশে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেন, ‘যে সরকার ক্ষুদ্র প্রাণী ডেঙ্গু মশা নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না, সেই সরকার কীভাবে দেশ চালাবে। তারা বাজার নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না। এত বছর ধরে জেনে এসেছি ডিমসহ কয়েকটি পণ্যে আমরা স্বয়ংসম্পূর্ণ। কী দুর্ভাগ্য, এখন ডিম ভারত থেকে আমদানি করতে হচ্ছে।’

ভাসানী অনুসারী পরিষদের আহ্বায়ক শেখ রফিকুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশে একতরফা নির্বাচন আর হবে না। বুকের রক্ত দিয়ে হলেও একতরফা নির্বাচন প্রতিহত করা হবে।

সমাবেশে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সাধারণ সম্পাদক শহীদউদ্দিন মাহমুদ বলেন, ‘অতীতের স্বৈরশাসকেরা যেভাবে পালিয়েছে, জনরোষে পড়েছে, আপনাদেরও (আওয়ামী লীগ) বাঁচার সুযোগ নেই।’

back to top