alt

সম্পাদকীয়

বিষ ঢেলে মাছ নিধনের অভিযোগ আমলে নিন

: সোমবার, ০৮ এপ্রিল ২০২৪

কুড়িগ্রামের উলিপুরে পূর্ব নাওডাঙ্গার বিলে বিষ ঢেলে মাছ চাষির মাছ নিধন করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বিলের প্রায় সব মাছ মরে ভেসে উঠেছে। ফলে মাছ চাষির পাঁচ লাখ টাকা ক্ষতি হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত শনিবার রাতে। বিলের চাষ করা মাছ হারিয়ে এখন দিশেহারা মাছ চাষি। স্থানীয় প্রশাসনের কাছে এ ঘটনার প্রতিকার চেয়েছেন তিনি।

বিষ প্রয়োগে মাছ চাষির বিলে মাছ নিধনের ঘটনা নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ঘটনাস্থল পরিদর্শনও করেছে। লিখিত অভিযোগ পেলে তারা তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে বলে আশ্বাসও দিয়েছে মাছ চাষিকে।

মোট সাত একর জায়গাজুড়ে রয়েছে পূর্ব-নাওডাঙ্গার বিলটি। বিলটি পাঁচ বছরের জন্য লিজ নেন স্থানীয় একজন মাছ চাষি। বিলে রুই, মৃগেল, কাতলা, সিলভারকার্প, বিটকার্প ও বিভিন্ন প্রজাতির ছোট ছোট দেশি মাছের চাষ হয়। বিষ ঢেলে দেয়ার ফলে শুধু যে মরা মাছ ভেসে উঠেছে তা না। ছানা, পোনা, ডিমসহ সব মাছই মারা পড়েছে। পাশপাশি বিষক্রিয়ায় সাপ, ব্যাঙ ও নানান প্রজাতির জলজ প্রাণীও মারা পড়েছে। প্রাণপ্রকৃতি হত্যার ফলে নষ্ট হচ্ছে প্রকৃতির ভারসাম্য।

বিষ ঢেলে মাছ নিধনের এ ধরনের ঘটনা শুধু উলিপুরে ‘পূর্ব-নাওডাঙ্গা’র বিলেই ঘটেছে তা নয়, দেশের অন্যান্য এলাকাতেও এসব ঘটনা ঘটে। যা বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে দেখা যায়। এসব ঘটনা ঘটে থাকে হয় পূর্ব শত্রুতার জেরে না হয় অতি মুনাফার লোভের কারণে। অনেক সময় মা মাছ নিধন করা হয়। মাছের শারীরিক গঠন বৃদ্ধির জন্য ক্ষতিকারক রাসায়নিক পদার্থও ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

বিষ দিয়ে মাছ নিধনের মানসিকতা বদলাতে হবে। সাময়িক কিছু সুবিধার জন্য বা কাউকে ক্ষতিগ্রস্ত করার জন্য জলজ পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট করা কাম্য নয়। বিষ দিয়ে মাছ নিধনে পরিবেশের যে ক্ষতি হয় তার জন্য একদিন মানুষকে চরম মূল্য দিতে হবে। তাই এ বিষয়ে মানুষকে সচেতন করতে হবে। যারা বিষ দিয়ে মাছ নিধন করে তাদের বিরুদ্ধে আইন প্রয়োগ করতে হবে। এক্ষেত্রে কোনো শৈথিল্য দেখানোর সুযোগ নেই। শৈথিল্য দেখালে একদিন মানুষকে চরম বিপর্যয়ের মুখোমুখি হতে হবে।

ধনাগোদা নদী সংস্কার করুন

স্কুলের খেলার মাঠ রক্ষা করুন

চাটখিলের ‘জাতীয় তথ্য বাতায়ন’ হালনাগাদ করুন

মাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের অভিনন্দন, যারা ভালো করেনি তাদের পাশে থাকতে হবে

মিঠাপুকুরে ফসলি জমির টপসয়েল কাটা বন্ধের উদ্যোগ নিন

সড়কে নসিমন, করিমন ও ভটভটি চলাচল বন্ধ করুন

কালীহাতির খরশীলা সেতুর সংযোগ সড়ক সংস্কারে আর কত অপেক্ষা

গতিসীমা মেনে যান চলাচল নিশ্চিত করতে হবে

সাটুরিয়ার সমিতির গ্রাহকদের টাকা আদায়ে ব্যবস্থা নিন

ইভটিজারদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা নিন

ধোবাউড়ায় ঋণের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আমলে নিন

বজ্রপাত থেকে বাঁচতে চাই সচেতনতা

ডুমুরিয়ার বেড়িবাঁধের দখল হওয়া জমি উদ্ধারে ব্যবস্থা নিন

পুড়ছে সুন্দরবন

কাজ না করে প্রকল্পের টাকা তুলে নেয়ার অভিযোগ সুরাহা করুন

সরকারি খালে বাঁধ কেন

কৃষকদের ভুট্টার ন্যায্য দাম পেতে ব্যবস্থা নিন

সরকারি হাসপাতালে প্রয়োজনীয় জনবল নিয়োগ দিন

কালীগঞ্জে ফসলিজমির মাটি কাটায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন

নির্বিচারে বালু তোলা বন্ধ করুন

খাবার পানির সংকট দূর করুন

গরম কমছে না কেন

মধুপুর বন রক্ষায় ব্যবস্থা নিন

সড়ক দুর্ঘটনার হতাশাজনক চিত্র

সখীপুরে বংশাই নদীতে সেতু চাই

ইটভাটায় ফসলের ক্ষতি : এর দায় কার

টাঙ্গাইলে জলাশয় দখলের অভিযোগের সুরাহা করুন

অবৈধ বালু তোলা বন্ধে ব্যবস্থা নিন

টিসিবির পণ্য : ওজনে কম দেয়ার অভিযোগ আমলে নিন

ভৈরব নদে সেতু নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ আমলে নিন

ডায়রিয়া প্রতিরোধে চাই জনসচেতনতা

ফিটনেসবিহীন গণপরিবহন সড়কে চলছে কীভাবে

গোবিন্দগঞ্জে নিয়মনীতি উপেক্ষা করে গাছ কাটার অভিযোগ আমলে নিন

নিষেধাজ্ঞা চলাকালে জেলেদের বিকল্প কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা জরুরি

অগ্নিনির্বাপণ সরঞ্জাম ব্যবহারে চাই সচেতনতা

অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন

tab

সম্পাদকীয়

বিষ ঢেলে মাছ নিধনের অভিযোগ আমলে নিন

সোমবার, ০৮ এপ্রিল ২০২৪

কুড়িগ্রামের উলিপুরে পূর্ব নাওডাঙ্গার বিলে বিষ ঢেলে মাছ চাষির মাছ নিধন করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বিলের প্রায় সব মাছ মরে ভেসে উঠেছে। ফলে মাছ চাষির পাঁচ লাখ টাকা ক্ষতি হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত শনিবার রাতে। বিলের চাষ করা মাছ হারিয়ে এখন দিশেহারা মাছ চাষি। স্থানীয় প্রশাসনের কাছে এ ঘটনার প্রতিকার চেয়েছেন তিনি।

বিষ প্রয়োগে মাছ চাষির বিলে মাছ নিধনের ঘটনা নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ঘটনাস্থল পরিদর্শনও করেছে। লিখিত অভিযোগ পেলে তারা তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে বলে আশ্বাসও দিয়েছে মাছ চাষিকে।

মোট সাত একর জায়গাজুড়ে রয়েছে পূর্ব-নাওডাঙ্গার বিলটি। বিলটি পাঁচ বছরের জন্য লিজ নেন স্থানীয় একজন মাছ চাষি। বিলে রুই, মৃগেল, কাতলা, সিলভারকার্প, বিটকার্প ও বিভিন্ন প্রজাতির ছোট ছোট দেশি মাছের চাষ হয়। বিষ ঢেলে দেয়ার ফলে শুধু যে মরা মাছ ভেসে উঠেছে তা না। ছানা, পোনা, ডিমসহ সব মাছই মারা পড়েছে। পাশপাশি বিষক্রিয়ায় সাপ, ব্যাঙ ও নানান প্রজাতির জলজ প্রাণীও মারা পড়েছে। প্রাণপ্রকৃতি হত্যার ফলে নষ্ট হচ্ছে প্রকৃতির ভারসাম্য।

বিষ ঢেলে মাছ নিধনের এ ধরনের ঘটনা শুধু উলিপুরে ‘পূর্ব-নাওডাঙ্গা’র বিলেই ঘটেছে তা নয়, দেশের অন্যান্য এলাকাতেও এসব ঘটনা ঘটে। যা বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে দেখা যায়। এসব ঘটনা ঘটে থাকে হয় পূর্ব শত্রুতার জেরে না হয় অতি মুনাফার লোভের কারণে। অনেক সময় মা মাছ নিধন করা হয়। মাছের শারীরিক গঠন বৃদ্ধির জন্য ক্ষতিকারক রাসায়নিক পদার্থও ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

বিষ দিয়ে মাছ নিধনের মানসিকতা বদলাতে হবে। সাময়িক কিছু সুবিধার জন্য বা কাউকে ক্ষতিগ্রস্ত করার জন্য জলজ পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট করা কাম্য নয়। বিষ দিয়ে মাছ নিধনে পরিবেশের যে ক্ষতি হয় তার জন্য একদিন মানুষকে চরম মূল্য দিতে হবে। তাই এ বিষয়ে মানুষকে সচেতন করতে হবে। যারা বিষ দিয়ে মাছ নিধন করে তাদের বিরুদ্ধে আইন প্রয়োগ করতে হবে। এক্ষেত্রে কোনো শৈথিল্য দেখানোর সুযোগ নেই। শৈথিল্য দেখালে একদিন মানুষকে চরম বিপর্যয়ের মুখোমুখি হতে হবে।

back to top