alt

সম্পাদকীয়

পরীক্ষার্থীদের জন্য শুভ কামনা

: শনিবার, ১৩ নভেম্বর ২০২১

এসএসসি, দাখিল ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হচ্ছে রোববার। এতে অংশগ্রহণ করছে ২২ লাখেরও বেশি পরীক্ষার্থী। ২০২০ সালের তুলনায় এবার মোট পরীক্ষার্থী বেড়েছে ১ লাখ ৭৯ হাজার ৩৩৪ জন। মোট তিন হাজার ৬৭৯টি কেন্দ্রে এবারের এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

বৈশ্বিক মহামারীর মধ্যে দেশে এবারই প্রথম কোন বড় পাবলিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। করোনা মহামারীর কারণে গত বছর এসএসসি, দাখিল ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়নি। পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা ছাড়াই উত্তীর্ণ (অটোপাস) ঘোষণা করা হয়। অবশ্য এটা নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে অনেক আলোচনা-সমালোচনা হয়েছে।

এবার শুধু বিভাগভিত্তিক নৈর্বাচনিক তিনটি বিষয়ের পরীক্ষা দেবে শিক্ষার্থীরা। তাও সংক্ষিপ্ত সিলেবাস অনুযায়ী। তিন ঘণ্টার পরিবর্তে পরীক্ষা হবে দেড় ঘণ্টায়। মহামারীর কথা চিন্তা করে বাংলা, ইংরেজি গণিতের মতো আবশ্যিক বিষয়ের পরীক্ষা হচ্ছে না। যদিও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মানদন্ড অনুযায়ী দেশে করোনা সংক্রমণ এখন নিয়ন্ত্রণের মধ্যে আছে।

জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ অনুযায়ী সিলেবাস সংক্ষিপ্ত করা হয়েছে বলে জানা গেছে। শিক্ষাবিদদের মতে, অটোপাস দেয়ার চেয়ে এটা ভালো উদ্যোগ। আবার সিলেবাস কমিয়ে দেয়ার বিষয়টিতে ভালো এবং খারাপ দুটো দিকই আছে বলে অনেক শিক্ষাবিদ মনে করেন। তাদের মতে, সিলেবাস কম থাকার কারণে পরীক্ষা দিতে শিক্ষার্থীদের সুবিধা হবে। পরীক্ষায় ভালো ফলাফলও করতে পারবে। কিন্তু সমস্যা হবে উচ্চশিক্ষায় ভর্তির ক্ষেত্রে।

এবার সংক্ষিপ্ত আকারে পরীক্ষা নেয়া হচ্ছে। তাতে অন্ততপক্ষে অটোপাসের মতো সমালোচনা হবে না বলে আশা করা যায়। আমরা আশা করি, দ্রুতই স্বাভাবিক শিক্ষা কার্যক্রমে সবাই ফিরতে পারবে। সে লক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের টিকা দেয়া শুরু হয়েছে।

এবার এসএসসি পরীক্ষা হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি মেনে। শিক্ষার্থীরা পূর্ণাঙ্গ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবে বলে আমাদের প্রত্যাশা। বিশেষ করে অভিভাবকদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। নিজেদের এবং সন্তানদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য এটা জরুরি। পরীক্ষাকেন্দ্রের আশপাশে অকারণ ভিড় কাম্য নয়।

এসএসসি, দাখিল ও সমমানের পরীক্ষার্থীদের জন্য শুভ কামানা।

সংকটে সংবাদপত্রশিল্প প্রয়োজন প্রণোদনা

প্রান্তিক মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করুন

উপকূলে জলদস্যুদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রাখতে হবে

পুরুষতান্ত্রিক সমাজের একজন প্রতিনিধি

পিইসি পরীক্ষা নিয়ে বিভ্রান্তি দূর করুন

জননিরাপত্তাকে অগ্রাধিকার দিয়ে রেলক্রসিংগুলো সুরক্ষিত করুন

বিমানবন্দরগুলোর নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন

সড়কে শৃঙ্খলা ফিরবে নাকি যেমন আছে তেমনই থাকবে

রেলের উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ কতকাল ধরে চলতে থাকবে

‘বন্দুকযুদ্ধ’ কোন সমাধান নয়

এইডস প্রতিরোধে চাই জনসচেতনতা

সীমান্ত হত্যা বন্ধে প্রতিশ্রুতি রক্ষা করুন

পার্বত্য চুক্তির পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন জরুরি

শর্তযুক্ত ‘হাফ পাস’

সড়ক দুর্ঘটনায় এত শিক্ষার্থী মারা যাচ্ছে কেন

পশুর চ্যানেলে বাল্কহেড চলাচল বন্ধ করুন

ইউপি নির্বাচনে সহিংসতা ও ইসি’র দাবি

ফ্রাঞ্চাইজিভিত্তিক বাস সার্ভিস কবে আলোর মুখ দেখবে

করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ‘ওমিক্রন’ মোকাবিলায় চাই সার্বিক প্রস্তুতি

পাহাড় দখল কি চলতেই থাকবে

নারী ক্রিকেটের আরেকটি মাইলফলক

যক্ষ্মা ও এইডস রোগ নির্মূল কর্মসূচি প্রসঙ্গে

সড়কে মৃত্যুর মিছিল বন্ধ হোক

ফিটনেসছাড়া ফেরিগুলো চলছে কীভাবে

বায়ুদূষণ রোধে সমন্বিত প্রচেষ্টা চালাতে হবে

সড়ক দুর্ঘটনায় ঝরছে প্রাণ

রাষ্ট্রপতির সময়োপযোগী আহ্বান

অভিনন্দন সুপ্তা, নারী ক্রীড়াবিদদের জয়যাত্রা অব্যাহত থাকুক

নারীর সুরক্ষায় আইনের কঠোর প্রয়োগ ঘটাতে হবে

শিক্ষার্থীদের ‘হাফ পাসের’ দাবি বিবেচনা করুন

দুদকের কাজ কঠিন তবে অসম্ভব নয়

ড্যাপের খসড়া : অংশীজনদের যৌক্তিক মত গ্রহণ করা জরুরি

করোনার সংক্রমণ কমলেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে

দক্ষিণাঞ্চলে ফায়ার সার্ভিসের সমস্যা দূর করুন

আইসিটি শিক্ষক সংকট দূর করুন

শৌচাগার সংকট থেকে রাজধানীবাসীকে উদ্ধার করুন

tab

সম্পাদকীয়

পরীক্ষার্থীদের জন্য শুভ কামনা

শনিবার, ১৩ নভেম্বর ২০২১

এসএসসি, দাখিল ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হচ্ছে রোববার। এতে অংশগ্রহণ করছে ২২ লাখেরও বেশি পরীক্ষার্থী। ২০২০ সালের তুলনায় এবার মোট পরীক্ষার্থী বেড়েছে ১ লাখ ৭৯ হাজার ৩৩৪ জন। মোট তিন হাজার ৬৭৯টি কেন্দ্রে এবারের এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

বৈশ্বিক মহামারীর মধ্যে দেশে এবারই প্রথম কোন বড় পাবলিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। করোনা মহামারীর কারণে গত বছর এসএসসি, দাখিল ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়নি। পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা ছাড়াই উত্তীর্ণ (অটোপাস) ঘোষণা করা হয়। অবশ্য এটা নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে অনেক আলোচনা-সমালোচনা হয়েছে।

এবার শুধু বিভাগভিত্তিক নৈর্বাচনিক তিনটি বিষয়ের পরীক্ষা দেবে শিক্ষার্থীরা। তাও সংক্ষিপ্ত সিলেবাস অনুযায়ী। তিন ঘণ্টার পরিবর্তে পরীক্ষা হবে দেড় ঘণ্টায়। মহামারীর কথা চিন্তা করে বাংলা, ইংরেজি গণিতের মতো আবশ্যিক বিষয়ের পরীক্ষা হচ্ছে না। যদিও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মানদন্ড অনুযায়ী দেশে করোনা সংক্রমণ এখন নিয়ন্ত্রণের মধ্যে আছে।

জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ অনুযায়ী সিলেবাস সংক্ষিপ্ত করা হয়েছে বলে জানা গেছে। শিক্ষাবিদদের মতে, অটোপাস দেয়ার চেয়ে এটা ভালো উদ্যোগ। আবার সিলেবাস কমিয়ে দেয়ার বিষয়টিতে ভালো এবং খারাপ দুটো দিকই আছে বলে অনেক শিক্ষাবিদ মনে করেন। তাদের মতে, সিলেবাস কম থাকার কারণে পরীক্ষা দিতে শিক্ষার্থীদের সুবিধা হবে। পরীক্ষায় ভালো ফলাফলও করতে পারবে। কিন্তু সমস্যা হবে উচ্চশিক্ষায় ভর্তির ক্ষেত্রে।

এবার সংক্ষিপ্ত আকারে পরীক্ষা নেয়া হচ্ছে। তাতে অন্ততপক্ষে অটোপাসের মতো সমালোচনা হবে না বলে আশা করা যায়। আমরা আশা করি, দ্রুতই স্বাভাবিক শিক্ষা কার্যক্রমে সবাই ফিরতে পারবে। সে লক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের টিকা দেয়া শুরু হয়েছে।

এবার এসএসসি পরীক্ষা হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি মেনে। শিক্ষার্থীরা পূর্ণাঙ্গ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবে বলে আমাদের প্রত্যাশা। বিশেষ করে অভিভাবকদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। নিজেদের এবং সন্তানদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য এটা জরুরি। পরীক্ষাকেন্দ্রের আশপাশে অকারণ ভিড় কাম্য নয়।

এসএসসি, দাখিল ও সমমানের পরীক্ষার্থীদের জন্য শুভ কামানা।

back to top