alt

সম্পাদকীয়

প্রকৃত উপকারভোগীদের বয়স্ক ভাতা নিশ্চিত করুন

: শনিবার, ১৩ মে ২০২৩

প্রান্তিক জনগোষ্ঠী তথা বৃদ্ধ, বিধবা, দুস্থ ও প্রতিবন্ধী মানুষকে সহায়তা করার জন্য দেশে বিভিন্ন ধরনের মাসিক ভাতা চালু রয়েছে। সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় পুরুষদের ক্ষেত্রে ন্যূনতম ৬৫ বছর এবং নারীদের ক্ষেত্রে ৬২ বছর বয়সীরা বয়স্ক ভাতার জন্য তালিকাভুক্ত হন। এছাড়া ‘বিধবা ও স্বামী নিগৃহীত মহিলা ভাতা’ বা ‘বিধবা ভাতা’ও চালু রয়েছে।

টাঙ্গাইলের মরনী রাজবংশীর বয়স হয়েছে ৯৪ বছর। এখনো তিনি পাননি বয়স্ক ভাতার কার্ড। জনপ্রতিনিধিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও মেলেনি কার্ড। তার প্রশ্ন, আর কত বয়স হলে ভাতার কার্ড পাব? এ নিয়ে গত শনিবার সংবাদ-এ বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে।

সমাজসেবা অধিদপ্তরের এক তথ্য অনুযায়ী, দেশে বয়স্ক ভাতা চালু হয় ১৯৯৭-৯৮ অর্থবছরে। পরের বছর থেকে বিধবা ভাতা কর্মসূচি চালু হয়। এরপর পেরিয়ে গেছে ২৫ বছর। কিন্তু এত দিনেও মরনী রাজবংশী বয়স্ক ভাতার কার্ড পাননি। সমাজসেবা অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, দেশে বয়স্ক ভাতাভোগীর মোট সংখ্যা ৫৭ লাখ ১ হাজার। আর বিধবা ভাতাভোগীর সংখ্যা ২৪ লাখ ৭৫ হাজার। এত সংখ্যক মানুষের মধ্যেও তার ভাগ্যে জোটেনি সরকারি ভাতা।

মরনী রাজবংশী একাই নন। তিনি একটা উদাহরণমাত্র। তার মতো দেশে এমন অনেক মানুষ আছেন, যারা বয়স্ক কিংবা বিধবা ভাতা পাওয়ার উপযুক্ত হওয়া সত্ত্বেও সেটা পান না। ভাতাবঞ্চিত এসব মানুষের অনেকেই মানবেতর জীবন-যাপন করছেন।

অভিযোগ রয়েছে, বিভিন্ন সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় অনেক অযোগ্য ব্যক্তি ভাতা পান। আবার মরনী রাজবংশীর মতো অনেকে বছরে পর বছর ভাতা পান না। তালিকা নিয়ে নয়-ছয় হওয়ার কারণে তারা বঞ্চিত হন। এক্ষেত্রে সাধারণত এক শ্রেণির জনপ্রতিনিধির বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে।

সামাজিক সুরক্ষাখাতে অনিয়ম-দুর্নীতি বন্ধ করা গেলে অনেক প্রান্তিক মানুষ উপকৃত হবেন। অযোগ্য ব্যক্তিদের তালিকা থেকে বাদ দিতে হবে। প্রকৃত দুস্থ ব্যক্তিদেরই তালিকাভুক্ত করতে হবে। প্রতিবছর তালিকা হালনাগাদ করা জরুরি। যারা তালিকা তৈরির সঙ্গে যুক্ত তাদেরকে সততার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করতে হবে। কেউ দায়িত্ব পালনে অনিয়ম করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে হবে।

মরনী রাজবংশী জীবদ্দশায় বয়স্ক ভাতা পাচ্ছেন সেটাই আমরা দেখতে চাই।

বিষ ঢেলে মাছ নিধনের অভিযোগ আমলে নিন

ঈদের আনন্দ স্পর্শ করুক সবার জীবন

মীরসরাইয়ের বন রক্ষায় সমন্বিত উদ্যোগ নেয়া জরুরি

স্বাস্থ্য খাতে বরাদ্দ বাড়ানো জরুরি

কৃষকরা কেন তামাক চাষে ঝুঁকছে

রেলক্রসিংয়ে প্রাণহানির দায় কার

আর কত অপেক্ষার পর সেতু পাবে রানিশংকৈলের মানুষ^

পাহাড়ে ব্যাংক হামলা কেন

সিসা দূষণ রোধে আইনের কঠোর বাস্তবায়ন জরুরি

হার্টের রিংয়ের নির্ধারিত দর বাস্তবায়নে মনিটরিং জরুরি

রইচপুর খালে সেতু নির্মাণে আর কত অপেক্ষা

রাজধানীকে যানজটমুক্ত করা যাচ্ছে না কেন

জেলেরা কেন বরাদ্দকৃত চাল পাচ্ছে না

নিয়মতান্ত্রিক সংগঠনের সুযোগ থাকা জরুরি, বন্ধ করতে হবে অপরাজনীতি

ঢাকা-ময়মনসিংহ চার লেন সড়কের ক্ষতিগ্রস্ত অংশে সংস্কার করুন

শিক্ষা খাতে বিনিয়োগ বাড়াতে হবে

স্লুইসগেটের ফাটল মেরামতে উদ্যোগ নিন

পরিবেশ দূষণ বন্ধে সমন্বিত পদক্ষেপ নিতে হবে

রংপুর শিশু হাসপাতাল চালু হতে কালক্ষেপণ কেন

দেশে এত খাবার অপচয়ের কারণ কী

রায়গঞ্জে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যাতায়াতের দুর্ভোগ দূর করুন

প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার বাইরে থাকা জনগোষ্ঠী নিয়ে ভাবতে হবে

জলাশয় দূষণের জন্য দায়ী কারখানার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন

নদী থেকে অবৈধভাবে বালু তোলা বন্ধ করুন

বহরবুনিয়া স্বাস্থ্যকেন্দ্রের ভবন নির্মাণে আর কত বিলম্ব

মশার উপদ্রব থেকে নগরবাসীকে মুক্তি দিন

সিলেট ‘ইইডি’ কার্যালয়ের অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ

পাহাড় কাটা বন্ধ করুন

স্বাধীনতার ৫৪ বছর : মানুষের আশা-আকাক্সক্ষা কতটা পূরণ হলো

চিকিৎসক সংকট দূর করুন

আজ সেই কালরাত্রি : গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি আদায়ে প্রচেষ্টা চালাতে হবে

সাতক্ষীরা হাসপাতালের ডায়ালাসিস মেশিন সংকট দূর করুন

পানি সম্পদের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা জরুরি

আর কত অপেক্ষার পর বিধবা ছালেহার ভাগ্যে ঘর মিলবে

চরের শিশুদের শিক্ষার অধিকার নিশ্চিত করুন

নদ-নদীর নাব্য সংকট দূর করতে চাই সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা

tab

সম্পাদকীয়

প্রকৃত উপকারভোগীদের বয়স্ক ভাতা নিশ্চিত করুন

শনিবার, ১৩ মে ২০২৩

প্রান্তিক জনগোষ্ঠী তথা বৃদ্ধ, বিধবা, দুস্থ ও প্রতিবন্ধী মানুষকে সহায়তা করার জন্য দেশে বিভিন্ন ধরনের মাসিক ভাতা চালু রয়েছে। সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় পুরুষদের ক্ষেত্রে ন্যূনতম ৬৫ বছর এবং নারীদের ক্ষেত্রে ৬২ বছর বয়সীরা বয়স্ক ভাতার জন্য তালিকাভুক্ত হন। এছাড়া ‘বিধবা ও স্বামী নিগৃহীত মহিলা ভাতা’ বা ‘বিধবা ভাতা’ও চালু রয়েছে।

টাঙ্গাইলের মরনী রাজবংশীর বয়স হয়েছে ৯৪ বছর। এখনো তিনি পাননি বয়স্ক ভাতার কার্ড। জনপ্রতিনিধিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও মেলেনি কার্ড। তার প্রশ্ন, আর কত বয়স হলে ভাতার কার্ড পাব? এ নিয়ে গত শনিবার সংবাদ-এ বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে।

সমাজসেবা অধিদপ্তরের এক তথ্য অনুযায়ী, দেশে বয়স্ক ভাতা চালু হয় ১৯৯৭-৯৮ অর্থবছরে। পরের বছর থেকে বিধবা ভাতা কর্মসূচি চালু হয়। এরপর পেরিয়ে গেছে ২৫ বছর। কিন্তু এত দিনেও মরনী রাজবংশী বয়স্ক ভাতার কার্ড পাননি। সমাজসেবা অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, দেশে বয়স্ক ভাতাভোগীর মোট সংখ্যা ৫৭ লাখ ১ হাজার। আর বিধবা ভাতাভোগীর সংখ্যা ২৪ লাখ ৭৫ হাজার। এত সংখ্যক মানুষের মধ্যেও তার ভাগ্যে জোটেনি সরকারি ভাতা।

মরনী রাজবংশী একাই নন। তিনি একটা উদাহরণমাত্র। তার মতো দেশে এমন অনেক মানুষ আছেন, যারা বয়স্ক কিংবা বিধবা ভাতা পাওয়ার উপযুক্ত হওয়া সত্ত্বেও সেটা পান না। ভাতাবঞ্চিত এসব মানুষের অনেকেই মানবেতর জীবন-যাপন করছেন।

অভিযোগ রয়েছে, বিভিন্ন সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় অনেক অযোগ্য ব্যক্তি ভাতা পান। আবার মরনী রাজবংশীর মতো অনেকে বছরে পর বছর ভাতা পান না। তালিকা নিয়ে নয়-ছয় হওয়ার কারণে তারা বঞ্চিত হন। এক্ষেত্রে সাধারণত এক শ্রেণির জনপ্রতিনিধির বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে।

সামাজিক সুরক্ষাখাতে অনিয়ম-দুর্নীতি বন্ধ করা গেলে অনেক প্রান্তিক মানুষ উপকৃত হবেন। অযোগ্য ব্যক্তিদের তালিকা থেকে বাদ দিতে হবে। প্রকৃত দুস্থ ব্যক্তিদেরই তালিকাভুক্ত করতে হবে। প্রতিবছর তালিকা হালনাগাদ করা জরুরি। যারা তালিকা তৈরির সঙ্গে যুক্ত তাদেরকে সততার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করতে হবে। কেউ দায়িত্ব পালনে অনিয়ম করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে হবে।

মরনী রাজবংশী জীবদ্দশায় বয়স্ক ভাতা পাচ্ছেন সেটাই আমরা দেখতে চাই।

back to top