alt

উপ-সম্পাদকীয়

কমিশন কিংবা ভিজিটে জমি রেজিস্ট্রির আইনি বিধান ও প্রাসঙ্গিকতা

সিরাজ প্রামাণিক

: শনিবার, ০৬ এপ্রিল ২০২৪

আপনি ঘরে বসে কিংবা জেলখানায় আটক থেকেও জমি বিক্রি এবং রেজিস্ট্রি করে দিতে পারবেন। আপনি যদি রেজিস্ট্রি অফিসে যেতে অক্ষম বা অপারগ হন কিংবা নিরাপত্তার অভাব অনুভব করেন, আপনি যদি পর্দানশীল মহিলা হন, কিংবা দেয়ানী বা ফৌজদারি কার্যবিধির অধীন কারাগারে আটক থাকেন তাহলে কমিশনের মাধ্যমে আপনি বাসায় বসে জমি রেজিস্ট্রি করে দিতে পারেন।

আপনি স্বশরীরে সাবরেজিস্ট্রি অফিসে আসতে অপারগতার কারণে ১৯০৮ সালের রেজিস্ট্রেশন অ্যাক্ট-এর ৩৮ (১) ধারা মতে, দলিল সম্পাদন স্বীকারোক্তি গ্রহণের জন্য কমিশনের প্রার্থনা করে সাবরেজিস্ট্রারের কাছে আবেদন করে আপনার আবাসস্থলে নিয়ে গিয়ে জমি রেজিস্ট্রি করিয়ে দিতে পারবেন।

এরূপ আবেদনের ভিত্তিতে সাবরেজিস্ট্রার নিজে বা তার পাঠানো প্রতিনিধি দলিল দাতার বাসস্থানে গিয়ে সম্পাদন স্বীকারোক্তি গ্রহণের মাধ্যমে দলিল রেজিস্ট্রি করার ব্যবস্থা করে থাকেন। এজন্য আলাদা কমিশন ফিস জমা দিতে হয়। এ বিষয়ে রেজিস্ট্রেশন বিধিমালা ৩৫ বিধিতে কমিশনে জমি রেজিস্ট্রিতে কে যাবেন, কী কাজ করবেনÑ সে বিষয়ে বিস্তারিত বলা আছে। কমিশন ফিস বিষয়ে পর্দানশীল মহিলার ক্ষেত্রে ২০০ টাকা এবং অন্যদের ক্ষেত্রে মাত্র ১০০ টাকা গ্রহণের কথা বলা আছে। এর সঙ্গে যানবাহন খরচ ও অন্যান্য খরচের কথা আলাদা করে বলা আছে; কিন্তু বাস্তবে রেজিস্ট্রেশন বিধিমালা ও ফিস উপেক্ষা করে অনেক বেশি টাকা নিয়ে কমিশনে জমি রেজিস্ট্রি করে থাকেন।

মনে রাখবেন, শুধু কমিশনে নয়, ভিজিটেও দলিল রেজিস্ট্রি করা যায়। দলিলদাতা এবং দলিল গ্রহীতা উভয়ের কেউই যদি রেজিস্ট্রি অফিসে গিয়ে দলিল দাখিল করতে না পারেন, সেক্ষেত্রে ১৯০৮ সালের রেজিস্ট্রেশন অ্যাক্ট-এর ৩১ ধারা মতে, দলিলদাতার বাড়িতে গিয়ে দলিল রেজিস্ট্রি করে দেয়ার জন্য রেজিস্ট্রি অফিসে আবেদন করা যাবে।

কমিশন বা ভিজিটের জন্য আবেদন করা হলে রেজিস্ট্রারিং অফিসার দাতার সম্পাদন স্বীকারোক্তি দলিলে লিখে দলিলটি রেজিস্ট্রির ব্যবস্থা করবেন। রেজিস্ট্রারিং অফিসার নিজে যেতে না পারলে তার অফিসের যে কোন অফিসার বা বেতনভোগী কর্মচারীকে দিয়ে তার কমিশন জারি করতে পারবেন। ভিজিটের জন্য আবেদন করলে ভিজিট ফি সঙ্গে জমা দিতে হবে। কত টাকা ভিজিট ফিস এ বিষয়ে রেজিস্ট্রেশন বিধিমালা ৩২-এ বলা আছে। ১৯০৮ সালের রেজিস্ট্রেশন অ্যাক্ট-এর ৩১ ধারার বিধান অনুযায়ী যদি কোন কর্মকর্তাকে কোন ব্যক্তির আবাসস্থলে গমন করতে হয়, তাহলে তার প্রদেয় ভিজিট ফিস মাত্র ৩০০ টাকা; কিন্তু বাস্তবে অনেক বেশি টাকা দিয়ে কাজটি সম্পন্ন করতে হয়।

[লেখক : আইনজীবী, সুপ্রিম কোর্ট]

ছবি

অনন্য স্থাপত্যশৈলীর এমসি কলেজের ঐতিহ্য সংরক্ষণ

তারুণ্যের শক্তিকে কাজে লাগাতে হবে

ফের চোখ রাঙাচ্ছে ডেঙ্গু : আতঙ্ক নয়, প্রয়োজন জনসচেতনতা

ছবি

রবীন্দ্রনাথ ও গ্রীষ্মের তন্দ্রাচ্ছন্ন স্বপ্ন-দুপুর

ছবি

লোকসভা নির্বাচন : কী হচ্ছে, কী হবে

জমির বায়না দলিল কার্যকর কিংবা বাতিলের আইনি প্রক্রিয়া

জনসেবায় পেশাদারিত্ব

খাদ্য কেবল নিরাপদ হলেই হবে না, পুষ্টিকরও হতে হবে

উচ্চশিক্ষাতেও আদিবাসীদের জন্য সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে

ছবি

যুদ্ধটা এখনো শেষ হয়নি রনো ভাই

টাকার অবমূল্যায়ন কি জরুরি ছিল

পরিবার : বিশ্বের প্রাচীন প্রতিষ্ঠান

তাপপ্রবাহে ঝুঁকি এড়াতে করণীয়

ডলারের মূল্যবৃদ্ধি : দীর্ঘমেয়াদে সুফল মিলতে পারে

ছবি

কী আছে ট্রাম্পের ভাগ্যে?

ছবি

বাংলার ‘ভাশুর কথাশিল্পী’ শওকত ওসমান

রাজধানীকে বসবাসযোগ্য করুন

সাধারণ মানুষ যাবে কোথায়

মুখপাত্রদের তৈরি নয়, ‘তলাপাত্র’দের তৈরি জোট প্রসঙ্গে

চেকের মামলায় সাফাই সাক্ষী বনাম আসামি

ছবি

ডারউইনের খোঁজে নিউইয়র্কের জাদুঘরে

আদিবাসী হত্যার বিচার কোন পথে

কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করুন

রম্যগদ্য : গলায় বেঁধা বড়শি

খেলার চেয়ে ‘ধুলা’ বেশি

জেগে উঠুক সুকুমার বৃত্তি

প্রসঙ্গ : লোকসভা নির্বাচন

ছবি

বারবার পুড়ছে বাংলাদেশের ফুসফুস

শিশুমৃত্যু রোধে দক্ষ মিডওয়াইফদের ভূমিকা

বিসিএস জ্বরে পুড়ছে তারুণ্য

প্রযুক্তির ছোঁয়ায় বদলে যাওয়া পৃথিবী

নমিনির অনুপস্থিতিতে মৃত ব্যক্তির গচ্ছিত টাকা পাবে কে

হিট স্ট্রোকের ঝুঁকি এড়াতে প্রয়োজন সচেতনতা

হিট স্ট্রোকের ঝুঁকি এড়াতে প্রয়োজন সচেতনতা

যদি শুধু বিনোদন সংস্কৃতি হয় তাহলে বাকি সব কী?

নতুন কারিকুলামে ইংরেজি শিক্ষা

tab

উপ-সম্পাদকীয়

কমিশন কিংবা ভিজিটে জমি রেজিস্ট্রির আইনি বিধান ও প্রাসঙ্গিকতা

সিরাজ প্রামাণিক

শনিবার, ০৬ এপ্রিল ২০২৪

আপনি ঘরে বসে কিংবা জেলখানায় আটক থেকেও জমি বিক্রি এবং রেজিস্ট্রি করে দিতে পারবেন। আপনি যদি রেজিস্ট্রি অফিসে যেতে অক্ষম বা অপারগ হন কিংবা নিরাপত্তার অভাব অনুভব করেন, আপনি যদি পর্দানশীল মহিলা হন, কিংবা দেয়ানী বা ফৌজদারি কার্যবিধির অধীন কারাগারে আটক থাকেন তাহলে কমিশনের মাধ্যমে আপনি বাসায় বসে জমি রেজিস্ট্রি করে দিতে পারেন।

আপনি স্বশরীরে সাবরেজিস্ট্রি অফিসে আসতে অপারগতার কারণে ১৯০৮ সালের রেজিস্ট্রেশন অ্যাক্ট-এর ৩৮ (১) ধারা মতে, দলিল সম্পাদন স্বীকারোক্তি গ্রহণের জন্য কমিশনের প্রার্থনা করে সাবরেজিস্ট্রারের কাছে আবেদন করে আপনার আবাসস্থলে নিয়ে গিয়ে জমি রেজিস্ট্রি করিয়ে দিতে পারবেন।

এরূপ আবেদনের ভিত্তিতে সাবরেজিস্ট্রার নিজে বা তার পাঠানো প্রতিনিধি দলিল দাতার বাসস্থানে গিয়ে সম্পাদন স্বীকারোক্তি গ্রহণের মাধ্যমে দলিল রেজিস্ট্রি করার ব্যবস্থা করে থাকেন। এজন্য আলাদা কমিশন ফিস জমা দিতে হয়। এ বিষয়ে রেজিস্ট্রেশন বিধিমালা ৩৫ বিধিতে কমিশনে জমি রেজিস্ট্রিতে কে যাবেন, কী কাজ করবেনÑ সে বিষয়ে বিস্তারিত বলা আছে। কমিশন ফিস বিষয়ে পর্দানশীল মহিলার ক্ষেত্রে ২০০ টাকা এবং অন্যদের ক্ষেত্রে মাত্র ১০০ টাকা গ্রহণের কথা বলা আছে। এর সঙ্গে যানবাহন খরচ ও অন্যান্য খরচের কথা আলাদা করে বলা আছে; কিন্তু বাস্তবে রেজিস্ট্রেশন বিধিমালা ও ফিস উপেক্ষা করে অনেক বেশি টাকা নিয়ে কমিশনে জমি রেজিস্ট্রি করে থাকেন।

মনে রাখবেন, শুধু কমিশনে নয়, ভিজিটেও দলিল রেজিস্ট্রি করা যায়। দলিলদাতা এবং দলিল গ্রহীতা উভয়ের কেউই যদি রেজিস্ট্রি অফিসে গিয়ে দলিল দাখিল করতে না পারেন, সেক্ষেত্রে ১৯০৮ সালের রেজিস্ট্রেশন অ্যাক্ট-এর ৩১ ধারা মতে, দলিলদাতার বাড়িতে গিয়ে দলিল রেজিস্ট্রি করে দেয়ার জন্য রেজিস্ট্রি অফিসে আবেদন করা যাবে।

কমিশন বা ভিজিটের জন্য আবেদন করা হলে রেজিস্ট্রারিং অফিসার দাতার সম্পাদন স্বীকারোক্তি দলিলে লিখে দলিলটি রেজিস্ট্রির ব্যবস্থা করবেন। রেজিস্ট্রারিং অফিসার নিজে যেতে না পারলে তার অফিসের যে কোন অফিসার বা বেতনভোগী কর্মচারীকে দিয়ে তার কমিশন জারি করতে পারবেন। ভিজিটের জন্য আবেদন করলে ভিজিট ফি সঙ্গে জমা দিতে হবে। কত টাকা ভিজিট ফিস এ বিষয়ে রেজিস্ট্রেশন বিধিমালা ৩২-এ বলা আছে। ১৯০৮ সালের রেজিস্ট্রেশন অ্যাক্ট-এর ৩১ ধারার বিধান অনুযায়ী যদি কোন কর্মকর্তাকে কোন ব্যক্তির আবাসস্থলে গমন করতে হয়, তাহলে তার প্রদেয় ভিজিট ফিস মাত্র ৩০০ টাকা; কিন্তু বাস্তবে অনেক বেশি টাকা দিয়ে কাজটি সম্পন্ন করতে হয়।

[লেখক : আইনজীবী, সুপ্রিম কোর্ট]

back to top