alt

চিঠিপত্র

চিঠি : শিক্ষকের মর্যাদা

: সোমবার, ৩০ অক্টোবর ২০২৩

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নন

পরীক্ষা হলে সহপাঠীর খাতা দেখে লিখছিল এক পড়ুয়া। সে অন্যদের বিরক্ত করছিল, পরীক্ষা হলে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেছিল। তাকে বাধা দেন শিক্ষক। কিন্তু সে বারণ না শোনায় উত্তরপত্র কেড়ে নেন শিক্ষক। তাতেই খেপে গিয়ে শিক্ষককে চড় মারে সংশ্লিষ্ট পড়ুয়া। চুয়াডাঙ্গার ভিক্টোরিয়া জুবিলি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের এই লজ্জাজনক ঘটনার ছবি ও ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। ওই পড়ুয়ার কঠোর শাস্তির দাবিতে সরব এখন শিক্ষা মহল।

ছাত্র কর্তৃক শিক্ষককে অপমানের ঘটনা নতুন কিছু নয়। এখনও মনে আছে, ১৯৬৩ কি ১৯৬৪ সালে পিরোজপুর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর এক ছাত্র পরীক্ষা দেয়ার সময় নকল করছিল, তা দেখতে পেয়ে শিক্ষক বেত নিয়ে আসেন ছাত্রটির কাছে। বেত মারা শুরু করা মাত্রই শিক্ষকের হাত থেকে বেত কেড়ে নিয়ে উল্টো শিক্ষককে বেত মেরে স্কুল থেকে পালিয়ে গিয়েছিল সেই ছাত্রটি। অবশ্য পরবর্তীতে ওই ছাত্রকে পড়ার সুযোগ দেয়া হয়নি।

সুতরাং ছাত্র কর্তৃক শিক্ষক অপমানিত হওয়া নতুন কোনো ঘটনা নয়। দোষী ছাত্রকে গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় এনে ছাত্র কর্তৃক শিক্ষক অপমানিত হওয়া ঠেকানো সম্ভব নয়। বরং ছোটবেলা থেকে প্রতিটি শিশু যাতে নিজেদেরকে আদর্শিক হিসেবে গড়ে তুলতে পারে- সেই উদ্যোগ নিতে হবে। এ ব্যাপারে অভিভাবক ও শিক্ষকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

লিয়াকত হোসেন খোকন

চিঠি : হলে খাবারের মান উন্নত করুন

চিঠি : স্বাস্থ্য শিক্ষা বিষয়ে ডিপ্লোমাধারীদের বৈষম্য দূর করুন

চিঠি : শিক্ষার মান উন্নয়ন চাই

চিঠি : সড়ক আইন বাস্তবায়ন করুন

চিঠি : রাস্তায় বাইক সন্ত্রাস

চিঠি : কঠিন হয়ে পড়ছে ক্যাম্পাস সাংবাদিকতা

চিঠি : ডিসেম্বরের স্মৃতি

চিঠি : টেকসই ও সাশ্রয়ী ক্লিন এনার্জি

চিঠি : নকল গুড় জব্দ হোক

চিঠি : সড়কে বাড়ছে লেন ঝরছে প্রাণ

চিঠি : ঢাকাবাসীর কাছে মেট্রোরেল আশীর্বাদ

চিঠি : কারিগরি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন জরুরি

চিঠি : পরিচ্ছন্ন ক্যাম্পাস চাই

চিঠি : তারুণ্যের শক্তি কাজে লাগান

চিঠি : এইডস থেকে বাঁচতে সচেতন হোন

চিঠি : অতিথি পাখি নিধন বন্ধ হোক

চিঠি : হাসুন, সুস্থ থাকুন

চিঠি : হাতি দিয়ে চাঁদাবাজি বন্ধ হোক

চিঠি : রাজনীতিতে তরুণ সমাজের অংশগ্রহণ

চিঠি : মাদককে ‘না’ বলুন

চিঠি : পুনরুন্নয়ন প্রকল্প : পাল্টে যাবে পুরান ঢাকা

চিঠি : শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ান

চিঠি : চন্দ্রগঞ্জে ফায়ার সার্ভিস স্টেশন চাই

চিঠি : বাড়ছে বাল্যবিয়ে

চিঠি : টিকটকের অপব্যবহার রোধ করতে হবে

চিঠি : আত্মবিশ্বাস ও আস্থা

চিঠি : শিক্ষকরা কি প্রকৃত মর্যাদা পাচ্ছে

চিঠি : শিক্ষার্থীদের সঙ্গে স্থানীয়দের সম্প্রীতি চাই

চিঠি : সকালে ও বিকেলে মেট্রোরেল চলুক

চিঠি : অতিথি পাখি নিধন বন্ধ করতে হবে

চিঠি : ঢাবি’র কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার আধুনিকায়ন করা হোক

চিঠি : নিত্যপণ্যের দাম

চিঠি : শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চাই পরিচ্ছন্ন শৌচাগার

চিঠি : বায়ুদূষণ থেকে রাজধানীকে রক্ষা করুন

চিঠি : পর্যটনকেন্দ্রে খাবারের অস্বাভাবিক মূল্য

চিঠি : ঐতিহ্যবাহী গ্রামীণ খেলাধুলা

tab

চিঠিপত্র

চিঠি : শিক্ষকের মর্যাদা

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নন

সোমবার, ৩০ অক্টোবর ২০২৩

পরীক্ষা হলে সহপাঠীর খাতা দেখে লিখছিল এক পড়ুয়া। সে অন্যদের বিরক্ত করছিল, পরীক্ষা হলে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেছিল। তাকে বাধা দেন শিক্ষক। কিন্তু সে বারণ না শোনায় উত্তরপত্র কেড়ে নেন শিক্ষক। তাতেই খেপে গিয়ে শিক্ষককে চড় মারে সংশ্লিষ্ট পড়ুয়া। চুয়াডাঙ্গার ভিক্টোরিয়া জুবিলি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের এই লজ্জাজনক ঘটনার ছবি ও ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। ওই পড়ুয়ার কঠোর শাস্তির দাবিতে সরব এখন শিক্ষা মহল।

ছাত্র কর্তৃক শিক্ষককে অপমানের ঘটনা নতুন কিছু নয়। এখনও মনে আছে, ১৯৬৩ কি ১৯৬৪ সালে পিরোজপুর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর এক ছাত্র পরীক্ষা দেয়ার সময় নকল করছিল, তা দেখতে পেয়ে শিক্ষক বেত নিয়ে আসেন ছাত্রটির কাছে। বেত মারা শুরু করা মাত্রই শিক্ষকের হাত থেকে বেত কেড়ে নিয়ে উল্টো শিক্ষককে বেত মেরে স্কুল থেকে পালিয়ে গিয়েছিল সেই ছাত্রটি। অবশ্য পরবর্তীতে ওই ছাত্রকে পড়ার সুযোগ দেয়া হয়নি।

সুতরাং ছাত্র কর্তৃক শিক্ষক অপমানিত হওয়া নতুন কোনো ঘটনা নয়। দোষী ছাত্রকে গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় এনে ছাত্র কর্তৃক শিক্ষক অপমানিত হওয়া ঠেকানো সম্ভব নয়। বরং ছোটবেলা থেকে প্রতিটি শিশু যাতে নিজেদেরকে আদর্শিক হিসেবে গড়ে তুলতে পারে- সেই উদ্যোগ নিতে হবে। এ ব্যাপারে অভিভাবক ও শিক্ষকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

লিয়াকত হোসেন খোকন

back to top