alt

চিঠিপত্র

চিঠি : পরিবেশবান্ধব বাহন

: বৃহস্পতিবার, ১৮ নভেম্বর ২০২১

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নন

পরিবেশবান্ধব বাহন হিসেবে সাইকেল সারা পৃথিবীতেই জনপ্রিয়। একই সঙ্গে এটি স্বাস্থ্যসম্মত ও সাশ্রয়ী। এছাড়া নগরে যানজটের ভোগান্তি থেকে বাঁচতেও সাইকেলের জুড়ি নেই। ক্রমবর্ধমান নগরায়ন এবং গতিশীল যান্ত্রিক সমাজে কিছুটা স্বস্তির নিঃশ্বাস দিতে পারে দুই চাকার সাইকেল।

পৃথিবীর অনেক আধুনিক দেশ বর্তমানে এই বাহনটিকে বেশ পৃৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছে। সাইকেল শুধুমাত্র নগরায়নের প্রশান্তি নয়, চালকের স্বাস্থ্য উন্নয়নের বিচারেও এর ভূমিকা অপরিসীম। বিশ্বের বিভিন্ন শহরে, ছোট থেকে বৃদ্ধ সবাই সাইকেল চালিয়ে তাদের নিত্যদিনের কাজ সম্পন্ন করছেন। সাইকেল যেমন স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী তেমনি পরিবেশের জন্যও বেশ উপকারী। এজন্য সাইকেলকে পরিবেশবান্ধব সবুজ বাহন বলা হয়ে থাকে।

সুস্থ থাকার জন্য আমরা বিভিন্ন ধরনের ব্যায়াম করে থাকি। তবে সবচেয়ে ভালো ব্যায়াম হচ্ছে সাইক্লিং ও সাঁতার কাটা। সাইক্লিং বা সাইকেল চালোনায় অনেক শারীরিক পরিশ্রম হয় এবং ওজন কমাতে ব্যাপক সহায়তা করে। এছাড়া ক্যান্সার, ডায়াবেটিস, প্রেসারসহ নানা ধরনের রোগের ঝুঁকিও বহুলাংশে কমিয়ে দেয়। সাইকেল চালানো শুধুমাত্র বাহ্যিকভাবেই ফিট রাখে না, অভ্যন্তরীণভাবেও সুস্থ রাখে। অনেকেই শুধুমাত্র আনন্দের জন্য সাইকেল চালান। তবে এর উপকারিতাগুলো জানলে, অনেকেই উৎসাহ নিয়ে সাইকেল চালাবেন। স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সাইকেল চালানোর অভ্যাসের বিকল্প নেই।

অন্য যানবাহনের ক্ষতিকর ধোঁয়া পরিবেশের যে চরম ক্ষতি করে, সাইকেল তার বিন্দুমাত্র ক্ষতি করে না। সাইকেল চালানো শুধু পরিবেশ দূষণ থেকেই আমাদের রক্ষা করে না, শব্দ দূষণ থেকেও রক্ষা করে। সাম্প্রতিক এক রিপোর্ট থেকে জানা যায়, করোনাকালীন সামাজিক দূরত্ব বজায় কর্মস্থল বা বাইরে গমনের জন্য দেশে-বিদেশে সাইকেলের উৎপাদন, বিপণন ও বিক্রয় উৎসাহজনক হারে বাড়ছে। সামাজিক দূরত্ব ও পরিবেশ রক্ষায় এ সুযোগটি আমাদেরও কাজে লাগানো দরকার। তাই আসুন আমরা নির্মল পরিবেশ বজায় রাখতে সাইকেল চালাই এবং জলবায়ুর উষ্ণতা থেকে পরিবেশকেও রক্ষা করি।

জিল্লুর রহমান

গেন্ডারিয়া, ঢাকা

চিঠি : দুমকিতে বাসস্ট্যান্ড চাই

চিঠি : স্বাস্থ্যবিধি মানার বিকল্প নেই

চিঠি : জন্মসনদে এত ভুল কেন?

চিঠি : স্পিড ব্রেকার প্রসঙ্গে

চিঠি : জাবি শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবীমা নিশ্চিত করুন

চিঠি : অসতর্কতায় সড়ক দুর্ঘটনা

চিঠি : তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের মূল ধারায় সম্পৃক্ত করুন

চিঠি : নিরাপদ সড়কের দাবি

চিঠি : বিদেশের কারাগারে আটক বাংলাদেশিদের মুক্তির ব্যবস্থা নিন

চিঠি : শীতার্ত মানুষের সাহায্যে এগিয়ে আসুন

চোরচক্র থকেে সাবধান

প্রিয়জনের চিঠি পেতে গুনতে হয় না প্রহর

চিঠি : গণপরিবহনে যাত্রী ভোগান্তি

চিঠি : হাতিয়া গণহত্যা

চিঠি : আদালতের কর্মচারীদের অবৈধ অর্থ আদায় প্রসঙ্গে

চিঠি : মোটরসাইকেল দুর্ঘটনা

চিঠি : এসেছে হেমন্ত

চিঠি : বিদায় অনুষ্ঠানের একাল-সেকাল

প্লাস্টিকের বিনিময়

বন্যহাতি রক্ষা করতে হবে

চিঠি : ছিন্নমূল মানুষের সহযোগিতায় এগিয়ে আসুন

চিঠি : বিন্নি ধানের খই

চিঠি : অস্থায়ী আবাসনে শিক্ষার্থীদের দুর্ভোগ

চিঠি : বাকৃবির গণরুম সমস্যার সমাধান চাই

চিঠি : স্মার্টফোনের দাম কমানো হোক

ফেনীতে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় চাই

পনির-এ আছে পুষ্টি

চিঠি : ইপিজেড : সম্ভাবনার নতুন দ্বার

চিঠি : স্বেচ্ছায় রক্তদান

চিঠি : নিরাপদ সড়ক চাই

চিঠি : বাকৃবিতে ছাত্রী হলে নিরাপত্তা সংকট

চিঠি : জানার জন্য পড়তে হবে

ডাচণ্ডবাংলা ব্যাংকের শিক্ষাবৃত্তি

নবায়নযোগ্য জ্বালানি

চিঠি : তামাক কোম্পানির প্রচারের কূটকৌশল

চিঠি : কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ মহাসড়কের দুর্দশা

tab

চিঠিপত্র

চিঠি : পরিবেশবান্ধব বাহন

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নন

বৃহস্পতিবার, ১৮ নভেম্বর ২০২১

পরিবেশবান্ধব বাহন হিসেবে সাইকেল সারা পৃথিবীতেই জনপ্রিয়। একই সঙ্গে এটি স্বাস্থ্যসম্মত ও সাশ্রয়ী। এছাড়া নগরে যানজটের ভোগান্তি থেকে বাঁচতেও সাইকেলের জুড়ি নেই। ক্রমবর্ধমান নগরায়ন এবং গতিশীল যান্ত্রিক সমাজে কিছুটা স্বস্তির নিঃশ্বাস দিতে পারে দুই চাকার সাইকেল।

পৃথিবীর অনেক আধুনিক দেশ বর্তমানে এই বাহনটিকে বেশ পৃৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছে। সাইকেল শুধুমাত্র নগরায়নের প্রশান্তি নয়, চালকের স্বাস্থ্য উন্নয়নের বিচারেও এর ভূমিকা অপরিসীম। বিশ্বের বিভিন্ন শহরে, ছোট থেকে বৃদ্ধ সবাই সাইকেল চালিয়ে তাদের নিত্যদিনের কাজ সম্পন্ন করছেন। সাইকেল যেমন স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী তেমনি পরিবেশের জন্যও বেশ উপকারী। এজন্য সাইকেলকে পরিবেশবান্ধব সবুজ বাহন বলা হয়ে থাকে।

সুস্থ থাকার জন্য আমরা বিভিন্ন ধরনের ব্যায়াম করে থাকি। তবে সবচেয়ে ভালো ব্যায়াম হচ্ছে সাইক্লিং ও সাঁতার কাটা। সাইক্লিং বা সাইকেল চালোনায় অনেক শারীরিক পরিশ্রম হয় এবং ওজন কমাতে ব্যাপক সহায়তা করে। এছাড়া ক্যান্সার, ডায়াবেটিস, প্রেসারসহ নানা ধরনের রোগের ঝুঁকিও বহুলাংশে কমিয়ে দেয়। সাইকেল চালানো শুধুমাত্র বাহ্যিকভাবেই ফিট রাখে না, অভ্যন্তরীণভাবেও সুস্থ রাখে। অনেকেই শুধুমাত্র আনন্দের জন্য সাইকেল চালান। তবে এর উপকারিতাগুলো জানলে, অনেকেই উৎসাহ নিয়ে সাইকেল চালাবেন। স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সাইকেল চালানোর অভ্যাসের বিকল্প নেই।

অন্য যানবাহনের ক্ষতিকর ধোঁয়া পরিবেশের যে চরম ক্ষতি করে, সাইকেল তার বিন্দুমাত্র ক্ষতি করে না। সাইকেল চালানো শুধু পরিবেশ দূষণ থেকেই আমাদের রক্ষা করে না, শব্দ দূষণ থেকেও রক্ষা করে। সাম্প্রতিক এক রিপোর্ট থেকে জানা যায়, করোনাকালীন সামাজিক দূরত্ব বজায় কর্মস্থল বা বাইরে গমনের জন্য দেশে-বিদেশে সাইকেলের উৎপাদন, বিপণন ও বিক্রয় উৎসাহজনক হারে বাড়ছে। সামাজিক দূরত্ব ও পরিবেশ রক্ষায় এ সুযোগটি আমাদেরও কাজে লাগানো দরকার। তাই আসুন আমরা নির্মল পরিবেশ বজায় রাখতে সাইকেল চালাই এবং জলবায়ুর উষ্ণতা থেকে পরিবেশকেও রক্ষা করি।

জিল্লুর রহমান

গেন্ডারিয়া, ঢাকা

back to top