alt

চিঠিপত্র

চিঠি : জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা স্থগিত, দায় নেবে কে?

: বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নন

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়! নামটি শুনতে বেশ ভালোই লাগে। কিন্তু তাদের কার্যক্রমে অভিভাবক এবং শিক্ষার্থীরা কতটুকু আস্থা রাখছে, সেটাই মুখ্য বিষয়। করোনা মাহামারীর আগে যতটুকু গতি ছিল, এখন ঠিক তার উল্টো হচ্ছে। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সরকারি এবং বেসরকারি কলেজে অনার্স কোর্স আছে প্রায় ২ হাজার ২৭৪টি কলেজে। আর শিক্ষার্থীদের সংখ্যা প্রায় ২৮ লাখ।

যারা পাবলিক কিংবা প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় পড়ার সুযোগ পায় না, তারাই জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এসে উচ্চশিক্ষার স্বপ্ন দেখে। কিন্তু এখন স্বপ্ন যেন, দুঃস্বপ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে। অনার্স প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের শর্ত সাপেক্ষে দ্বিতীয় বর্ষে প্রমোশন এবং দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীদের তৃতীয় বর্ষে প্রমোশন দেয়া হয়েছে।

কিন্তু অনার্স চতুর্থ বর্ষের পরীক্ষা চলমান থাকলেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তা স্থগিত করা হয়। ঢাবি অধিভুক্ত সাত কলেজ এবং ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয় অধীনে মাদরাসাগুলো তাদের ঘোষিত আগের রুটিন অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্ব-শরীরে পরীক্ষা নিচ্ছে। সেখানে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কোন পদক্ষেপ নিচ্ছে না। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এখন হতাশ! বয়স শেষ হয়ে যাচ্ছে, পরিবারের চাপ তো আছেই। সুতরাং এমন পরিস্থিতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় যেন শিক্ষার্থীদের স্বার্থে যথাযথ ভূমিকা রাখে সে বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী এবং কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

আব্দুল করিম গাজী

চিঠি : বন্যার্তদের সাহায্য করুন

চিঠি : কলেজ বাস চাই

চিঠি : আকাশ সংস্কৃতি

চিঠি : বাকসু নির্বাচন চাই

চিঠি : মোবাইল আসক্তি

চিঠি : কারিগরি শিক্ষার প্রসার ঘটাতে হবে

চিঠি : দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, জনগণের নাভিশ্বাস

চিঠি : পদ্মা সেতুর টোল

চিঠি : অনুমোদনহীন ফার্মেসি

চিঠি : বন্যাকবলিত মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে

চিঠি : হালদায় দূষণ ঠেকাতে হবে

চিঠি : ঘূর্ণিঝড়ে উপকূলবাসীদের দুর্ভোগ

চিঠি : সরকারি সহায়তা পেতে ভোগান্তি দূর করুন

চিঠি : ফেসবুক ব্যবহারে সতর্ক হওয়া উচিত

চিঠি : প্রবাসী নারী শ্রমিকের নিরাপত্তা

চিঠি : মানসিক ভারসাম্যহীনদের অধিকার

চিঠি : সন্দ্বীপ নৌপথে দুর্ভোগের স্থায়ী সমাধান চাই

চিঠি : নজর দিতে হবে পর্যটনশিল্পে

চিঠি : পরিবেশ দূষণের কারণে স্বাস্থ্যঝুঁকি

চিঠি :মাদকমুক্ত সুস্থ পরিবেশ চাই

চিঠি : ইডেন কলেজের আবাসন সংকট নিরসনে উদ্যোগ নিন

চিঠি : শিশুদের মোবাইল ফোন আসক্তি

চিঠি : পেরেক ঠুকে গাছে বিজ্ঞাপন টাঙানো বন্ধ হোক

চিঠি : তেলের দামের ঊর্ধ্বগতি : এর শেষ কোথায়

চিঠি : রাস্তায় খড় শুকানোর বিপদ

চিঠি : বজ্রপাত থেকে বাঁচতে করণীয়

চিঠি : লালপোল ক্রসিংয়ে ওভারপাস নির্মাণ করা হোক

চিঠি : সে কথা ভুলে যেও না

চিঠি : রাস্তাটি পাকা করা হোক

চিঠি : গবেষকদের সুযোগ-সুবিধা বাড়াতে হবে

চিঠি : পত্রিকা পাঠের অভ্যাস গড়ে তুলুন

চিঠি : নারীর নিরাপত্তা চাই

চিঠি : অযথা টেস্ট নয়

চিঠি : নবায়নযোগ্য জ্বালানির সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে

চিঠি : স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন

চিঠি : ঈদযাত্রা

tab

চিঠিপত্র

চিঠি : জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা স্থগিত, দায় নেবে কে?

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নন

বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়! নামটি শুনতে বেশ ভালোই লাগে। কিন্তু তাদের কার্যক্রমে অভিভাবক এবং শিক্ষার্থীরা কতটুকু আস্থা রাখছে, সেটাই মুখ্য বিষয়। করোনা মাহামারীর আগে যতটুকু গতি ছিল, এখন ঠিক তার উল্টো হচ্ছে। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সরকারি এবং বেসরকারি কলেজে অনার্স কোর্স আছে প্রায় ২ হাজার ২৭৪টি কলেজে। আর শিক্ষার্থীদের সংখ্যা প্রায় ২৮ লাখ।

যারা পাবলিক কিংবা প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় পড়ার সুযোগ পায় না, তারাই জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এসে উচ্চশিক্ষার স্বপ্ন দেখে। কিন্তু এখন স্বপ্ন যেন, দুঃস্বপ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে। অনার্স প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের শর্ত সাপেক্ষে দ্বিতীয় বর্ষে প্রমোশন এবং দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীদের তৃতীয় বর্ষে প্রমোশন দেয়া হয়েছে।

কিন্তু অনার্স চতুর্থ বর্ষের পরীক্ষা চলমান থাকলেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তা স্থগিত করা হয়। ঢাবি অধিভুক্ত সাত কলেজ এবং ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয় অধীনে মাদরাসাগুলো তাদের ঘোষিত আগের রুটিন অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্ব-শরীরে পরীক্ষা নিচ্ছে। সেখানে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কোন পদক্ষেপ নিচ্ছে না। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এখন হতাশ! বয়স শেষ হয়ে যাচ্ছে, পরিবারের চাপ তো আছেই। সুতরাং এমন পরিস্থিতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় যেন শিক্ষার্থীদের স্বার্থে যথাযথ ভূমিকা রাখে সে বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী এবং কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

আব্দুল করিম গাজী

back to top