alt

চিঠিপত্র

চিঠি : শারদীয় দুর্গাপূজা

: বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নন

মহালয়ার মধ্য দিয়ে শুরু হয়ে গেছে হিন্দুধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় সার্বজনীন উৎসব ‘শারদীয় দুর্গা উৎসব’। মহালয়া কথাটির অর্থ মহান যে আলয় বা আশ্রয়। এর মাধ্যমে দেবী পক্ষের সূচনা হয়। মনের সব অন্ধকার দূর করতে দেবী দুর্গা পৃথিবীতে আগমন করেন। আলো হাতে আমাদের মনের সব অন্ধকার দূর করে সুখ, শান্তি আর সম্প্রীতির বন্ধনে আবদ্ধ করে দেন। চৈত্র মাসের শুক্লপক্ষের বাসন্তী পূজোই বাঙালির আদি দুর্গাপূজা। এবার মা দুর্গা গজ বা হাতির পিঠে করে আসবেন এবং নৌকায় প্রস্থান করবেন।

শরৎ মেঘের আনাগোনা আর কাশফুলের সমারোহ জানিয়ে দেয় যে বাংলার সর্ববৃহৎ সার্বজনীন দুর্গা উৎসব অতি সন্নিকটে। এই উৎসব শুধু হিন্দুধর্মাবলম্বীদের প্রধান উৎসবই নয়, বরং এই উৎসবে জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে সব মানুষের মধ্যে দেখা যায় আনন্দের জোয়ার। বাংলার এই ঐতিহ্য প্রমাণ করে আমরা বাঙালিরা কতটা অসাম্প্রদায়িক এবং আনন্দপ্রিয়। বাংলার এই অসাম্প্রদায়িক চেতনা যুগ যুগ ধরে শান্তিপূর্ণভাবে পালিত হয়ে আসছে।

সাধারণত আশ্বিন মাসের শুক্ল পক্ষের ষষ্ঠ থেকে দশম দিন পর্যন্ত শারদীয় দুর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হয়। এই পাঁচটি দিন যথাক্রমে ‘দুর্গাষষ্ঠী’, ‘দুর্গাসপ্তমী’, ‘মহাষ্টমী’, ‘মহানবমী’ ও ‘বিজয়াদশমী’ নামে পরিচিত। বিজয়াদশমীর মধ্য দিয়েই শেষ হবে এই বৃহৎ ধর্মীয় ও সামাজিক অনুষ্ঠানের। সবাইকে শারদীয় শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। মা দুর্গা আমাদের মনের সব অন্ধকার দূর করে সম্প্রীতির বন্ধন অটুট রাখুক এই প্রার্থনা করি।

দ্বীপক কুমার রায়

চিঠি : জনদুর্ভোগ লাঘবে গণশুনানির ব্যবস্থা করা হোক

চিঠি : ফুটবল নিয়ে বিদ্বেষ নয়

চিঠি : দুদককে চুনোপুঁটি নয়, রাঘববোয়ালদের ধরতে হবে

চিঠি : নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন প্রয়োজন

চিঠি : ‘পড়িলে বই, আলোকিত হই’

চিঠি : সাইবার অপরাধ রোধে সতর্কতা দরকার

চিঠি : উচ্চ আদালতে জামিনের শুনানি

চিঠি : দুর্ভিক্ষের শঙ্কা ও প্রস্তুতি

চিঠি : প্রেসক্রিপশনবিহীন ওষুধ বিক্রি

চিঠি : ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা বাকযুদ্ধ নয়

চিঠি : শিক্ষাব্যবস্থা : স্বপ্ন ও বাস্তবতা

চিঠি : পোশাক শ্রমিকদের বেতন

চিঠি : নেতিবাচক মনোভাব

চিঠি : শিশুশ্রম আদর্শ জাতি গঠনে অন্তরায়

চিঠি : ভুল চিকিৎসার দায় কে নেবে

চিঠি : অপ্রাপ্তবয়স্কদের হাতে লেগুনার স্টিয়ারিং

চিঠি : সাক্ষ্য আইনের সংশোধনী

চিঠি : চিকিৎসা ব্যবস্থার হালচাল

চিঠি : রক্ত বিক্রি করে স্মার্টফোন কেনার স্বপ্ন

চিঠি : প্রয়োজন চাপমুক্ত মস্তিষ্ক

চিঠি : জেল হত্যা ছিল জাতিকে নেতৃত্ব শূন্য করার অপচেষ্টা

চিঠি : মাদক সমস্যা

চিঠি : সড়কটি সংস্কার করুন

চিঠি : শিশুশ্রমকে নিরুৎসাহিত করুন

চিঠি : রংপুর মডার্ন মোড়ে সাইনবোর্ড চাই

চিঠি : ২০২৩ সালের বিশ্ব ও বাংলাদেশ

চিঠি : রাস্তা সংস্কার করুন

চিঠি : বগুড়ায় বিমানবন্দর যেন রূপকথার গল্প

চিঠি : পরিবেশ রক্ষায় গাছ

চিঠি : ১৭ বছরে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়

চিঠি : অসুস্থ প্রতিযোগিতা নয়

চিঠি : কাশফুলের নয়নাভিরাম সৌন্দর্য

চিঠি : সৃজনশীলতা বিকাশে সংবাদপত্র

চিঠি : শিক্ষকদের সম্মান

চিঠি : চোখ ওঠা রোগে সচেতন হোন

চিঠি : খাল খনন প্রয়োজন

tab

চিঠিপত্র

চিঠি : শারদীয় দুর্গাপূজা

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নন

বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

মহালয়ার মধ্য দিয়ে শুরু হয়ে গেছে হিন্দুধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় সার্বজনীন উৎসব ‘শারদীয় দুর্গা উৎসব’। মহালয়া কথাটির অর্থ মহান যে আলয় বা আশ্রয়। এর মাধ্যমে দেবী পক্ষের সূচনা হয়। মনের সব অন্ধকার দূর করতে দেবী দুর্গা পৃথিবীতে আগমন করেন। আলো হাতে আমাদের মনের সব অন্ধকার দূর করে সুখ, শান্তি আর সম্প্রীতির বন্ধনে আবদ্ধ করে দেন। চৈত্র মাসের শুক্লপক্ষের বাসন্তী পূজোই বাঙালির আদি দুর্গাপূজা। এবার মা দুর্গা গজ বা হাতির পিঠে করে আসবেন এবং নৌকায় প্রস্থান করবেন।

শরৎ মেঘের আনাগোনা আর কাশফুলের সমারোহ জানিয়ে দেয় যে বাংলার সর্ববৃহৎ সার্বজনীন দুর্গা উৎসব অতি সন্নিকটে। এই উৎসব শুধু হিন্দুধর্মাবলম্বীদের প্রধান উৎসবই নয়, বরং এই উৎসবে জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে সব মানুষের মধ্যে দেখা যায় আনন্দের জোয়ার। বাংলার এই ঐতিহ্য প্রমাণ করে আমরা বাঙালিরা কতটা অসাম্প্রদায়িক এবং আনন্দপ্রিয়। বাংলার এই অসাম্প্রদায়িক চেতনা যুগ যুগ ধরে শান্তিপূর্ণভাবে পালিত হয়ে আসছে।

সাধারণত আশ্বিন মাসের শুক্ল পক্ষের ষষ্ঠ থেকে দশম দিন পর্যন্ত শারদীয় দুর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হয়। এই পাঁচটি দিন যথাক্রমে ‘দুর্গাষষ্ঠী’, ‘দুর্গাসপ্তমী’, ‘মহাষ্টমী’, ‘মহানবমী’ ও ‘বিজয়াদশমী’ নামে পরিচিত। বিজয়াদশমীর মধ্য দিয়েই শেষ হবে এই বৃহৎ ধর্মীয় ও সামাজিক অনুষ্ঠানের। সবাইকে শারদীয় শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। মা দুর্গা আমাদের মনের সব অন্ধকার দূর করে সম্প্রীতির বন্ধন অটুট রাখুক এই প্রার্থনা করি।

দ্বীপক কুমার রায়

back to top