alt

চিঠিপত্র

চিঠি : এসি বিস্ফোরণ এড়াতে সচেতন হোন

: বৃহস্পতিবার, ১৬ মার্চ ২০২৩

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নন

দিন দিন বাড়ছে এসির ব্যবহার। সেই সঙ্গে বাড়ছে এসি দুর্ঘটনা। মাঝে মধ্যে এসি বিস্ফোরণে হতাহতের খবর পাওয়া যায়। গত এক সাপ্তাহের ব্যবধানে দুটি ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটেছে। যেখানে দোকানের মালিক কর্মচারী এবং পথচারীদের অনেকেই প্রাণ হারান; যা খুবই দুঃখজনক। কিন্তু কী কারণে ঘটে এসি দুর্ঘটনা, সেটা সবার জানা দরকার। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, অনেকে রুমের লোড অনুপাতে এসি ব্যবহার করেন না। ফলে এসিটি অনেক্ষণ ধরে চলতে থাকে। তাই অতিরিক্ত গরম হয়ে যায়।

বাতাসকে শীতল করার জন্য এসিতে উচ্চচাপে রেফ্রিজারেন্ট গ্যাস ব্যবহার করা হয়। যদি রেফ্রিজারেন্টে লিক হয়, তবে বিপজ্জনক পরিস্থিতির সৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া কিছু এসি দীর্ঘ সময় চালালে বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতিগুলো অতিরিক্ত গরম হতে পারে, যার ফলে বিস্ফোরণ ঘটে। সঠিকভাবে রক্ষণাবেক্ষণ না করার কারণেও এসির বিস্ফোরণ ঘটতে পারে।

এসি দুর্ঘটনা এড়াতে রুমের আকার অনুযায়ী সঠিকমাত্রার এসি নির্ধারণ করা। পেশাদারদের মাধ্যমে নিয়মিত সার্ভিসিং করানো। দীর্ঘসময় একটানা এসি না চালিয়ে মাঝে মাঝে বিরতি দেয়া। নির্ভরযোগ্য ব্র্যান্ডের এসি কেনা। বৃষ্টি ও বজ্রপাতের সময় এসির ব্যবহার বন্ধ রাখা। হাই ভোল্টেজ এড়াতে বাড়তি সার্কিট ব্রেকার ব্যবহার করা। একনাগাড়ে আট ঘণ্টার বেশি ব্যবহার করা উচিত নয়। বৈদ্যুতিক সংযোগ, সকেট, ফিল্টার নিয়মিত পরীক্ষা করা। এসি ব্যবহারে সতর্কতা ও সচেতনতা বাড়াতে হবে। তাহলে এসি দুর্ঘঘটনা থেকে নিজেদের রক্ষা করা যাবে।

সাকিবুল হাছান

চিঠি : বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন

চিঠি : সাধ্যের মধ্যে থাকুক চিকিৎসাসেবা

চিঠি : গাছ রক্ষা আন্দোলন

চিঠি : সৃজনশীল শিক্ষাব্যবস্থা

চিঠি : স্বাধীনতাবিরোধী ও মুক্তিযোদ্ধার তালিকা

চিঠি : অবহেলিত শিক্ষক সমাজের বাজেট ভাবনা

চিঠি : স্থানীয় পর্যায়ে কিশোরীদের খেলার সুযোগ সৃষ্টি করুন

চিঠি : বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিক্ষার্থীদের পাশে থাকুন

চিঠি : শিশুদের জন্য চাই বুলিংমুক্ত পরিবেশ

চিঠি : সীমান্ত ট্রেনে যাত্রীসেবা

চিঠি : অপ্রয়োজনীয় সিজারিয়ান বন্ধ করুন

চিঠি : গেন্ডারিয়া ও নারিন্দার রাস্তা সংস্কার জরুরি

চিঠি : শব্দদূষণ প্রতিরোধে কঠোর হোন

চিঠি : জ্ঞানের পরিপক্বতাই ভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি

চিঠি : বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিক্ষার্থীদের পাশে থাকুন

চিঠি : মরণোত্তর চক্ষুদান

চিঠি : বাঙালির প্রাণস্পন্দন কলকাতার জোড়াসাঁকো

চিঠি : চাঁদপুরের দাসেরগাঁও জমজমিয়া খালে সেতু চাই

চিঠি : ইনফ্লুয়েন্সার মার্কেটিং ও ই-কমার্স

চিঠি : বাজেটে দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে গুরুত্ব দিন

চিঠি : প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন

চিঠি : চ্যাট জিপিটি বনাম জলবায়ু পরিবর্তন

চিঠি : চ্যাট জিপিটি বনাম জলবায়ু পরিবর্তন

চিঠি : ফলাফল জটে ঢাবি অধিভুক্ত ৭ কলেজ

চিঠি : সেতু চাই

চিঠি : কোথায় গেলে পাব এমন সোনার মানুষ

চিঠি : সাপের কামড় থেকে রক্ষা পেতে চাই সচেতনতা

চিঠি : অর্থনৈতিক সংকট মিটবে কিভাবে

চিঠি : মাদকের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন

চিঠি : বাঙালির হালখাতা

চিঠি : বঙ্গবাজার, নিউ সুপার মার্কেট, তারপর?

চিঠি : চাকুলিয়ার রাস্তা পাকা করা জরুরি

চিঠি : জানি কিন্তু মানি না

চিঠি : সড়ক ব্যবস্থাপনায় ছাড় নয়

চিঠি : স্বস্তি নেই নিত্যপণ্যের দামে

চিঠি : অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসন করুন

tab

চিঠিপত্র

চিঠি : এসি বিস্ফোরণ এড়াতে সচেতন হোন

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নন

বৃহস্পতিবার, ১৬ মার্চ ২০২৩

দিন দিন বাড়ছে এসির ব্যবহার। সেই সঙ্গে বাড়ছে এসি দুর্ঘটনা। মাঝে মধ্যে এসি বিস্ফোরণে হতাহতের খবর পাওয়া যায়। গত এক সাপ্তাহের ব্যবধানে দুটি ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটেছে। যেখানে দোকানের মালিক কর্মচারী এবং পথচারীদের অনেকেই প্রাণ হারান; যা খুবই দুঃখজনক। কিন্তু কী কারণে ঘটে এসি দুর্ঘটনা, সেটা সবার জানা দরকার। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, অনেকে রুমের লোড অনুপাতে এসি ব্যবহার করেন না। ফলে এসিটি অনেক্ষণ ধরে চলতে থাকে। তাই অতিরিক্ত গরম হয়ে যায়।

বাতাসকে শীতল করার জন্য এসিতে উচ্চচাপে রেফ্রিজারেন্ট গ্যাস ব্যবহার করা হয়। যদি রেফ্রিজারেন্টে লিক হয়, তবে বিপজ্জনক পরিস্থিতির সৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া কিছু এসি দীর্ঘ সময় চালালে বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতিগুলো অতিরিক্ত গরম হতে পারে, যার ফলে বিস্ফোরণ ঘটে। সঠিকভাবে রক্ষণাবেক্ষণ না করার কারণেও এসির বিস্ফোরণ ঘটতে পারে।

এসি দুর্ঘটনা এড়াতে রুমের আকার অনুযায়ী সঠিকমাত্রার এসি নির্ধারণ করা। পেশাদারদের মাধ্যমে নিয়মিত সার্ভিসিং করানো। দীর্ঘসময় একটানা এসি না চালিয়ে মাঝে মাঝে বিরতি দেয়া। নির্ভরযোগ্য ব্র্যান্ডের এসি কেনা। বৃষ্টি ও বজ্রপাতের সময় এসির ব্যবহার বন্ধ রাখা। হাই ভোল্টেজ এড়াতে বাড়তি সার্কিট ব্রেকার ব্যবহার করা। একনাগাড়ে আট ঘণ্টার বেশি ব্যবহার করা উচিত নয়। বৈদ্যুতিক সংযোগ, সকেট, ফিল্টার নিয়মিত পরীক্ষা করা। এসি ব্যবহারে সতর্কতা ও সচেতনতা বাড়াতে হবে। তাহলে এসি দুর্ঘঘটনা থেকে নিজেদের রক্ষা করা যাবে।

সাকিবুল হাছান

back to top