alt

বিনোদন

প্রকাশিত হলো তাদের কন্ঠে -জয় বাংলা বাংলার জয়-

বিনোদন বার্তা পরিবেশক : শনিবার, ২৫ মার্চ ২০২৩

আজ স্বাধীনতা দিবসকে উপলক্ষ্য করেই গতকাল ২৫ মার্চ সন্ধ্যা সাতটায় -আইপিডিসি আমাদের গান- ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত হয়েছে গাজী মাজহারুল আনোয়ারের লেখা বিখ্যাত গান -জয় বাংলা বাংলার জয়-। মুক্তিযুদ্ধের সময় এই গানের সুর সঙ্গীত করেছিলেন আনোয়ার পারভেজ। সেই সময় গানটিতে মূলত কন্ঠ দিয়েছিলেন প্রয়াত সঙ্গীতশিল্পী আব্দুল জব্বার। তারসাথে স্বাধীন বাংলা বেতারের আরো কয়েকজন শিল্পী কোরাসে অংশ নিয়েছিলেন। -জয় বাংলা বাংলার জয়- গানটি নতুন করে এই প্রজন্মের শিল্পীদের কন্ঠে এবার শ্রোতা দর্শক উপভোগ করতে পারবেন।

নতুন করে গানের সঙ্গীতায়েঅজন করেছেন বাংলাদেশের মেধাবী সুরকার, সঙ্গীত পরিচালক ইমন সাহা। গানটিতে কন্ঠ দিয়েছেন গাজী মাজহারুল আনোয়ারের যোগ্য উত্তরসূরী সঙ্গীতশিল্পী দিঠি আনোয়ার, ইউসুফ আহমেদ খান, কোনাল, অয়ন চাকলাদার, টিনা রাসেল, সন্ধি, মেহরাব, শান্তা ইসলাম। গানটির সার্বিক পরিকল্পনা ও পরিচালনায় ছিলেন রাশিদ খান। গানটি প্রসঙ্গে দিঠি আনোয়ার বলেন,-নতুন করে গানটির সঙ্গীতায়োজন এবং রাশিদ খান ভাইয়ের পরিচালনা, এবং সর্বোপরি সকল শিল্পীর গানটিকে মনে লালন করে গাওয়া, গহানটির সাথে সম্পৃক্ত থাকা-সবমিলিয়ে খুউব ভালো হয়েছে। এই প্রজন্মের শ্রোতা দর্শকের কথা ভাবনায় রেখেই গানটি নতুন করে করা এবং সবার সামনে তুলে ধরা। বাংলাদেশ যতোদিন থাকবে এই গান ততোদিন থাকবে, আর আমার আব্বুও এই গানের মাঝেই শত শত বছর পরেও বেঁচে থাকবেন ’ ইউসুফ বলেন,‘ এ আমার পরম পাওয়া যে আমি জয় বাংলা বাংলার জয়’র মতো কালজয়ী গানের সাথে সম্পৃক্ত থাকতে পেরেছি। আমি অবশ্যই কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করি দিঠি আপু, উপল ভাই’সহ তাদের পুরো পরিবারের প্রতি।

ছবি

জীবনানন্দ দাশের কবিতা ও মহীনের ঘোড়াগুলির গানে আনন্দ সন্ধ্যালোক

ছবি

ফিল্ম ক্লাবের নির্বাচনে বিজয়ী যারা

ছবি

ঈদে আসছে ‘দেয়ালের দেশ’

ছবি

রাজীবের হাত ধরে মালাইকা ,সঙ্গে অনিমেষ

ছবি

শাফিন আহমেদের জীবনি নিয়ে ‘পথিকার’

ছবি

ইউটিউবের আমন্ত্রণে প্রথম বাংলাদেশি রাফসান

ছবি

সংসার ভাঙল মাহিয়া মাহির

ছবি

বইমেলায় এজাজের ‘আমার হুমায়ূন স্যার’

ছবি

মিঠুন চক্রবর্তী হাসপাতালে

ছবি

ঈদে আসবে রাজশাহীর ‘পটু’

ছবি

‘কাজলরেখা’ চলচ্চিত্রের দ্বিতীয় গান প্রকাশিত

ছবি

ঢাকাই শাড়ি নিয়ে নতুন গান

ছবি

জোভান-তটিনী অভিনিত ‘একটাই তুমি’

ছবি

অভিনেতা আহমেদ রুবেল মারা গেছেন

ছবি

আসছে তৌসিফ-পায়েলের ‘বউ বোঝে না-২’

ছবি

নায়িকা মিমির মনের খবর নিয়ে গান

ছবি

নতুন মুখের নতুন ধারাবাহিক ‘দেনা পাওনা’

ছবি

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে তিন দিনের নাট্যোৎসব

ছবি

ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে দেশসেরা ‘সাবিত্রী’

ছবি

ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের শেষ দিনে আজ থাকছে ‘নোনা পানি’

ছবি

নতুন বছরে প্রথম গানে জীবন-আনিসা

ছবি

চিত্রনায়ক আরেফিন শুভর মা আর নেই

ছবি

মুক্তির আগেই রাম চরণের সিনেমার আয় ৩০০ কোটি

ছবি

মঞ্চে আসছে ‘ক্রীতদাসের হাসি’

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন শর্মিলা ঠাকুর

ছবি

দুই নায়িকা নিয়ে আজ ফিরছেন আরজু

ছবি

দুই বাংলায় মুক্তি পাচ্ছে হিরো আলমের সিনেমা

ছবি

বিয়ে করলেন উপস্থাপিকা মৌসুমী মৌ

ছবি

৯৬তম অস্কারের মনোনয়ন তালিকা প্রকাশ, সর্বোচ্চ মনোনয়ন পেল ‘ওপেনহাইমার’

ছবি

অস্কার মনোনয়ন২০২৪

ছবি

আজ ‘নায়ক রাজ’র দিন

ছবি

ব্রেন স্ট্রোক হয়ে আইসিউতে ফারুকী

ছবি

পর্দা উঠছে ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের

ছবি

ওয়েব ফিল্মে উর্মিলা

ছবি

আইনি জটিলতায় ‘অ্যানিমেল’ ওটিটিতে মুক্তি স্থগিত

ছবি

‘টাইগার-৩’ সিনেমায় অভিনয় প্রসঙ্গে যা বললেন ইমরান

tab

বিনোদন

প্রকাশিত হলো তাদের কন্ঠে -জয় বাংলা বাংলার জয়-

বিনোদন বার্তা পরিবেশক

শনিবার, ২৫ মার্চ ২০২৩

আজ স্বাধীনতা দিবসকে উপলক্ষ্য করেই গতকাল ২৫ মার্চ সন্ধ্যা সাতটায় -আইপিডিসি আমাদের গান- ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত হয়েছে গাজী মাজহারুল আনোয়ারের লেখা বিখ্যাত গান -জয় বাংলা বাংলার জয়-। মুক্তিযুদ্ধের সময় এই গানের সুর সঙ্গীত করেছিলেন আনোয়ার পারভেজ। সেই সময় গানটিতে মূলত কন্ঠ দিয়েছিলেন প্রয়াত সঙ্গীতশিল্পী আব্দুল জব্বার। তারসাথে স্বাধীন বাংলা বেতারের আরো কয়েকজন শিল্পী কোরাসে অংশ নিয়েছিলেন। -জয় বাংলা বাংলার জয়- গানটি নতুন করে এই প্রজন্মের শিল্পীদের কন্ঠে এবার শ্রোতা দর্শক উপভোগ করতে পারবেন।

নতুন করে গানের সঙ্গীতায়েঅজন করেছেন বাংলাদেশের মেধাবী সুরকার, সঙ্গীত পরিচালক ইমন সাহা। গানটিতে কন্ঠ দিয়েছেন গাজী মাজহারুল আনোয়ারের যোগ্য উত্তরসূরী সঙ্গীতশিল্পী দিঠি আনোয়ার, ইউসুফ আহমেদ খান, কোনাল, অয়ন চাকলাদার, টিনা রাসেল, সন্ধি, মেহরাব, শান্তা ইসলাম। গানটির সার্বিক পরিকল্পনা ও পরিচালনায় ছিলেন রাশিদ খান। গানটি প্রসঙ্গে দিঠি আনোয়ার বলেন,-নতুন করে গানটির সঙ্গীতায়োজন এবং রাশিদ খান ভাইয়ের পরিচালনা, এবং সর্বোপরি সকল শিল্পীর গানটিকে মনে লালন করে গাওয়া, গহানটির সাথে সম্পৃক্ত থাকা-সবমিলিয়ে খুউব ভালো হয়েছে। এই প্রজন্মের শ্রোতা দর্শকের কথা ভাবনায় রেখেই গানটি নতুন করে করা এবং সবার সামনে তুলে ধরা। বাংলাদেশ যতোদিন থাকবে এই গান ততোদিন থাকবে, আর আমার আব্বুও এই গানের মাঝেই শত শত বছর পরেও বেঁচে থাকবেন ’ ইউসুফ বলেন,‘ এ আমার পরম পাওয়া যে আমি জয় বাংলা বাংলার জয়’র মতো কালজয়ী গানের সাথে সম্পৃক্ত থাকতে পেরেছি। আমি অবশ্যই কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করি দিঠি আপু, উপল ভাই’সহ তাদের পুরো পরিবারের প্রতি।

back to top