alt

আন্তর্জাতিক

ফিলিপাইনে নতুন প্রেসিডেন্টের শপথ আজ

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২

ফিলিপাইনের বিদায়ী নেতা রদ্রিগো দুতার্তের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন ফার্দিনান্দ মার্কোস জুনিয়র।দেশটির পরবর্তী রাষ্ট্রপতি হিসেবে স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) দুপুরে ম্যানিলার ন্যাশনাল মিউজিয়ামে শপথ নেবেন মার্কোস জুনিয়র। শতাধিক দেশি ও বিদেশি বিশিষ্ট ব্যক্তি এতে অংশ নেবেন এবং ফিলিপাইনের রাজধানীজুড়ে প্রায় ১৫ হাজার নিরাপত্তাকর্মী মোতায়েন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

মার্কোস জুনিয়র ওরফে বং বং নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী লেনি রব্রেদোকে হারাতে ৬০ শতাংশ ভোট পেয়েছেন। তার এই জয়ের মাধ্যমে মার্কোস রাজনৈতিক পরিবারের চমকপ্রদ প্রত্যাবর্তন ঘটে, যা ১৯৮৬ সালে বিক্ষোভের মুখে ক্ষমতাচ্যুত হয়েছিল। বর্তমান প্রেসিডেন্টের মেয়ে সারা দুতের্তে ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেবেন।

কয়েক দিন আগে ম্যানিলার সুপ্রিম কোর্টের রায়ে বলা হয়, কর ফাঁকির জন্য দোষী সাব্যস্ত হওয়া নতুন প্রেসিডেন্ট কার্যভার গ্রহণের অযোগ্য হবেন না।

৬৪ বছর বয়সী এই নেতা এমন একটি সময়ে প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন যখন ফিলিপাইন এখনও এক বছরের দীর্ঘ মহামারির প্রভাব কাটিয়ে উঠার প্রচেষ্টায় রয়েছে। দেশটির আকাশছোঁয়া মুদ্রাস্ফীতি এবং ক্রমবর্ধমান ঋণে জর্জরিত।

সমালোচকরা বলছেন, মার্কোস জুনিয়রের নীতি সংস্কারে কর্মসংস্থান বৃদ্ধি এবং নিত্যপণ্যের দাম ঠেকাতে তার ব্যাপক প্রতিশ্রুতির বিষয়ে খুব কমই আলোচনা হয়েছে।

কেউ কেউ আবার দুতার্তের মেয়াদের পরিপ্রেক্ষিতে দেশটির হারানো ভাবমূর্তি পুনরুদ্ধারের জন্য মার্কোস জুনিয়রের দিকে তাকিয়ে আছেন।

তবে মার্কোস জুনিয়রের ক্ষমতা গ্রহণের একদিন আগে ফিলিপাইনের কর্মকর্তারা জানান, তারা অনুসন্ধানী সংবাদভিত্তিক ওয়েবসাইট র্যাপলার বন্ধ করার সিদ্ধান্তে অটল রয়েছেন। ফিলিপাইনের কয়েকটি মিডিয়া আউটলেটের মধ্যে র্যাপলার একটি, যা রদ্রিগো দুতের্তের সরকারের সমালোচনা করে।

মার্কোস জুনিয়রের অভিষেকের মধ্য দিয়ে রাজনৈতিক গৌরব পুনরুদ্ধার করার জন্য মার্কোসেদের এক দশকের দীর্ঘ সংগ্রামের সমাপ্তি ঘটতে যাচ্ছে। তার বাবা ফার্দিনান্দ ১৯৬৫ থেকে ১৯৮৬ সাল পর্যন্ত দেশটির নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। তার শাসনামলে সামরিক আইন জারি করা, ব্যাপক মানবাধিকার লঙ্ঘন, দুর্নীতি এবং দারিদ্র্যতা বেড়ে যাওয়ায় ঘটনা ঘটে।

সেই শাসন ১৯৮৬ সালে শেষ হয়েছিল, যখন একটি গণঅভ্যুত্থানে লাখ লাখ মানুষ রাস্তায় নেমে এসেছিল এবং ২৮ বছর বয়সী বংবংসহ মার্কোস পরিবার হাওয়াইয়ের উদ্দেশে দেশ ছেড়ে পালিয়েছিল।

মার্কোস জুনিয়র ১৯৯১ সালে ফিলিপাইনে ফিরে এসেছিলেন, তখন থেকেই তিনি তার পিতার শাসনামলকে সমৃদ্ধির সুবর্ণ সময় হিসেবে চিত্রিত করতে চেয়েছিলেন।

ছবি

ট্রাম্পের বাড়িতে অভিযান: ওয়ারেন্ট প্রকাশের বিরোধিতায় বিচার বিভাগ

ছবি

আফগানিস্তানে তালেবান শাসনের বর্ষপূর্তিকে অন্ধকারাচ্ছন্ন বললেন মালালা

ছবি

কাশ্মীরে নিরাপত্তা বাহিনীর ৩৯ সদস্যকে নিয়ে বাস নদীতে, নিহত ৭

ছবি

প্রতিদ্বন্দ্বী দেশগুলোর চেয়ে রাশিয়ার অস্ত্র অনেক উন্নত: পুতিন

ছবি

ভারতের আপত্তির পরও চীনা ‘গোয়েন্দা’ জাহাজ নোঙরের অনুমতি দিলো শ্রীলঙ্কা

ছবি

কেনিয়ার নতুন প্রেসিডেন্ট উইলিয়াম রুতো

ছবি

তুরস্কের ইতিহাসে প্রথম নারী জেনারেল ওজলেম ইলমাজ

ছবি

পাকিস্তানে ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনা, নিহত অন্তত ২০

ছবি

সেপ্টেম্বরে দেশে ফিরবেন নওয়াজ শরিফ

ছবি

তাইওয়ান ঘিরে নতুন যুদ্ধ মহড়া শুরু করেছে চীন

ছবি

আর্মেনিয়ায় গুদামে বিস্ফোরণ, মৃত্যু বেড়ে ১১

ছবি

কাবা ঘর পরিষ্কার করলেন সৌদি যুবরাজ

ছবি

তাইওয়ানের ৭ কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা

ছবি

দুর্নীতির মামলায় সু চির ৬ বছরের কারাদণ্ড

ছবি

আন্তর্জাতিক বাজারে আরও কমল জ্বালানি তেলের দাম

ছবি

রুশদির ওপর হামলায় জড়িত থাকার অভিযোগ অস্বীকার ইরানের

ছবি

চলে গেলেন মার্কিন অভিনেত্রী অ্যান হেচ

ছবি

ফের বিশ্ব বাজারে কমলো জ্বালানি তেলের দাম

পারস্য উপসাগরে তেলসহ জাহাজ আটক করেছে ইরান

ছবি

কারও সঙ্গে কথা বলতে রাজি নন রুশদির ‘হামলাকারীর’ বাবা

ছবি

কিমকে চিঠি লিখেছেন পুতিন

ছবি

ইউক্রেইনের দোনেৎস্ক অঞ্চলে রাশিয়ার হামলা

ছবি

রুশদির ওপর হামলাকে ‘নিষ্ঠুর রসিকতা’ ভেবেছিলেন উপস্থাপক

ছবি

৩৮ বছর পর তুষার-সমাধি থেকে ভারতীয় সেনার মরদেহ উদ্ধার

ছবি

২৫ বছরে উন্নত দেশ হবে ভারত, স্বাধীনতা দিবসে মোদি

ছবি

আইফেল টাওয়ারের চেয়েও উঁচু রেল সেতু কাশ্মীরে

ছবি

মিশরে গির্জায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, নিহত ৪০

ছবি

জে কে রাওলিংকে প্রাণনাশের হুমকি

ছবি

যুক্তরাষ্ট্রকে রাশিয়ার ‍‍হুঁশিয়ারিঃ সম্পদ জব্দ করলে আর সম্পর্কই থাকবে না

ছবি

রুশদিকে কুপিয়ে ‘মোটেও অনুতপ্ত’ নন হাদি মাতার

ছবি

ডলারের বিকল্প অন্যান্য মুদ্রা কিনে রাখছে রাশিয়া

ছবি

জেরুজালেমে অস্ত্রধারীর গুলিতে গুরুতর আহত ৮ ইসরায়েলি

ছবি

ভেন্টিলেটর খোলা হয়েছে, কথা বলছেন রুশদি

ছবি

সৌদি আরবে গৃহকর্মী আইন পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত

ছবি

সালমান রুশদির হামলাকারীকে রিমান্ডে নেয়ার নির্দেশ

ছবি

শাহবাজ আমদানি করা সরকার, পতন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন : ইমরান খান

tab

আন্তর্জাতিক

ফিলিপাইনে নতুন প্রেসিডেন্টের শপথ আজ

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২

ফিলিপাইনের বিদায়ী নেতা রদ্রিগো দুতার্তের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন ফার্দিনান্দ মার্কোস জুনিয়র।দেশটির পরবর্তী রাষ্ট্রপতি হিসেবে স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) দুপুরে ম্যানিলার ন্যাশনাল মিউজিয়ামে শপথ নেবেন মার্কোস জুনিয়র। শতাধিক দেশি ও বিদেশি বিশিষ্ট ব্যক্তি এতে অংশ নেবেন এবং ফিলিপাইনের রাজধানীজুড়ে প্রায় ১৫ হাজার নিরাপত্তাকর্মী মোতায়েন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

মার্কোস জুনিয়র ওরফে বং বং নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী লেনি রব্রেদোকে হারাতে ৬০ শতাংশ ভোট পেয়েছেন। তার এই জয়ের মাধ্যমে মার্কোস রাজনৈতিক পরিবারের চমকপ্রদ প্রত্যাবর্তন ঘটে, যা ১৯৮৬ সালে বিক্ষোভের মুখে ক্ষমতাচ্যুত হয়েছিল। বর্তমান প্রেসিডেন্টের মেয়ে সারা দুতের্তে ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেবেন।

কয়েক দিন আগে ম্যানিলার সুপ্রিম কোর্টের রায়ে বলা হয়, কর ফাঁকির জন্য দোষী সাব্যস্ত হওয়া নতুন প্রেসিডেন্ট কার্যভার গ্রহণের অযোগ্য হবেন না।

৬৪ বছর বয়সী এই নেতা এমন একটি সময়ে প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন যখন ফিলিপাইন এখনও এক বছরের দীর্ঘ মহামারির প্রভাব কাটিয়ে উঠার প্রচেষ্টায় রয়েছে। দেশটির আকাশছোঁয়া মুদ্রাস্ফীতি এবং ক্রমবর্ধমান ঋণে জর্জরিত।

সমালোচকরা বলছেন, মার্কোস জুনিয়রের নীতি সংস্কারে কর্মসংস্থান বৃদ্ধি এবং নিত্যপণ্যের দাম ঠেকাতে তার ব্যাপক প্রতিশ্রুতির বিষয়ে খুব কমই আলোচনা হয়েছে।

কেউ কেউ আবার দুতার্তের মেয়াদের পরিপ্রেক্ষিতে দেশটির হারানো ভাবমূর্তি পুনরুদ্ধারের জন্য মার্কোস জুনিয়রের দিকে তাকিয়ে আছেন।

তবে মার্কোস জুনিয়রের ক্ষমতা গ্রহণের একদিন আগে ফিলিপাইনের কর্মকর্তারা জানান, তারা অনুসন্ধানী সংবাদভিত্তিক ওয়েবসাইট র্যাপলার বন্ধ করার সিদ্ধান্তে অটল রয়েছেন। ফিলিপাইনের কয়েকটি মিডিয়া আউটলেটের মধ্যে র্যাপলার একটি, যা রদ্রিগো দুতের্তের সরকারের সমালোচনা করে।

মার্কোস জুনিয়রের অভিষেকের মধ্য দিয়ে রাজনৈতিক গৌরব পুনরুদ্ধার করার জন্য মার্কোসেদের এক দশকের দীর্ঘ সংগ্রামের সমাপ্তি ঘটতে যাচ্ছে। তার বাবা ফার্দিনান্দ ১৯৬৫ থেকে ১৯৮৬ সাল পর্যন্ত দেশটির নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। তার শাসনামলে সামরিক আইন জারি করা, ব্যাপক মানবাধিকার লঙ্ঘন, দুর্নীতি এবং দারিদ্র্যতা বেড়ে যাওয়ায় ঘটনা ঘটে।

সেই শাসন ১৯৮৬ সালে শেষ হয়েছিল, যখন একটি গণঅভ্যুত্থানে লাখ লাখ মানুষ রাস্তায় নেমে এসেছিল এবং ২৮ বছর বয়সী বংবংসহ মার্কোস পরিবার হাওয়াইয়ের উদ্দেশে দেশ ছেড়ে পালিয়েছিল।

মার্কোস জুনিয়র ১৯৯১ সালে ফিলিপাইনে ফিরে এসেছিলেন, তখন থেকেই তিনি তার পিতার শাসনামলকে সমৃদ্ধির সুবর্ণ সময় হিসেবে চিত্রিত করতে চেয়েছিলেন।

back to top