alt

চিঠিপত্র

চিঠি : শীতার্ত মানুষের সাহায্যে এগিয়ে আসুন

: বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নন

সকাল সন্ধ্যা কুয়াশা ও ঠান্ডা স্পর্শ শীতের আগমনী বার্তা জানান দিচ্ছে। আসি আসি করে শীত এসে গেল। গ্রামীণ জনপদ থেকে শুরু করে শহরে সর্বত্র শীতের আমেজ লক্ষ করা যাচ্ছে। ধানের ডগায় আর দুর্বাঘাসের মাথায় জমছে শিশির। এই শীতকাল কারও কাছে উপভোগ্য আবার কারও কাছে দুর্বিষহ। অনেকে শীতের গরম কাগড় কিনে নিচ্ছে। ভ্রমণের জন্য প্রস্তুতি শুরু হচ্ছে।

অনেকের কাছে শীতকাল আসে অভিশাপ হয়ে। শীতে ছিন্নমূল মানুষের কষ্ট বেড়ে যাবে কয়েকগুণ। বিশেষ করে দেশের উত্তরাঞ্চলে। শহর অঞ্চলে শীতের অনুভূতি বেশি না হলেও গ্রামে, পাহাড়ি, নিম্ন-অঞ্চলে কুয়াশা ও ঠান্ডা বাতাস বাড়িয়ে দেয় শীতের তীব্রতা। তখন খাবারের চেয়ে শীত নিবারণ বেশি জরুরি হয়ে পড়ে।

শীতের মাঝামাঝি শৈত্যপ্রবাহের সঙ্গে ঘন কুয়াশায় কাঁপতে কাঁপতে রাত যাপন করে এ অঞ্চলের মানুষ। অনেকে আগুন জ্বালিয়ে গরম তাপে রাত কাটিয়ে দেয়। অপেক্ষায় থাকেন একটু উঞ্চতার পরশ পেতে গরম কাপড়ের জন্য। এই সময় শিশু ও বৃদ্ধরা বেশি রোগ-কষ্টে ভোগেন। রাস্তার ধারে, রেল স্টেশনে, যাত্রী ছাউনিতে, খোলা আকাশের নিচে শীতের কষ্টে রাত কাটাতে দেখা যায় সহায় সম্বলহীন মানুষগুলা। তাই আমাদের সবার উচিত নিজ নিজ অবস্থান সাধ্যমতো থেকে এসব অসহায়, দুস্থ মানুষের পাশে দাঁড়ানো।

মো. সাইমুন

চিঠি : পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সংকটের সমাধান

চিঠি : কুষ্টিয়ায় বিমানবন্দর চাই

চিঠি : পাঠকক্ষটিতে পড়াশোনার পরিবেশ নিশ্চিত করুন

চিঠি : রাজধানীতে বাড়ি ভাড়ার বাড়াবাড়ি

চিঠি : লেকের ময়লা-আবর্জনা পরিষ্কার করুন

চিঠি : সোনালি অতীত

চিঠি : জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা স্থগিত, দায় নেবে কে?

চিঠি : সরকারি চাকরিজীবীদের সম্পদের হিসাব বিবরণী

চিঠি : সেশনজট নয়, জীবনজটে বন্দী শিক্ষার্থীরা

চিঠি : করোনা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান পরীক্ষা

শাবিপ্রবির শিক্ষার্থীদের আন্দোলন

মানব পাচার

চিঠি : শিক্ষার্থীদের এইভাবে রক্তাক্ত না করলে কি চলত না

চিঠি : বিএসটিআইকে আরও তৎপর হতে হবে

চিঠি : লোকাল বাসে অতিরিক্ত যাত্রী

চিঠি : করোনায় জীবনের সব সঞ্চয় শেষ

চিঠি : তবুও মাস্ক ব্যবহারে উদাসীনতা

চিঠি : একক পরিচয়পত্র চাই

চিঠি : সঠিকভাবে গুদামজাতকরণে নজর দিতে হবে

চিঠি : সুষ্ঠু নির্বাচন চাই

চিঠি : মাস্ক পরায় উদাসীনতা

চিঠি : শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কি হটস্পট

চিঠি : শিক্ষা আমার অধিকার

চিঠি : সন্তানের কর্তব্য

চিঠি : নিরাপদ সড়কের বিকল্প নেই

চিঠি : গতির নেশায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনা

চিঠি : শীত ও মানবিকতা

চিঠি : অদক্ষ চালক

চিঠি : বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি প্রক্রিয়ায় সংস্কার চাই

চিঠি : চাই উন্নত শিক্ষা

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শূন্য পাস

চিঠি : কালুরঘাটে নতুন ব্রিজ চাই

চিঠি : ভেজাল খাদ্য থেকে মুক্তি চাই

চিঠি : ইবিতে গাছ লাগানো কর্মসূচি চাই

চিঠি : দালালের দখলে হাসপাতাল

চিঠি : মেধা বিকাশে বই

tab

চিঠিপত্র

চিঠি : শীতার্ত মানুষের সাহায্যে এগিয়ে আসুন

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নন

বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১

সকাল সন্ধ্যা কুয়াশা ও ঠান্ডা স্পর্শ শীতের আগমনী বার্তা জানান দিচ্ছে। আসি আসি করে শীত এসে গেল। গ্রামীণ জনপদ থেকে শুরু করে শহরে সর্বত্র শীতের আমেজ লক্ষ করা যাচ্ছে। ধানের ডগায় আর দুর্বাঘাসের মাথায় জমছে শিশির। এই শীতকাল কারও কাছে উপভোগ্য আবার কারও কাছে দুর্বিষহ। অনেকে শীতের গরম কাগড় কিনে নিচ্ছে। ভ্রমণের জন্য প্রস্তুতি শুরু হচ্ছে।

অনেকের কাছে শীতকাল আসে অভিশাপ হয়ে। শীতে ছিন্নমূল মানুষের কষ্ট বেড়ে যাবে কয়েকগুণ। বিশেষ করে দেশের উত্তরাঞ্চলে। শহর অঞ্চলে শীতের অনুভূতি বেশি না হলেও গ্রামে, পাহাড়ি, নিম্ন-অঞ্চলে কুয়াশা ও ঠান্ডা বাতাস বাড়িয়ে দেয় শীতের তীব্রতা। তখন খাবারের চেয়ে শীত নিবারণ বেশি জরুরি হয়ে পড়ে।

শীতের মাঝামাঝি শৈত্যপ্রবাহের সঙ্গে ঘন কুয়াশায় কাঁপতে কাঁপতে রাত যাপন করে এ অঞ্চলের মানুষ। অনেকে আগুন জ্বালিয়ে গরম তাপে রাত কাটিয়ে দেয়। অপেক্ষায় থাকেন একটু উঞ্চতার পরশ পেতে গরম কাপড়ের জন্য। এই সময় শিশু ও বৃদ্ধরা বেশি রোগ-কষ্টে ভোগেন। রাস্তার ধারে, রেল স্টেশনে, যাত্রী ছাউনিতে, খোলা আকাশের নিচে শীতের কষ্টে রাত কাটাতে দেখা যায় সহায় সম্বলহীন মানুষগুলা। তাই আমাদের সবার উচিত নিজ নিজ অবস্থান সাধ্যমতো থেকে এসব অসহায়, দুস্থ মানুষের পাশে দাঁড়ানো।

মো. সাইমুন

back to top