alt

শিক্ষা

এইচএসসি’র প্রশ্নে সাম্প্রদায়িক উসকানির ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করেছে

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক: : মঙ্গলবার, ০৮ নভেম্বর ২০২২

গত ৬ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হওয়া উচ্চ মাধ্যমিকের (এইচএসসি) বাংলা প্রথম পত্রের পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে ‘সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষমূলক’ প্রশ্ন রাখার ঘটনায় জড়িত শিক্ষকদের চিহ্নিত করেছে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড।

ওই প্রশ্নপত্র প্রণয়নে যশোর শিক্ষা বোর্ডের একাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা জড়িত ছিলেন বলে ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির সভাপতি তপন কুমার সরকার জানিয়েছেন।

এছাড়া এ ঘটনায় ঢাকার মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের প্যাডে চিহ্নিত শিক্ষকদের নাম ও পরিচয় সম্বলিত একটি অস্বাক্ষরিত নথি মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের গণমাধ্যমকে সরবরাহ করেছেন।

এতে দেখা গেছে, বাংলা প্রথম প্রত্রের সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষমূলক প্রশ্নপত্রটি যশোর শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক প্রণীত। বাংলা প্রথম পত্রের বিতর্কিত প্রশ্নটি করেছেন ঝিনাইদহের মহেশপুরের ডা. সাইফুল ইসলাম ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক প্রশান্ত কুমার পাল। আর এ প্রশ্নপত্রটি পরিশোধনের (মডারেশেন) দায়িত্বে ছিলেন নড়াইলের সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজের সহযোগী অধ্যাপক সৈয়দ তাজউদ্দীন শাওন, সাতক্ষীরা সরকারি মহিলা কলেজের সহযোগী অধ্যাপক মো. শফিকুর রহমান, মির্জাপুর ইউনাইটেড কলেজের সহকারী অধ্যাপক শ্যামল কুমার ঘোষ ও কুষ্টিয়া ভেড়ামারা আদর্শ কলেজের সহকারী অধ্যাপক অধ্যাপক মো. রেজাউল করিম।

এ বিষয়ে ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির সভাপতি বলেন, প্রশ্নটি যশোর শিক্ষা বোর্ডের অধীন বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের মাধ্যমে প্রনয়ন হয়েছে। এখন নিয়ম অনুযায়ী যশোর শিক্ষা বোর্ড অভিযুক্ত শিক্ষকদের শোকজ করবে। এরপর এদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার জন্য আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটি ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করবে। সে অনুযায়ী শিক্ষা মন্ত্রণালয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

গত রোববার (৬ নভেম্বর) সারা দেশে এইচএসসির বাংলা প্রথম পত্রের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকা বোর্ডের ‘কাসালাং’ সেটের নাটক-সিরাজউদ্দৌলা অংশের ১১ নং প্রশ্নে সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষের বিষয়টি ফুটে এসেছে।

প্রশ্নের একটি অংশে বলা হয়, ‘নেপাল ও গোপাল দুই ভাই। জমি নিয়ে বিরোধ তাদের দীর্ঘদিন। অনেক সালিস বিচার করেও কেউ তাদের বিরোধ মেটাতে পারেনি। কেউ কাউকে ছাড় দিতে নারাজ। এখন জমির ভাগ-বণ্টন নিয়ে মামলা চলছে আদালতে। ছোট ভাই নেপাল বড় ভাইকে শায়েস্তা করতে আব্দুল নামের এক মুসলমানের কাছে ভিটের জমির এক অংশ বিক্রি করে। আব্দুল সেখানে বাড়ি বানিয়ে স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করে। কোরবানির ঈদে সে নেপালের বাড়ির সামনে গরু কোরবানি দেয়। এই ঘটনায় নেপালের মন ভেঙে যায়। কিছুদিন পর কাউকে কিছু না বলে জমি-জায়গা ফেলে সপরিবারে ভারতে চলে যায় সে।’

এই গল্প উল্লেখ করে প্রশ্নপত্রে চারটি প্রশ্ন করা হয়। তার দুটি এ রকম- মিরজাফর কোন দেশ হতে ভারতে আসেন? উদ্দীপকের নেপাল চরিত্রের সঙ্গে সিরাজউদ্দৌলা নাটকের মিরজাফর চরিত্রের তুলনা করো?

ছবি

বিশেষ ক্লাসের নামে স্কুলে কোচিং নয়-মাউশি

ছবি

বিশ্বসেরা ২% গবেষকের তালিকায় থাকা জাবি শিক্ষার্থী চান্স পেল অক্সফোর্ডে

ছবি

মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক শূন্যপদের তথ্য চেয়েছে:এনটিআরসিএ

ছবি

ইস্ট ওয়েস্টের সমাবর্তনে শিক্ষামন্ত্রী বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি ডিগ্রির অনুমতি

ছবি

ভিকারুননিসা নূন স্কুল এ্যান্ড কলেজের ১৬৯ জন শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল

ছবি

ভিকারুননিসার শিক্ষকরা কোচিং করাতে পারবেন না: ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ কেকা রায় চৌধুরী

শিক্ষক নিয়োগ না দিয়েই সাধারণ স্কুলে ‘বৃত্তিমূলক শিক্ষা’ : ৪ বছর পরও ৫৬ শতাংশ আসন ফাঁকা

সাময়িক বরখাস্ত:ভিকারুননিসার শিক্ষক মুরাদ গ্রেপ্তার

ছাত্রীদের যৌন হয়রানির অভিযোগে ভিকারুননিসার শিক্ষক মুরাদ সাময়িক বরখাস্ত

ছবি

বুধবার থেকে বান্দরবান সীমান্তের পাঁচটি প্রাথমিক বিদ্যালয় খুলে দেয়া হবে

ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে ৫ জন দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীর পরীক্ষা বাতিল

ছবি

গুচ্ছে ভর্তির আবেদনের সময় বাড়লো একদিন

ছবি

ভিকারুননিসা শিক্ষক মুরাদের শাস্তি দাবি অবস্থান কর্মসূচি ও মানববন্ধন

শিক্ষা প্রকল্পে এডিপি বাস্তবায়ন হার মাত্র সাড়ে ১১ শতাংশ

গার্ল গাইডের শিক্ষা কার্যক্রম নারীর নেতৃত্ব বিকাশের ক্ষেত্র তৈরী : ফার্স্ট লেডী প্রধান অতিথি ড. রেবেকা সুলতানা

ছবি

যৌন নির্যাতন ও হয়রানির অভিযোগ আমলে নেওয়ার আহ্বান: ইউজিসি

ছবি

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ, উত্তীর্ণ ২০ হাজার প্রার্থী

ছবি

দ্বিতীয় ধাপের প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ফল প্রকাশ, উত্তীর্ণ ২০ হাজার ৬৪৭

ছবি

নতুন শিক্ষাক্রমে শিক্ষক প্রশিক্ষণের ব্যয় নিয়ে জটিলতা

ছবি

এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা, ওএমআর শিট ছেড়ার অভিযোগ মিথ্যা: তদন্ত কমিটির মহাপরিচালক

ছবি

সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে ২০২৫ সালের এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে

ছবি

খুবির শিক্ষার্থীদের ‘মারধর’, প্রতিবাদে সড়কে বিক্ষোভ

ছবি

৪৬তম বিসিএস: পরীক্ষা হতে পারে এপ্রিলের শেষে

ছবি

পদোন্নতিতে বিসিএস শিক্ষা ক্যাডারে ‘বঞ্চনা ও অসন্তোষ’

ছবি

বঙ্গবন্ধুর সমাধিসৌধে ইইডি প্রধান প্রকৌশলীর শ্রদ্ধা

ছবি

এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার প্রথম দিনই অনুপস্থিত ১৯ হাজার ৩৫৯ জন শিক্ষার্থী

ছবি

এসএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য ডিএমপির কুইক রেসপন্স টিম

ছবি

ইইডির প্রধান প্রকৌশলীর মেয়াদ ২ বছর বাড়ল

ছবি

মায়ানমারে সংঘর্ষের কারণে ঘুমধুমের এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র পরিবর্তন

ছবি

রাবিতে ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ ও শিক্ষকের বিচার চেয়ে বিক্ষোভ

নতুন শিক্ষাক্রম মূল্যায়ন কমিটির প্রধানই তদন্তের আওতায়

ছবি

মেডিকেলে ভর্তির ফল প্রকাশ হতে পারে কাল বা পরশু

ছবি

প্রশ্ন ফাঁস বন্ধের লক্ষ্যে এমবিবিএস ভর্তি প্রক্রিয়া ডিজিটালাইজ করা হয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ডাক্তার হতে চাওয়া লাখো শিক্ষার্থী পরীক্ষায় বসেছেন

নতুন শিক্ষাক্রমে এসএসসি পরীক্ষা কীভাবে হবে সেই বিষয়ে উদ্বেগ

ছবি

চলতি শিক্ষাবর্ষের ছুটির তালিকায় রোজায় চলবে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুলের ক্লাস

tab

শিক্ষা

এইচএসসি’র প্রশ্নে সাম্প্রদায়িক উসকানির ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করেছে

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক:

মঙ্গলবার, ০৮ নভেম্বর ২০২২

গত ৬ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হওয়া উচ্চ মাধ্যমিকের (এইচএসসি) বাংলা প্রথম পত্রের পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে ‘সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষমূলক’ প্রশ্ন রাখার ঘটনায় জড়িত শিক্ষকদের চিহ্নিত করেছে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড।

ওই প্রশ্নপত্র প্রণয়নে যশোর শিক্ষা বোর্ডের একাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা জড়িত ছিলেন বলে ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির সভাপতি তপন কুমার সরকার জানিয়েছেন।

এছাড়া এ ঘটনায় ঢাকার মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের প্যাডে চিহ্নিত শিক্ষকদের নাম ও পরিচয় সম্বলিত একটি অস্বাক্ষরিত নথি মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের গণমাধ্যমকে সরবরাহ করেছেন।

এতে দেখা গেছে, বাংলা প্রথম প্রত্রের সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষমূলক প্রশ্নপত্রটি যশোর শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক প্রণীত। বাংলা প্রথম পত্রের বিতর্কিত প্রশ্নটি করেছেন ঝিনাইদহের মহেশপুরের ডা. সাইফুল ইসলাম ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক প্রশান্ত কুমার পাল। আর এ প্রশ্নপত্রটি পরিশোধনের (মডারেশেন) দায়িত্বে ছিলেন নড়াইলের সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজের সহযোগী অধ্যাপক সৈয়দ তাজউদ্দীন শাওন, সাতক্ষীরা সরকারি মহিলা কলেজের সহযোগী অধ্যাপক মো. শফিকুর রহমান, মির্জাপুর ইউনাইটেড কলেজের সহকারী অধ্যাপক শ্যামল কুমার ঘোষ ও কুষ্টিয়া ভেড়ামারা আদর্শ কলেজের সহকারী অধ্যাপক অধ্যাপক মো. রেজাউল করিম।

এ বিষয়ে ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির সভাপতি বলেন, প্রশ্নটি যশোর শিক্ষা বোর্ডের অধীন বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের মাধ্যমে প্রনয়ন হয়েছে। এখন নিয়ম অনুযায়ী যশোর শিক্ষা বোর্ড অভিযুক্ত শিক্ষকদের শোকজ করবে। এরপর এদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার জন্য আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটি ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করবে। সে অনুযায়ী শিক্ষা মন্ত্রণালয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

গত রোববার (৬ নভেম্বর) সারা দেশে এইচএসসির বাংলা প্রথম পত্রের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকা বোর্ডের ‘কাসালাং’ সেটের নাটক-সিরাজউদ্দৌলা অংশের ১১ নং প্রশ্নে সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষের বিষয়টি ফুটে এসেছে।

প্রশ্নের একটি অংশে বলা হয়, ‘নেপাল ও গোপাল দুই ভাই। জমি নিয়ে বিরোধ তাদের দীর্ঘদিন। অনেক সালিস বিচার করেও কেউ তাদের বিরোধ মেটাতে পারেনি। কেউ কাউকে ছাড় দিতে নারাজ। এখন জমির ভাগ-বণ্টন নিয়ে মামলা চলছে আদালতে। ছোট ভাই নেপাল বড় ভাইকে শায়েস্তা করতে আব্দুল নামের এক মুসলমানের কাছে ভিটের জমির এক অংশ বিক্রি করে। আব্দুল সেখানে বাড়ি বানিয়ে স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করে। কোরবানির ঈদে সে নেপালের বাড়ির সামনে গরু কোরবানি দেয়। এই ঘটনায় নেপালের মন ভেঙে যায়। কিছুদিন পর কাউকে কিছু না বলে জমি-জায়গা ফেলে সপরিবারে ভারতে চলে যায় সে।’

এই গল্প উল্লেখ করে প্রশ্নপত্রে চারটি প্রশ্ন করা হয়। তার দুটি এ রকম- মিরজাফর কোন দেশ হতে ভারতে আসেন? উদ্দীপকের নেপাল চরিত্রের সঙ্গে সিরাজউদ্দৌলা নাটকের মিরজাফর চরিত্রের তুলনা করো?

back to top