alt

জাতীয়

জাতিসংঘে একাত্তরে গণহত্যার স্বীকৃতি দাবি

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২

জেনেভায় জাতিসংঘ ভবনে অনুষ্ঠিত সেমিনারে ১৯৭১ সালে পাকিস্তানিদের দ্বারা সংঘটিত গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির দাবি এবং এই গণহত্যাকে অবিলম্বে স্বীকৃতি দেয়ার জন্য জাতিসংঘসহ বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

সেমিনারে বক্তারা বলেন, বাংলাদেশে ‘গণহত্যা’র স্বীকৃতির অধিকার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির মাধ্যমে ১৯৭১-এর ‘গণহত্যা’র শিকার এবং তাদের বংশধরদের সম্মান জানানো একান্ত প্রয়োজন। দুর্ভাগ্যবশত, বাংলাদেশের গণহত্যা আজ বিশ্বের কাছে ইতিহাসের এক বিস্মৃত অধ্যায় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

সোমবার (৩ অক্টোবর) সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় জাতিসংঘ মানবাধিকার কমিশনের সদরদপ্তরে ৫১তম অধিবেশনে ইউরোপভিত্তিক প্রবাসী সংগঠন বাসুগ এই সেমিনারের আয়োজন করে। সেমিনারের এই সাইড ইভেন্টটি ইউরোপভিত্তিক থিঙ্ক ট্যাঙ্ক ইউরোপীয় বাংলাদেশ ফোরাম (ইবিএফ) এবং সুইজারল্যান্ড মানবাধিকার কমিশন বাংলাদেশের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত হয়।

জেনেভায় জাতিসংঘে বাংলাদেশের উপস্থায়ী প্রতিনিধি সঞ্চিতা হক বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশের মানুষ তৎকালীন পশ্চিম পাকিস্তানের বৈষম্য ও শোষণ-নিপীড়নের বিরুদ্ধে ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ৯ মাস লড়াই করেছে। এই ৯ মাস পাকিস্তানি সেনাবাহিনী বাংলাদেশের নিরস্ত্র নারী-শিশুসহ সাধারণ মানুষের ওপর অবর্ণনীয় নির্যাতন করেছে। বাংলাদেশের মানুষ জাতিসংঘের কাছে এই গণহত্যার সুবিচার চায়। স্বীকৃতি চায় জাতিসংঘের।

এই স্পর্শকাতর বিষয়ে বাংলাদেশের প্রতি বিশ্ববাসীর সমর্থন আহ্বান জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাদেশ সরকার একাত্তরের গণহত্যার জন্য দায়ী ব্যক্তিদের বিচারের আওতায় আনতে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল গঠন করেছে। এছাড়া বাংলাদেশ সরকার বিশ্বের যেকোন জায়গায় নির্যাতন-নিপীড়ন ও গণহত্যার নিন্দা জানায়।

পাকিস্তানের নাগরিক বিচারপতি সৈয়দ আলী শাকার বলেন, গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি এবং সঠিক বিচারের জন্য আন্তর্জাতিক কমিশন গঠন করতে হবে, যেখানে পাকিস্তানের পক্ষ থেকেও প্রতিনিধি থাকতে হবে। বর্তমানে সুইডেনে নির্বাসিত পাকিস্তানি এই নাগরিক শাকার বাংলাদেশের একজন প্রবল সমর্থক এবং একাত্তরে গণহত্যার তীব্র সমালোচক। ১৯৭১ সালে পাকিস্তান সরকার ও সামরিক শাসনে বাংলাদেশের পক্ষে তার ভূমিকার জন্য তাকে ছয় মাসের জন্য কারাগারে পাঠায়।

ছবি

ডিএমপির বিশেষ অভিযানে গ্রেপ্তার ৪৭২

ছবি

তিন বছরে নাগরিকত্ব ছেড়েছেন ৮৬২ বাংলাদেশি

ছবি

এক মাসের ব্যবধানে ফের বাড়লো এলপিজির দাম

ছবি

ভবিষ্যতে বিদ্যুতের সমস্যা হবে না: প্রধানমন্ত্রী

ওয়াসার এমডির নিয়োগের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে সুমনের রিট

ছবি

নভেম্বরে ৪৬৩ সড়ক দুর্ঘটনায় ৫৫৪ জনের প্রাণহানি

ছবি

চট্টগ্রামে রাষ্ট্রপতি প্যারেডে যোগ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

৯ সরকারি হাইস্কুল প্রকল্পে অনিয়ম, অগ্রিম বিল পরিশোধের পর নির্মাণ কাজে স্থবিরতা

‘প্রতিবন্ধী মানুষের নেতৃত্বে আসতে হবে’

ছবি

১৫ বছর পর লাভের মুখ দেখলো বিটিসিএল

ছবি

বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ সৃষ্টির আভাস

ছবি

শান্তিচুক্তি বাস্তবায়নের ক্ষীণ সম্ভাবনাও দেখি না : সন্তু লারমা

ছবি

পার্বত্য অঞ্চলের শান্তিচুক্তি: বাস্তবায়নে ‘বিশেষ মহল’ অপ্রচার

‘নারীরা সংগ্রাম করলেও ক্ষমতা নিয়ন্ত্রণে কেবল পুরুষরাই’

ছবি

অপরাধীদের দিয়ে পাহাড়কে অশান্ত করেছে জিয়া : সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

ছবি

প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগে পদ সংখ্যা বাড়ছে

ছবি

দেশে প্রথম মেরুদণ্ড জোড়ালাগা দুই শিশু আলাদা করা হবে

প্রশাসনিক কর্মকর্তা পদে ৫২ জনের পদোন্নতি

ছবি

দেশে একবছরে এইডসে মারা গেছেন ২৩২ জন

ছবি

ডিসেম্বরকে বীর মুক্তিযোদ্ধা মাস ঘোষণার দাবি : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

‘গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম যাচাই-বাছাই করে সিদ্ধান্ত’

ছবি

বিজয়ের মাস শুরু

ছবি

সব বয়সী মানুষকে উচ্চশিক্ষার সুযোগ দিতে হবে: শিক্ষামন্ত্রী

ছবি

২ কোটি ২০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল কিনবে সরকার

ছবি

সংবিধান ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় প্রস্তুত থাকতে হবে : সেনাপ্রধান

ছবি

বাংলাদেশ সবসময় ভারতের কাছ থেকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার পায় : ভার্মা

ছবি

ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে ট্রেন চলাচল সাময়িক বন্ধ

ছবি

খালেদা জিয়া সমাবেশে যোগ দিলে দেখবে আদালত: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

দশ দফা দাবিতে ট্রেন আটকে যাত্রীদের অবস্থান কর্মসূচি

ছবি

বিশ্বকাপ আয়োজনে ‘৪০০-৫০০ শ্রমিক’ মারা গেছে, স্বীকার করল কাতার

ছবি

করোনা টিকার ৪র্থ ডোজ দেয়ার সুপারিশ

ছবি

ওয়াসার এমডি তাকসিম এ খান ১৩ বছরে ৫ কোটি ৭৯ লাখ টাকা বেতন নিয়েছেন, হাইকোর্টে প্রতিবেদন

ছবি

সংকটকালে ১০ শতাংশ গ্যাস উৎপাদন বাড়ালো এসজিএফএল

সরকারিভাবে মালয়েশিয়ায় কর্মী যাওয়া শুরু হয়েছে

ছবি

কর ব্যবস্থাপনা গণমুখী করতে সবাইকে কাজ করে যেতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

ছবি

১০ টাকায় টিকিট কেটে চোখ দেখালেন প্রধানমন্ত্রী

tab

জাতীয়

জাতিসংঘে একাত্তরে গণহত্যার স্বীকৃতি দাবি

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২

জেনেভায় জাতিসংঘ ভবনে অনুষ্ঠিত সেমিনারে ১৯৭১ সালে পাকিস্তানিদের দ্বারা সংঘটিত গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির দাবি এবং এই গণহত্যাকে অবিলম্বে স্বীকৃতি দেয়ার জন্য জাতিসংঘসহ বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

সেমিনারে বক্তারা বলেন, বাংলাদেশে ‘গণহত্যা’র স্বীকৃতির অধিকার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির মাধ্যমে ১৯৭১-এর ‘গণহত্যা’র শিকার এবং তাদের বংশধরদের সম্মান জানানো একান্ত প্রয়োজন। দুর্ভাগ্যবশত, বাংলাদেশের গণহত্যা আজ বিশ্বের কাছে ইতিহাসের এক বিস্মৃত অধ্যায় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

সোমবার (৩ অক্টোবর) সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় জাতিসংঘ মানবাধিকার কমিশনের সদরদপ্তরে ৫১তম অধিবেশনে ইউরোপভিত্তিক প্রবাসী সংগঠন বাসুগ এই সেমিনারের আয়োজন করে। সেমিনারের এই সাইড ইভেন্টটি ইউরোপভিত্তিক থিঙ্ক ট্যাঙ্ক ইউরোপীয় বাংলাদেশ ফোরাম (ইবিএফ) এবং সুইজারল্যান্ড মানবাধিকার কমিশন বাংলাদেশের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত হয়।

জেনেভায় জাতিসংঘে বাংলাদেশের উপস্থায়ী প্রতিনিধি সঞ্চিতা হক বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশের মানুষ তৎকালীন পশ্চিম পাকিস্তানের বৈষম্য ও শোষণ-নিপীড়নের বিরুদ্ধে ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ৯ মাস লড়াই করেছে। এই ৯ মাস পাকিস্তানি সেনাবাহিনী বাংলাদেশের নিরস্ত্র নারী-শিশুসহ সাধারণ মানুষের ওপর অবর্ণনীয় নির্যাতন করেছে। বাংলাদেশের মানুষ জাতিসংঘের কাছে এই গণহত্যার সুবিচার চায়। স্বীকৃতি চায় জাতিসংঘের।

এই স্পর্শকাতর বিষয়ে বাংলাদেশের প্রতি বিশ্ববাসীর সমর্থন আহ্বান জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাদেশ সরকার একাত্তরের গণহত্যার জন্য দায়ী ব্যক্তিদের বিচারের আওতায় আনতে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল গঠন করেছে। এছাড়া বাংলাদেশ সরকার বিশ্বের যেকোন জায়গায় নির্যাতন-নিপীড়ন ও গণহত্যার নিন্দা জানায়।

পাকিস্তানের নাগরিক বিচারপতি সৈয়দ আলী শাকার বলেন, গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি এবং সঠিক বিচারের জন্য আন্তর্জাতিক কমিশন গঠন করতে হবে, যেখানে পাকিস্তানের পক্ষ থেকেও প্রতিনিধি থাকতে হবে। বর্তমানে সুইডেনে নির্বাসিত পাকিস্তানি এই নাগরিক শাকার বাংলাদেশের একজন প্রবল সমর্থক এবং একাত্তরে গণহত্যার তীব্র সমালোচক। ১৯৭১ সালে পাকিস্তান সরকার ও সামরিক শাসনে বাংলাদেশের পক্ষে তার ভূমিকার জন্য তাকে ছয় মাসের জন্য কারাগারে পাঠায়।

back to top