alt

ক্যাম্পাস

ঢাবির ভর্তি পরীক্ষার আবেদনের সময় শেষ

প্রতিটি পদের জন্য লড়বেন ৪৮ জন প্রার্থী

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, ঢাবি
image
শুক্রবার, ০২ এপ্রিল ২০২১

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২০-২১ সেশনের স্নাতক ভর্তি পরীক্ষায় আবেদন গ্রহণ শেষ হয়েছে। বৃস্পতিবার (৩১ মার্চ) বিকেল পর্যন্ত মোট আবেদন পড়েছে ৩ লাখ ৪৩ হাজার ৭১২টি। এর মধ্যে ‘এ’ ইউনিটে ১ লাখ ২৩ হাজার ৮০৬টি, ‘বি’ ইউনিটে ৪৭ হাজার ৯৬২টি, ‘সি’ ইউনিটে ২৭ হাজার ৭৫৬টি, ‘ডি’ ইউনিটে ১ লাখ ২১ হাজার ৫৩৭টি এবং ‘এফ’ ইউনিটে ২২ হাজার ৬৫১টি আবেদন জমা পড়েছে। এবছর ঢাবি ভর্তি পরীক্ষায় প্রতিটি পদের জন্য লড়াই করবেন প্রায় ৪৮ জন ভর্তি প্রার্থী।

এ বছর অনলাইনের মাধ্যমে ৭ হাজার ১৩৩ টি আসনের বিপরীতে এ, বি, সি, ডি এবং এফ ইউনিটের পাঁচটি ইউনিটের মোট ৩ লাখ ৪৩ হাজার ৭১২ জন প্রার্থী আবেদন জমা দিয়েছেন। গত বছর ২ লাখ ৭৬ হাজার ৫৫৪ জন আবেদনকারী ৭ হাজার ১১৮টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছেন, প্রতিটি আসনের জন্য ৩৮ জন শিক্ষার্থী প্রতিযোগিতা করেছেন।

৩ লাখ ৪৩ হাজার ৭১২ জন আবেদনকারীর মধ্যে ১ লাখ ২৩ হাজার ৮০৬ জন আবেদনকারী ১ হাজার ৮১০টি আসনের বিপরীতে এ ইউনিট পরীক্ষায়, বি ইউনিটের জন্য ২ হাজার ৩৭৮ টি আসনের বিপরীতে ৪৭ হাজার ৯৬২ জন, সি ইউনিটে ১ হাজর ২৫০ টি আসনের বিপরীতে ২৭ হাজার ৭৫৬ জন, ডি ইউনিটে ১ হাজার ৫৬০টি আসনের বিপরীতে ১ লাখ ২১ হাজার ৫৩৭ জন এবং এফ ইউনিটে ১৩৫টি আসনের বিপরীতে ২২ হাজার ৬৫১ জন প্রার্থী অংশগ্রহণ করবেন।

বিভিন্ন ইউনিটে আসন সংখ্যা আগের বছরের মতো থাকলেও এবছর আবেদনকারীর সংখ্যা বেড়েছে। তবে নতুন বিভাগ আবহাওয়া বিজ্ঞানের জন্য এ ইউনিটে ১৫ টি আসন বৃদ্ধি পেয়েছে। এই বছর প্রথমবারের মতো এ বিভাগে স্নাতক শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে।

২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের আওতায় ঢাবির ভর্তি পরীক্ষার অনলাইন আবেদন প্রক্রিয়া গত (৩১ মার্চ) বুধবার শেষ হয়েছে যা ৮ই মার্চ থেকে শুরু হয়েছে। আবেদন ফি জমা দেওয়ার সময়সীমা ছিলো ১ এপ্রিল মধ্যরাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত।

প্রতিটি একক ইউনিটের জন্য ভর্তি পরীক্ষার ফি, ব্যাংক পরিসেবা চার্জ এবং অনলাইন ভর্তি ফিসহ ৬৫০ টাকা নির্ধারণ করা হয়। আবেদনকারীরা পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট আগে পর্যন্ত পহেলা মে থেকে তাদের প্রবেশপত্র সংগ্রহ করতে সক্ষম হবেন। ক্যালকুলেটর, মোবাইল ফোন এবং যে কোনও ধরণের ডিভাইস পরীক্ষার হলে নিষিদ্ধ এবং পরীক্ষার সময় মোবাইল কোর্ট ডিউটিতে থাকবে।

পরীক্ষার তারিখ

আগামী ১ মে এ ইউনিট পরীক্ষা, ২২ মে বি ইউনিট পরীক্ষা, ২৭ মে সি ইউনিট পরীক্ষা এবং ২৮ মে ডি ইউনিট পরীক্ষা এবং ৫ জুন এফ ইউনিট পরীক্ষা। এই বছর আটটি বিভাগীয় শহরে অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিটি পরীক্ষা সকাল ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে।

নতুন নাম্বারিং ব্যবস্থা

এ বছর মোট ১২০ নম্বরের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে, যার মধ্যে এমসিকিউ ৬০ নম্বর এবং লিখিত অংশে এ, বি, সি ও ডি ইউনিটের ক্ষেত্রে ৪০ নম্বর এবং এসএসসি ও এইচএসসি ফলাফলের জন্য ২০ নম্বর থাকবে। এসএসসি এবং এইচএসসি ফলাফলের জন্য ২০ নম্বর নির্ধারণ করা হবে যেখানে আগের শিক্ষাবর্ষে এটি ছিল ৮০ নম্বর। অন্যদিকে, এফ ইউনিটের ক্ষেত্রে, ৪০নম্বর এমসিকিউ এবং ৬০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এমসিকিউ অংশের জন্য পাস নম্বর হচ্ছে ২৪ এবং এমসিকিউতে এপাস নম্বর পেতে ব্যর্থ হলে লিখিত অংশ মূল্যায়ন করা হবে না।

বি, সি এবং ডি ইউনিট আবেদনকারীদের জন্য লিখিত অংশ পাস করতে হলে ১১ বা ততোধিক স্কোর করতে হবে এবং এ ইউনিটের শিক্ষার্থীদের উত্তীর্ণ হতে ১২ বা তার বেশি হতে হবে। কোনও প্রার্থী যদি 11 এরও কম প্রাপ্ত হন, তবে এমসিকিউ অংশটি পাস করেন তবে তারাও ভর্তির অযোগ্য বলে বিবেচিত হবে। পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার জন্য প্রতিটি আবেদনকারীকে এমসিকিউ এবং লিখিত উভয় অংশেই পাস করতে হবে।

পরীক্ষার সময়কাল

এ, বি, সি ও ডি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের ৪৫ মিনিটের মধ্যে ৬০ মার্কসের নৈব্যত্তিক পরীক্ষা এবং অন্য ৪৫ মিনিটের মধ্যে ৪০ নম্বর লিখিত পরীক্ষা দিতে হবে। তবে, এফ ইউনিটের তাত্ত্বিক পরীক্ষায় নৈব্যত্তিক ৪০ নাম্বারের জন্য ৩০ মিনিট বরাদ্দ দেওয়া হবে এবং লিখিত ৬০ (অঙ্কন) নম্বর পরীক্ষার জন্য ৪৫ মিনিট বরাদ্দ দেওয়া হবে।

পরীক্ষাকেন্দ্র

কোভিড-১৯ মহামারির কারণে এ বছর ঢাকা, চাটগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, রংপুর, বরিশাল এবং ময়মনসিংহসহ মোট আটটি বিভাগীয় শহরে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

ছবি

বশেফমুবিপ্রবি কোষাধ্যক্ষের প্রত্যাহার চেয়ে ঢাবি শিক্ষক সমিতির বিবৃতি

কুষ্টিয়ায় আইসিইউ স্থাপনের দাবি ইবি শিক্ষকদের

ছবি

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের রুটিন দায়িত্বে প্রফেসর আনোয়ার হোসেন

ছবি

বিতর্কিত নিয়োগ দিয়ে বিদায় নিলেন রাবি উপাচার্য

ছবি

পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে অনলাইনেই ঢাবির পরীক্ষা

ছবি

ইবির নতুন কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক আলমগীর

ছবি

ঢাবিতে অনলাইনে পরীক্ষার নীতিগত সিদ্ধান্ত

ছবি

শ্রমিক হত্যার বিচার ও উইঘুর নির্যাতন বন্ধ চেয়ে সমাবেশ

ছবি

জাবির ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন শুরু ১জুন

ছবি

খুলছে না ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হল

ছবি

যুক্তরাষ্ট্রে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জনের সুযোগ

ছবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষপূর্তি উপলক্ষ্যে ’থিমসং’ আহ্বান

ছবি

লিডিং ইউনিভার্সিটিতে ভার্চুয়াল সেমিনার

ইউজিসির অভিন্ন নীতিমালা প্রত্যাখ্যান

ছবি

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর মো. নোমান উর রশীদের বিদায় সংবর্ধনা

ছবি

‘স্টুডেন্টসাপোর্ট লোন’ দিচ্ছে নর্দান ইউনিভার্সিটি

ছবি

স্টামফোর্ডে ভার্চুয়াল বৈশাখি আড্ডা

টেন্ডার নিয়ে জবি ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের হাতাহাতি

ছবি

লকডাউনের পূর্বেই খাদ্য ও কর্মের নিশ্চয়তার দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাবেশ

ছবি

করোনা সংক্রমণ রোধে জবি ছাত্রলীগের মাস্ক বিতরণ

ছবি

দক্ষ মানব সম্পদ তৈরি করতে ঢাবির ‘কর্মসূচি’

ছবি

কর্মহীন অসহায় মানুষদের মাঝে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের মাস্ক ও খাবার বিতরণ

ছবি

ছাত্র ইউনিয়নের ৪০তম কেন্দ্রিয় কমিটির প্রথম জাতীয় পরিষদ সভা অনুষ্ঠিত

ছবি

ঢাবিতে ‘রাজু’ দিবস পালিত

ছবি

কারিগরি ত্রুটির কারণে ঢাবিতে ভর্তির আবেদন সাময়িক বন্ধ

ছবি

উদ্যোগী নারী সমাবেশ ২০২১

ছবি

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে ছাত্র জোটের সমাবেশ

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের কুশপুত্তলিকা দাহ

ছবি

ঢাবি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে ৭ই মার্চ উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা

ছবি

৭ই মার্চের ভাষণ পৃথিবীর সকল জাতিকে অনুপ্রাণিত করবে : ঢাবি উপাচার্য

ছবি

সাত কলেজের হল খোলার দাবিতে নীলক্ষেতে সমাবেশ

ছবি

রোহিঙ্গাদের জন্য ভাসানচর মিয়ানমারের চেয়েও বেশি নিরাপদ : ঢাবি উপ-উপাচার্য

ছবি

ঈদের পর ভর্তি পরীক্ষার দাবি মেডিকেল ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের

ছবি

ঢাবি অধ্যাপিকা সাদেকা হালিমের গবেষণা চুরি তদন্তের দাবি মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের

ছবি

মাইগ্রেশনের দাবিতে সিভিল সার্জেন কার্যালয় ঘেরাও করে বিক্ষোভ

ছবি

আত্মত্যাগের মধ্যেই হলো একজন মানুষের জীবনের স্বার্থকতা : ড. হারুন-অর-রশিদ

tab

ক্যাম্পাস

ঢাবির ভর্তি পরীক্ষার আবেদনের সময় শেষ

প্রতিটি পদের জন্য লড়বেন ৪৮ জন প্রার্থী

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, ঢাবি
image
শুক্রবার, ০২ এপ্রিল ২০২১

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২০-২১ সেশনের স্নাতক ভর্তি পরীক্ষায় আবেদন গ্রহণ শেষ হয়েছে। বৃস্পতিবার (৩১ মার্চ) বিকেল পর্যন্ত মোট আবেদন পড়েছে ৩ লাখ ৪৩ হাজার ৭১২টি। এর মধ্যে ‘এ’ ইউনিটে ১ লাখ ২৩ হাজার ৮০৬টি, ‘বি’ ইউনিটে ৪৭ হাজার ৯৬২টি, ‘সি’ ইউনিটে ২৭ হাজার ৭৫৬টি, ‘ডি’ ইউনিটে ১ লাখ ২১ হাজার ৫৩৭টি এবং ‘এফ’ ইউনিটে ২২ হাজার ৬৫১টি আবেদন জমা পড়েছে। এবছর ঢাবি ভর্তি পরীক্ষায় প্রতিটি পদের জন্য লড়াই করবেন প্রায় ৪৮ জন ভর্তি প্রার্থী।

এ বছর অনলাইনের মাধ্যমে ৭ হাজার ১৩৩ টি আসনের বিপরীতে এ, বি, সি, ডি এবং এফ ইউনিটের পাঁচটি ইউনিটের মোট ৩ লাখ ৪৩ হাজার ৭১২ জন প্রার্থী আবেদন জমা দিয়েছেন। গত বছর ২ লাখ ৭৬ হাজার ৫৫৪ জন আবেদনকারী ৭ হাজার ১১৮টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছেন, প্রতিটি আসনের জন্য ৩৮ জন শিক্ষার্থী প্রতিযোগিতা করেছেন।

৩ লাখ ৪৩ হাজার ৭১২ জন আবেদনকারীর মধ্যে ১ লাখ ২৩ হাজার ৮০৬ জন আবেদনকারী ১ হাজার ৮১০টি আসনের বিপরীতে এ ইউনিট পরীক্ষায়, বি ইউনিটের জন্য ২ হাজার ৩৭৮ টি আসনের বিপরীতে ৪৭ হাজার ৯৬২ জন, সি ইউনিটে ১ হাজর ২৫০ টি আসনের বিপরীতে ২৭ হাজার ৭৫৬ জন, ডি ইউনিটে ১ হাজার ৫৬০টি আসনের বিপরীতে ১ লাখ ২১ হাজার ৫৩৭ জন এবং এফ ইউনিটে ১৩৫টি আসনের বিপরীতে ২২ হাজার ৬৫১ জন প্রার্থী অংশগ্রহণ করবেন।

বিভিন্ন ইউনিটে আসন সংখ্যা আগের বছরের মতো থাকলেও এবছর আবেদনকারীর সংখ্যা বেড়েছে। তবে নতুন বিভাগ আবহাওয়া বিজ্ঞানের জন্য এ ইউনিটে ১৫ টি আসন বৃদ্ধি পেয়েছে। এই বছর প্রথমবারের মতো এ বিভাগে স্নাতক শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে।

২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের আওতায় ঢাবির ভর্তি পরীক্ষার অনলাইন আবেদন প্রক্রিয়া গত (৩১ মার্চ) বুধবার শেষ হয়েছে যা ৮ই মার্চ থেকে শুরু হয়েছে। আবেদন ফি জমা দেওয়ার সময়সীমা ছিলো ১ এপ্রিল মধ্যরাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত।

প্রতিটি একক ইউনিটের জন্য ভর্তি পরীক্ষার ফি, ব্যাংক পরিসেবা চার্জ এবং অনলাইন ভর্তি ফিসহ ৬৫০ টাকা নির্ধারণ করা হয়। আবেদনকারীরা পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট আগে পর্যন্ত পহেলা মে থেকে তাদের প্রবেশপত্র সংগ্রহ করতে সক্ষম হবেন। ক্যালকুলেটর, মোবাইল ফোন এবং যে কোনও ধরণের ডিভাইস পরীক্ষার হলে নিষিদ্ধ এবং পরীক্ষার সময় মোবাইল কোর্ট ডিউটিতে থাকবে।

পরীক্ষার তারিখ

আগামী ১ মে এ ইউনিট পরীক্ষা, ২২ মে বি ইউনিট পরীক্ষা, ২৭ মে সি ইউনিট পরীক্ষা এবং ২৮ মে ডি ইউনিট পরীক্ষা এবং ৫ জুন এফ ইউনিট পরীক্ষা। এই বছর আটটি বিভাগীয় শহরে অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিটি পরীক্ষা সকাল ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে।

নতুন নাম্বারিং ব্যবস্থা

এ বছর মোট ১২০ নম্বরের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে, যার মধ্যে এমসিকিউ ৬০ নম্বর এবং লিখিত অংশে এ, বি, সি ও ডি ইউনিটের ক্ষেত্রে ৪০ নম্বর এবং এসএসসি ও এইচএসসি ফলাফলের জন্য ২০ নম্বর থাকবে। এসএসসি এবং এইচএসসি ফলাফলের জন্য ২০ নম্বর নির্ধারণ করা হবে যেখানে আগের শিক্ষাবর্ষে এটি ছিল ৮০ নম্বর। অন্যদিকে, এফ ইউনিটের ক্ষেত্রে, ৪০নম্বর এমসিকিউ এবং ৬০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এমসিকিউ অংশের জন্য পাস নম্বর হচ্ছে ২৪ এবং এমসিকিউতে এপাস নম্বর পেতে ব্যর্থ হলে লিখিত অংশ মূল্যায়ন করা হবে না।

বি, সি এবং ডি ইউনিট আবেদনকারীদের জন্য লিখিত অংশ পাস করতে হলে ১১ বা ততোধিক স্কোর করতে হবে এবং এ ইউনিটের শিক্ষার্থীদের উত্তীর্ণ হতে ১২ বা তার বেশি হতে হবে। কোনও প্রার্থী যদি 11 এরও কম প্রাপ্ত হন, তবে এমসিকিউ অংশটি পাস করেন তবে তারাও ভর্তির অযোগ্য বলে বিবেচিত হবে। পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার জন্য প্রতিটি আবেদনকারীকে এমসিকিউ এবং লিখিত উভয় অংশেই পাস করতে হবে।

পরীক্ষার সময়কাল

এ, বি, সি ও ডি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের ৪৫ মিনিটের মধ্যে ৬০ মার্কসের নৈব্যত্তিক পরীক্ষা এবং অন্য ৪৫ মিনিটের মধ্যে ৪০ নম্বর লিখিত পরীক্ষা দিতে হবে। তবে, এফ ইউনিটের তাত্ত্বিক পরীক্ষায় নৈব্যত্তিক ৪০ নাম্বারের জন্য ৩০ মিনিট বরাদ্দ দেওয়া হবে এবং লিখিত ৬০ (অঙ্কন) নম্বর পরীক্ষার জন্য ৪৫ মিনিট বরাদ্দ দেওয়া হবে।

পরীক্ষাকেন্দ্র

কোভিড-১৯ মহামারির কারণে এ বছর ঢাকা, চাটগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, রংপুর, বরিশাল এবং ময়মনসিংহসহ মোট আটটি বিভাগীয় শহরে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

back to top